গতকাল রাতেই শ্রীলঙ্কায় পাঁচটি একদিনের আন্তর্জাতিক ম্য়চ ও একটি টি-২০ ম্য়াচের জন্য় দল ঘোষণা হয়েছে। তাতে দলের তিন সিনিয়র ক্রিকেটার মধ্য়ে শুধুমাত্র মহেন্দ্র সিং ধোনির জায়গা হয়েছে। বাদ পড়তে হয়েছে স্টার অলরাউন্ডার যুবরাজ সিং’কে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিসিআই’য়ের এক আধিকারিক জানিয়েও দেন, ২০১৯ বিশ্বকাপের জন্য় যুবরাজকে নিয়ে বোর্ড একবারও চিন্তা-ভাবনা করেনি। প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে দল থেকে ছেঁটে ফেলার মতো পরিবর্ত হাতে না পেলেও, যুবীকে দল থেকে বাদ দেওয়ার মতো একাধিক বিকল্প পেয়ে গিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট।
কিন্তু, আরেকজন? তাঁকে নিয়ে কোনও কথাই বলল না ভারতীয় ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা। একেবারেই নিঃশব্দে তাঁকে ছেঁটে ফেলা হল। তাঁকে শ্রীলঙ্কায় সিরিজের বাইরে রাখার কোনও ব্য়াখ্য়াই দিল না বোর্ড। অথচ টিম সিলেকশনের আগে বোর্ডের কথা মতো ফিটনেস টেস্ট দিতে তড়ঘড়ি বেঙ্গালুরু ছুটে যান রায়না। সেখানে জাতীয় ক্রিকেট অ্য়াকাডেমিতে ফিটনেস টেস্টে উতরেও যান। তাও কেন দলে জায়গা হলো না উত্তরপ্রদেশের এই বাঁ-হাতি অলরাউন্ডারটির?
তাহলে কি ঘরোয়া ক্রিকেটে অংশ না নেওয়ায়ই কাল হলো রায়নার জন্য়? সম্প্রতি ঘরোয়া ক্রিকেটে থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে রাখার কারণে খবরে শিরোনামে জায়গা করে নেন উত্তপ্রদেশের এই বাঁ-হাতি ব্য়াটসম্য়ানটি। ঘরোয়া ক্রিকেটে উত্তরপ্রদেশ এই মরশুমে তাঁকে সবকটি ম্য়াচের জন্য় নির্বাচিত করলেও, মাত্র তিনটি ম্য়াচে মাঠে নামেন রায়না। রায়নার এই কাজে অসন্তুষ্ট হয়ে বোর্ডও নতুন করে আর চুক্তি করেনি তাঁর সঙ্গে। আইসিসি চ্য়াম্পিয়ন্স ট্রফিতে তাঁর বদলে মণীশ পান্ডেকে দলে নেয় বিসিসিআই। পরে দিনেশ কার্তিক জায়গা নেন মণীশের। রায়নার ঘরোয়া ক্রিকেট না খেলার সিদ্ধান্তে বোর্ড এতটই অখুশি ছিল, মণীশ যখন চ্য়াম্পিয়ন্স ট্রফিতে যেতে পারেননি, তখন রায়নাকে তাঁর বদলে ডাকাও হয়নি। শ্রীলঙ্কায় সীমিত ওভারের সিরিজে ফের সেই মণীশ পাণ্ডের কাছেই জায়গা খোয়াতে হলো সুরেশ রায়নাকে।
শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে একদিনের ও টি-২০ সিরিজে জায়গা না হওয়ায়, বোর্ড যেমন রায়নাকে নিয়ে কোনও বিবৃতি দেননি, তেমন তিনি নিজেও কোনওরকম মন্তব্য় করেননি মিডিয়াতে। তবে, ভারতীয় দলে জায়গা না পাওয়ায় সোশ্য়াল মিডিয়াতে একটি পোস্ট করেছেন। ইনস্টাগ্রামে একটি আধ্য়াত্মিক উদ্ধৃতি পোস্ট করে নিজের মনের দুঃখ ব্য়ক্ত করতে চেয়েছেন রায়না। হিন্দি ভাষায় ওই উদ্ধৃতিতে লেখা রয়েছে, ”আমায় উপাসনাগৃহে কেন খোঁজো। তুমি যেখানে পাপ কাজ করো, আমি সেখানেও বিরাজ করি।”
উল্লেখ্য়, ভারতের হয়ে রায়না শেষ একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মাঠে নেমেছেন ২০১৫ সালে মুম্বইতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। নিউজিল্য়ান্ডের যখন ভারত সফরে এসেছিল, সেইসময় একদিনের সিরিজে প্রথম তিনটি ম্য়াচে ডাক পেলেও, ভাইরাল ফিভারের কারণে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যান। এরপর আর জাতীয় দলে ডাক পাননি। যদিও, ইংল্য়ান্ডের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে দলে ডাক পেয়েছিলেন। ওই সিরিজে তিনটি ম্য়াচে ১০৪ রান করেন রায়না। ভারতীয় ব্য়াটসম্য়ানদের মধ্য়ে সিরিজে তিনিই সবচেয়ে বেশি রান সংগ্রহ করেন।
ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ মহলে এখন প্রশ্ন উঠেছে, বিরাট-শাস্ত্রীর দলে আর কি জায়গা ফিরে পাবেন রায়না? যুবরাজের মতো উত্তরপ্রদেশের এই ক্রিকেটারটির আন্তর্জাতিক কেরিয়ারে কি এখানেই ইতি পড়ে গেল? বোর্ডের ইঙ্গিতে পরিষ্কার, শ্রীলঙ্কা থেকেই ২০১৯ বিশ্বকাপের জন্য় দল গড়া শুরু হয়ে গিয়েছে।

SHARE

আরও পড়ুন

অ্যারণ ফিঞ্চ ভারত আসার আগে দিলেন হুঙ্কার, বললেন এই পরিকল্পনার অন্তর্গত ভারতকে তাদের মাটিতেই দেব মাত

গত রবিবারই অস্ট্রেলিয়ার সীমিত ওভারের অধিনায়ক অ্যারণ ফিঞ্চের নেতৃত্বে মেলোবর্ন রেনেগেডসের দল বিগব্যাশ লীগের খেতাব জিতেছিল। এখন...

এই বোলারের বিরুদ্ধে নন স্ট্রাইকার এন্ডে থাকা পছন্দ করেন বিরাট কোহলি, স্বয়ং করলেন খোলসা

ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলির জন্য এখনো পর্যন্ত ক্রিকেটের কেরিয়ার দুর্দান্ত থেকেছে। অধিনায়ক বিরাট কোহলি এখনো পর্যন্ত...

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজের আগে যুবরাজ সিংহের সঙ্গে ফুটবল খেলতে দেখা গেল মহেন্দ্র সিং ধোনিকে, ভিডিয়ো ভাইরাল

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সিরিজের আগে যুবরাজ সিংহের সঙ্গে ফুটবল খেলতে দেখা গেল মহেন্দ্র সিং ধোনিকে, ভিডিয়ো ভাইরাল
ভারতীয় দলকে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে দুটি টি-২০ আর তারপর ২ মার্চ থেকে পাঁচটি ওয়ানডে ম্যাচের...

সেহবাগ,ধবনের পর শহিদদের পরিজনদের সাহায্যের জন্য এগিয়ে এলেন মহম্মদ শামি

সেহবাগ, ফজল আর ধবনের পর শহিদদের পরিজনদের সাহায্যের জন্য এগিয়ে এলেন মহম্মা শামি
পুলওয়ামতে ১৪ ফেব্রুয়ারি সিআরপিএফদের জওয়ানদের উপর সন্ত্রাসী হামলা হয়েছিল। এতে ৪০ এরও বেশি জওয়ান শহিদ হয়েছেন। এটা...

জঙ্গি হামলা নিয়ে গম্ভীরের মন্তব্যের পাল্টা জবাব দিলেন আফ্রিদি !

জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামা হামলায় ৪২ জন জওয়ান শহীদ হয়েছেন । আহত হয়েছেন অনেকেই, যারা এখন চিকিৎসাধিন...