"তোমার অভিষেকটা আমার চেয়ে ভালো ছিল", হতাশ গিলকে সান্তনা দিয়েছিলেন MS ধোনি !! 1

আগামী দিনের অন্যতম উদীয়মান ক্রিকেটার হলেন শুভমান গিল (Shubman Gill), ভারতের হয়ে তিনি ইতিমধ্যেই অভিষেক করে ফেলেছেন, অনুর্ধ ১৯ বিশ্বকাপে ভারতের হয়ে দুরন্ত পারফরমেন্স দেখানোর পর তাকে ভারতীয় দলে সুযোগ দেওয়া হয়েছিল ৩১ জানুয়ারি ২০১৯ সালে তিনি নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধের তিনি তার প্রথম ম্যাচ খেলেছিলেন। যদিও প্রথম ম্যাচে তিনি আশানুরূপ পারফরমেন্স করতে ব্যর্থ হয়েছিলেন, ২০২০সালে তিনি জাতীয় দলের হয়ে টেস্ট খেলায় সুযোগ আসে গিলের কাছে। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ২০২১/২২ বর্ডার-গাভাস্কার ট্রফিতে ভারতের ঐতিহাসিক সিরিজ জয়ে বিশাল ভূমিকা পালন করে গিল, ইতিমধ্যে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিনি নিজের ছাপ তৈরি করেছিলেন, বর্ডার-গাভাস্কার ট্রফিতে গিলের ৯১ রানের ইনিংস খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সিরিজ জয়ের ক্ষেত্রে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শুভমান গিল

"তোমার অভিষেকটা আমার চেয়ে ভালো ছিল", হতাশ গিলকে সান্তনা দিয়েছিলেন MS ধোনি !! 2

টেস্ট ম্যাচ ক্রিকেটে ইতিমধ্যে তিনি ২১ ইনিংসে ৫৭৯ রান করেছিলেন এবং একদিনের খেলাতেও তিনি ১২ ইনিংসে ৫৭৯ রান করেছেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিনি ইতিমধ্যেই ৭ টি ৫০ ও ১ টি শতরান করে ফেলেছেন। এছাড়া আইপিএলে ৭১ ইনিংসে ১৯০০ রান করেছেন সঙ্গে ১৪ টি অর্ধশতরান করেছেন, এবছর আইপিএলে গুজরাট টাইটানসের হয়ে জেতার অন্যতম ভূমিকা গ্রহণ করেছিলেন গিল।

অভিষেক ম্যাচে গিল

"তোমার অভিষেকটা আমার চেয়ে ভালো ছিল", হতাশ গিলকে সান্তনা দিয়েছিলেন MS ধোনি !! 3

জাতীয় দলের হয়ে গিলের অভিষেক ২০১৯ সালে হ্যামিল্টনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে, এই তরুণ ডানহাতি ব্যাটসম্যান তার প্রথম ম্যাচে হতাশজনক পারফরমেন্স দেখান, ২১ বলে মাত্র ৯ রান করেছিলেন তিনি এবং ভারতীয় দল মাত্র ৯২ রানে অলআউট হয়ে যায় যার ফলে ভারতীয় দলকে একটি লজ্জাজনক হার পেতে হয়, যদিও গিল এমন খারাপ প্রদর্শন করার পর গিল দুঃখিত হয়ে ড্রেসিং রুমে হতাশ হয়ে বসে ছিলেন, তখনই তাকে সহায়তা করেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক এম এস ধোনি (MS Dhoni)।

হতাশা কাটান ধোনি

"তোমার অভিষেকটা আমার চেয়ে ভালো ছিল", হতাশ গিলকে সান্তনা দিয়েছিলেন MS ধোনি !! 4

শুভমান গিল এবিষয়ে মন্তব্য করে বলেন, “যেদিন আমি অভিষেক করেছিলাম, আমি বাইরে বসে ছিলাম এবং অভিষেকে মাত্র ৯ রান করতে পেরে খুবই দুঃখিত ছিলাম। তারপর মাহি ভাই (এম এস ধোনি) এসে দেখলেন আমার খুব মন খারাপ। তখন তিনি আমাকে বলেন চিন্তার কোনো কারণ নেই যাই অন্তত আমার থেকে তো ভালো খেলেছো। তখন আমি মনে করি যে ধোনি ভাই প্রথম ম্যাচেই গোল্ডেন ডাক হয়েছিলেন। তারপর আমি আবার আমার স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসি। “

Leave a comment

Your email address will not be published.