Womens T20 Challenge

মহিলাদের টি-২০ চ্যালেঞ্জের (Womens T20 Challenge) অত্যন্ত উত্তেজনাপূর্ণ ফাইনাল ম্যাচে সুপারনোভাস দল ভেলোসিটিকে ৪ রানে পরাজিত করলো। ফাইনাল ম্যাচে ভেলোসিটির অধিনায়ক দীপ্তি শর্মা টসে জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন। পুনের মহারাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন মাঠে প্রথমে ব্যাট করে বিশাল স্কোর গড়ে সুপারনোভাসের দল। সুপারনোভার হয়ে ইনিংস শুরু করেন প্রিয়া পুনিয়া ও দিয়ান্দ্রা ডটিন। প্রিয়া ২৮ রান করে আউট হন এবং ডেন্দ্রা ৬২ রান করেন।

৪৩ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস খেলেন অধিনায়ক হরমনপ্রীত। পূজা ভাস্ত্রকার ৫ রান এবং সোফি ২ রান করেন। সুনে লাস আউট হয়ে গেলেন ৩ রান করে। হারলিন কৌর খেলেন ৭ রানের ইনিংস। শেষ পর্যন্ত ১৭ রানে অপরাজিত থাকেন আলানা কিং। সব মিলিয়ে ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৬৫ রান করে ভেলোসিটি। ভেলোসিটির হয়ে দুটি করে উইকেট নেন কেট ক্রস, দীপ্তি শর্মা ও সিমরান বাহাদুর।

Womens T20 Challenge

জবাবে, ভেলোসিটির হয়ে ইনিংস শুরু করেন শাফালি ভার্মা ও ইয়াশিকা ভাটিয়া। শাফালি ১৫ রান করে আউট হন এবং ইয়াশিকা ১৩ রান করেন। শূন্য রানে বোল্ড হন কিরণ প্রভু। নাত্থাখান করেন ৬ রান। মাত্র ২ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন অধিনায়ক দীপ্তি শর্মা। স্নেহ রানা করেন ১৫ রান। শূন্য রানে আউট হন রাধা যাদব। ক্রেট ক্রসের অবদান ১৩ রান। যখন উইকেটের পতন হচ্ছিল, লরা উলফকোর্ট এবং সিমরন বাহাদুর ক্রিজে নেন। ভেলোসিটির হয়ে সবচেয়ে বড় ইনিংস খেলেন লরা উলভহার্ট। উলভহার্ট একপ্রান্ত ধরে রেখে ৬৫ রানে অপরাজিত থাকেন। সব মিলিয়ে ১৬১ রান করে যায় ভেলোসিটি।

কী বললেন দিয়ান্দ্রা ডটিন?

Womens T20 Challenge: ভেলোসিটিকে একার হাতেই মাটি ধরালেন দিয়ান্দ্রা ডটিন, ম্যাচের পর করলেন সাফল্যের গোপন তথ্য ফাঁস !! 1

ম্যাচের পর খেলার সেরা দিয়ান্দ্রা ডটিন বলেন, “এই টুর্নামেন্টের অংশ হতে পেরে নিজেকে দারুণ লাগছে। অভিজ্ঞতা খুবই ভালো। আপনি এখানে আসেন এবং অন্যান্য খেলোয়াড়দের কাছ থেকে শিখেন এবং আপনি আপনার সতীর্থদের সাথে বন্ধনে আবদ্ধ হন এবং বিভিন্ন ব্যক্তিত্বের কাছ থেকে শেখেন। আমি একটু লাজুক কিন্তু এটা আমার জন্য খুব ভাল ছিল। দল আমাকে সমর্থন করেছিল, আমাকে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করায় আর আমি আমার সেরাটা দিয়েছি।”

Leave a comment

Your email address will not be published.