অদম্য জগদীশন’কে নাকি ছেঁটে ফেলেছে CSK? ক্ষুব্ধ নেটিজেন’রা ফুঁসে উঠলেন MS ধোনিদের বিরুদ্ধে !! 1

বিজয় হাজারে ট্রফিতে বারবার খবরেরে শিরোনামে উঠে আসছেন তামিলনাড়ুর নারায়ণ জগদীশন(N Jagadeesan)। গতকাল অরুণাচল প্রদেশের বিরুদ্ধে তিনি একদিনের ম্যাচে করেছেন ২৭৭। তামিলনাড়ু জিতেছে বিপুল ব্যবধানে। ক্রিকেটমহলে বন্দিত হচ্ছেন তামিলনাড়ু ওপেনার। তবে তারই মধ্যে কাঁটার মত বিঁধছে তাঁর প্রতি চেন্নাই সুপার কিংসের(CSK) ব্যবহার। এগিয়ে আসছে ২০২৩ আইপিএল। কোটিপতি লীগের ১৬তম মরসুমের আগে এখন দল গোছাতে ব্যস্ত সব ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলি। ২৩ ডিসেম্বর কেরালার কোচিতে হতে চলেছে মিনি অকশন। তার আগে ১৫ নভেম্বর ভারতের ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থা বিসিসিআই’কে চিঠি দিয়ে দলগুলিকে জানাতে হত কোন খেলোয়াড়দের ধরে রাখতে চাইছে তারা, আর কাদের পাঠাতে চাইছে নিলামের অনিশ্চিত সরণী’তে। প্রতিভাবান ওপেনার জগদীশন’কে ধরে রাখে নি মহেন্দ্র সিং ধোনি’র দল। বিজয় হাজারে ট্রফিতে তাঁর ফর্ম দেখে এই সিদ্ধান্তের মাথামুন্ডু বুঝতে পারছেন না নেটজেন’রা। ক্ষুব্ধ ক্রিকেটসমর্থক’রা ট্যুইটারে উগড়ে দিয়েছেন তাঁদের হতাশা।

স্বপ্নের ফর্মে জগদীশন, ট্রলের মুখে চেন্নাই দল-

N Jagadeesan | image: twitter
Tamil Nadu’s N Jagadeesan scored 277 off 141 against Arunachal.

তামিলনাড়ুর জগদীশনের(N Jagadeesan) বর্তমান ফর্ম’কে বাস্তব না বলে স্বপ্ন বলাই ভালো। এখনও অব্দি চলতি বিজয় হাজারে ট্রফিতে তিনি খেলেছেন ৬ টি ম্যাচ। প্রথম ম্যাচে করেছিলেন ৬ বলে ৫ রান। বাকি প্রতিটি ম্যাচেই তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে শতরান। আগের চার ম্যাচে তাঁর রান সংখ্যা ছিলো যথাক্রমে ১১৪*, ১০৭, ১৬৮ এবং ১২৮। আর গতকাল অরুণাচলের বিপক্ষে তিনি সব রেকর্ড ভেঙে ১৪১ বলে করে বসেছেন ২৭৭ রান। তাঁর বিরাট ইনিংসে ছিলো ২৫ টি চার এবং ১৫ টি ছক্কা। তামিলনাড়ুর দুই ওপেনার জগদীশন(N Jagadeesan) এবং সাই সুদর্শনের বড় রানের ভিত্তিতে ৫০৬ রানের বিরাট স্কোর বোর্ডে তুলে দেয় তারা। জবাবে ৭১ রানেই গুটিয়ে যায় অরুণাচল। ৪৩৫ রানে তামিলনাড়ু ম্যাচ জেতে, সাথে সাথে প্রথম শ্রেণি’র একদিনের ম্যাচে সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়ের বিশ্বরেকর্ড নিজেদের নামে করে নেয়। সব আলোচনা ছাপিয়ে বারবার ফিরে আসছে জগদীশনের(N Jagadeesan) মত স্থানীয় প্রতিভার ওপর চেন্নাই দলের ভরসা না রাখতে পারার কথা। ৫ বছর সিএসকে দলের সদস্য ছিলেন জগদীশন, তাঁকে তেমন সুযোগ’ই দেওয়া হয় নি। চেন্নাই অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি সম্পর্কে বলা হয় তিনি প্রতিভা চিনতে ভুল করেন না। তবে কি তাঁর জহুরী’র চোখ ধরতে পারে নি জগদীশনের দক্ষতা’কে? না হলে এমন আজব সিদ্ধান্তের কারণ কি? জগদীশনের ২৭৭ রানের ইনিংসের পর উত্তর খুঁজছে ট্যুইটার। দেখে নিন ট্যুইটচিত্র-

Leave a comment

Your email address will not be published.