কড়া ভাষায় এই ভারতীয় খেলোয়াড়দের শিক্ষা দিতে হবে দ্রাবিড়কে! টিম ইন্ডিয়ার হার নিয়ে বয়ান জাহির খানের 1

রবিবার বারাবাটি স্টেডিয়ামে ভারত (India) ও দক্ষিণ আফ্রিকার (South Africa) মধ্যে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। এই ম্যাচে হারের মুখে পড়ে ভারতীয় দল। দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে প্রথম ম্যাচেও হেরেছে ভারতীয় দল। রবিবার, পাঁচ ম্যাচের সিরিজের (IND vs SA) দ্বিতীয় টি-২০’র লড়াইয়ে হেনরিখ ক্লাসেনের মারকাটারি ব্যাটিংয়ে ভারতকে ৪ উইকেটে হারাল দক্ষিণ আফ্রিকা। এ জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ২-০ তে এগিয়ে গেল প্রোটিয়ারা। এ বিষয়ে প্রাক্তন ফাস্ট বোলার জাহির খান (Zaheer Khan) বলেছেন, কোচ রাহুল দ্রাবিড়কে (Rahul Dravid) দলের সঙ্গে কড়া ভাষায় কথা বলা দরকার। তিনি বলেছিলেন যে ভারতীয় দলে সেই ফাইটিং স্পিরিট নেই।

টিম ইন্ডিয়ার স্পিরিট নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন এই অভিজ্ঞ

IND vs SA

পাওয়ারপ্লেতে তিনটি উইকেট নিয়ে বোলিংয়ে ভারত একটি ভাল শুরু করেছিল, কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার খেলোয়াড় হেনরিখ ক্লাসেন এবং অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা ৪১ বলে ৬৪ রান করার সময় সেই চাপ কমে যায়। ১৩তম ওভারে, ক্লাসেন দায়িত্ব নেন এবং দক্ষিণ আফ্রিকাকে একটি দুর্দান্ত জয় এনে দেন এবং সিরিজে ২-০ তে এগিয়ে যায় প্রোটিয়ারা। এই হারের পর জাহির খান বলেছেন, “ক্লাসেন-বাভুমা জুটিকে আরও শক্তিশালী হতে দেখে আপনি অবশ্যই অনুভব করছেন যে ভারতীয় দলের স্পিরিট ভেঙে যাচ্ছে। মাঠেও তা স্পষ্ট দেখা যাচ্ছিল। তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচের আগে রাহুল দ্রাবিড় এবং টিম ম্যানেজমেন্টের এই বিষয়গুলিতে মনোযোগ দেওয়া উচিত এবং ঠিক করা উচিত। তাদের আবার ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। দলের সাথে কঠিন ভাষায় কথা বলা উচিত এবং তাদের বলা উচিত ৪০ ওভারের জন্য লড়াই করতে গেলে তাদের কী করতে হবে।”

বল হাতে ভারতের শুরুটা ভালো ছিল

IND vs SA

প্রাক্তন বোলার বলছেন, “প্রথম ম্যাচেও মনে হচ্ছিল ভারতীয় দল জিতবে। দ্বিতীয় ম্যাচেও বল হাতে ভালো শুরু করেছিল ভারত। ভুবনেশ্বর কুমার দুর্দান্ত বোলিং করলেও ম্যাচ শেষ করতে পারেননি। সিরিজে এগিয়ে যাওয়ায় ভারত উদ্বেগ ও অনেক চাপের মুখে পড়বে।” ২৯ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারিয়ে বসেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। তবে অধিনায়ক বাভুমাকে নিয়ে ৬৪ রানের ম্যাচ উইনিং জুটি গড়েন হেনরিখ ক্লাসেন। অধিনায়ক প্যাভিলিয়নে ফিরলেও ক্রিজে টিকে থাকেন ক্লাসেন। খেলেন ৪৬ বলে ৮১ রানের ঝড়ো ইনিংস। তার ৮১ রানের ইনিংসটি সাজানো ছিল ৭ চার ও ৫ ছয়ের মাধ্যমে। ক্লাসেন আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরলেও গত ম্যাচের নায়ক মিলার ছিলেন ক্রিজে। তার অপরাজিত ১৫ বলে ২০ রানের ইনিংসে জয় পায় প্রোটিয়ারা। ভারতের হয়ে মাত্র ১৩ রান দিয়ে ৪ উইকেট পান ভুবনেশ্বর কুমার।

Leave a comment

Your email address will not be published.