টেস্ট ও প্রথম-শ্রেণির ক্রিকেট কেরিয়ারকে বিদায় জানালে দক্ষিণ আফ্রিকার তারকা ক্রিকেটার জাঁ পল ডুমিনি। ফলে ভারতের বিরুদ্ধে আগামী বছরের গোড়ার দিকে শুরু হতে চলা টেস্ট সিরিজে দক্ষিণ আফ্রিকা দলে তাঁর জায়গা পাওয়া নিয়ে যে জল্পনা চলছিল, তার অবসান হল। গত বছর থেকেই খারাপ ফর্ম চলছিন ডুমিনির। তারওপর টেস্ট ক্রিকেটে থেকে এবি ডি ভিলিয়ার্স অবসর নিয়ে নেওয়ার পর তাঁকে ওপেনিং স্লট থেকে ব্য়াটিং অর্ডারে চার নম্বরে নামিয়ে আনা হয়। এখানেই শেষ নয়। তাতেও ডুমিনির ফর্মে কোনও রকম পরিবর্তন আসেনি। ব্য়াটে রানের ক্ষরা চলতেই থাকে। তেত্রিশ বছরের এই দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটার ইংল্য়ান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্য়াচে দুই ইনিংসে মাত্র ১৫ ও ২ রান করেন। আর তার পরেই তাঁকে প্রথম একাদশের বাইরে রাখতে বাধ্য় হন প্রোটিয়াদের নতুন অধিনায়ক ফা দু প্লেসি। তাঁকে প্রথম একাদশের বাইরে বের করার আগে, সতর্কও করেও দিয়েছিলেন অধিনায়ক। এরপর, দ্বিতীয় টেস্টে প্রথম একাদশে জায়গা না পাওয়ার পর ডুমিনিকে আর পরের দুটি টেস্টের জন্য় নির্বাচন করা হয়নি।

ক্রিকেট থেকে এত তাড়াতাড়ি অবসর নিয়ে নেওয়ায় অনেকেই আশ্চর্য হয়ছেন। ডুমিনি নিজেও বলছেন, ক্রিকেটকে এখনও অনেক কিছু দিতে পারতেন তিনি। তবে, এই অবসরের সিদ্ধান্তটা অনেক ভাবনা-চিন্তা করার পরই তিনি ঘোষণা করেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার একটি সংবাদমাধ্য়মকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রাক্তন এই ওপেনিং ব্য়াটসম্য়ান বলেন, আমি নিশ্চিত, আমার ক্রিকেট কেরিয়ার এখনও শেষ পর্যায়ে আসেনি। আশা করি, ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা, কেপ কোবরা, টিমমেটদের, পরিবারের সদস্য়দের, বন্ধু-বান্ধব ও সমর্থকদের সমর্থন নিয়ে আমি এই খেলার সঙ্গে আরও বেশ কয়েক বছর যুক্ত থাকব। কারণ আমি খেলাটাকে ভালোবাসি। ডুমিনি এরপর বলেন, তবে, টেস্ট ও প্রথম শ্রেনির ক্রিকেট থেকে সরে দাঁড়ানোর যে সিদ্ধান্তটা আমি নিয়েছে, তার পেছনে অনেক ভাবনা-চিন্তা নিয়োজিত আছে। এখন থেকে আমি আর টেস্ট ও প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলব না। দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক আসরে ৪৬টি টেস্টে প্রতিনিধিত্ব করতে পেরেছি, এজন্য় আমি গর্বিত। গত ষোলো বছরে কেপ কোবরার হয়ে আমি ১০৮টি প্রথম শ্রেণির ম্য়াচ খেলেছি।

উল্লেখ্য়, দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ২০০৮ সালে পার্থে অস্ট্রেলিয়া সফরে টেস্টের আসরে ডুমিনির অভিষেক হয়েছিল। ওই সফরের প্রথম ম্য়াচে অপরাজিত পঞ্চাশ রান করে দক্ষিণ আফ্রিকার নিশ্চিত হার বাঁচিয়ে ছিলেন তিনি। এরপর দ্বিতীয় টেস্টে মেলবোর্নে ডুমিনির ১৬৬ রান চিরস্মরণীয়। প্রোটিয়া টিমের জার্সি গায়ে ২১০৩ রান করেছেন তিনি। টেস্টের আসরে ৬টি শতরান ও ৮টি অর্ধ-শতরান রয়েছে এই বাঁ-হাতি ব্য়াটসম্য়ানের।

SHARE

আরও পড়ুন

আইপিএল ২০১৯: যে তিন ফ্র্যাঞ্চাইজি দলে ভেড়াতে পারে গৌতম গম্ভীরকে

দুই বিশ্বকাপ আসরের ফাইনালে দলের পক্ষে সেরা ইনিংস খেলে দলকে জয়ী করার ক্ষেত্রে অবদান রাখা গৌতম গম্ভীরকে...

TOP5: যে ৫ বাংলাদেশী ক্রিকেটারের দিকে নজর দিতে পারে আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজি

আগামী বিশ্বকাপের আগে বসতে যাচ্ছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলের বারোতম আসর। বিশ্বের অন্যতম সেরা এই টুর্নামেন্টে বসে...

আইপিএল ২০১৯: মুস্তাফিজকে দলে ভেড়াতে চাইবে যে তিন ফ্র্যাঞ্চাইজি

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে রাজকীয় অভিষেক হবার পর থেকে একের পর এক রেকর্ড গড়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশী পেসার মুস্তাফিজুর রহমান।...

TOP5: ওয়ানডেতে সর্বকালের সেরা ৫ উইকেটরক্ষক

গ্লাভস হাতে তিন কাঠির পেছনে তীক্ষ্ণ দৃষ্টিতে বলের দিকে তাকিয়ে থাকেন উইকেটরক্ষক। বল গ্লাভস বন্দী করে ব্যাটসম্যানকে...

TOP5: আইপিএলে সর্বাধিক ছক্কা হাঁকানো পাঁচ ব্যাটসম্যান

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ বা আইপিএল যেন প্রতিভাবান ক্রিকেটার খোঁজার এক আতশ কাচ। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে হওয়া এই...