দয়া-দাক্ষিণ্যের জেরে ভারত জিতেছিল ২০১১ বিশ্বকাপ! বিস্ফোরক মন্তব্য শোয়েব আখতারের 1

২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালে শ্রীলঙ্কাকে (Sri Lanka) পরাজিত করার পর, ভারত (India) দীর্ঘ ২৮ বছর পর ওডিআই বিশ্বকাপের ট্রফি জিতেছিল। যা নিয়ে শুধু ভারতীয় খেলোয়াড়রা নয়, গোটা দেশ এই ঐতিহাসিক জয়ে উচ্ছ্বসিত হয়। তবে এ নিয়ে বিবৃতি দিয়ে আবারও আক্রমণের মুখে পড়েছেন পাকিস্তানের অভিজ্ঞ তারকা শোয়েব আখতার (Shoaib Akhtar)। যদি তার বক্তব্য বিশ্বাস করা হয়, ভারত তাদের দয়ায় ২০১১ বিশ্বকাপ জিতেছিল। এ বিষয়ে তিনি যে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন তা হয়ত ভারতীয় ভক্তদের পছন্দ হবে না।

ভারত ২০১১ সালের বিশ্ব জিততে পারত না যদি…

দয়া-দাক্ষিণ্যের জেরে ভারত জিতেছিল ২০১১ বিশ্বকাপ! বিস্ফোরক মন্তব্য শোয়েব আখতারের 2

আসলে, প্রাক্তন পাকিস্তান ক্রিকেটার শোয়েব আখতার বিশ্বাস করেন যে ভারত এই বিশ্বকাপ জিততে পারত না যদি তার দল তাকে সেমি ফাইনালে টিম ইন্ডিয়ার বিপক্ষে খেলার সুযোগ দিত। আসলে, এমএস ধোনির অধিনায়কত্বে ভারতীয় দল কোটি কোটি ভক্তের সামনে ট্রফি তুলেছিলেন। কিন্তু, সেমি ফাইনালে পৌঁছেও শিরোপা জয় থেকে বঞ্চিত ছিল পাকিস্তান দল। পাকিস্তানের দল মোহালিতে সেমি ফাইনালে পৌঁছেছিল এবং এখানে তারা টিম ইন্ডিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল। যার মুখোমুখি হতে হয়েছে পাক দলকে। এ বিষয়ে শোয়েব আখতার বলেন, আজও এই পরাজয় তাকে কষ্ট দিচ্ছে। সেই সময় দলের অভিজ্ঞ বোলার হওয়ার পরও মোহালিতে অনুষ্ঠিতব্য সেমি ফাইনালের আগে শোয়েব আখতারকে আনফিট ঘোষণা করা হয়। এরপর তিনিও খুব দুঃখ পেয়েছিলেন এবং সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে খোলাখুলি প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন।

মোহালির স্মৃতি আজও আমাকে তাড়া করে

দয়া-দাক্ষিণ্যের জেরে ভারত জিতেছিল ২০১১ বিশ্বকাপ! বিস্ফোরক মন্তব্য শোয়েব আখতারের 3

২০১১ সালে শোয়েব আখতার তার প্রতি অবিচারের কথা বলতে গিয়ে বলেছিলেন, “মোহালির স্মৃতি এখনও আমাকে তাড়া করে। সেই ২০১১ বিশ্বকাপের সেমি ফাইনাল। আমাকে দলে অন্তর্ভুক্ত করা উচিত ছিল, তাদের উচিত ছিল। টিম ম্যানেজমেন্টের পক্ষ থেকে এটি সম্পূর্ণ ভুল ছিল। আমি জানতাম আমার আর মাত্র দুটি ম্যাচ বাকি আছে এবং এটা আমার ইচ্ছা ছিল যে ওয়াংখেড়েতে পাকিস্তানের পতাকা উঁচুতে থাকুক এবং আমরা ফাইনাল খেলি। আমি জানতাম ভারত প্রচণ্ড চাপের মধ্যে ছিল। দলের দিকে তাকিয়ে ছিল গোটা দেশ ও মিডিয়া। সে কারণেই আমি বিশ্বাস করি যে আমাদের চাপ নেওয়া উচিত হয়নি।”

Read More: জ্ঞান দিও না! বিরাট কোহলি করলেন এমন কাজ, রেগে গেলেন বড় ভাই! দিলেন এই কড়া জবাব

এ প্রসঙ্গে আরও কথা বলতে গিয়ে শোয়েব আখতার বলেন, “তারা আমাকে বলেছিলেন যে আমি অনুপযুক্ত। কিন্তু আমি ভিতরে গিয়েছিলাম এবং অনুশীলনের সময় টানা ৮ ওভার বল করেছিলাম। আমি যদি ম্যাচ খেলতাম, ফলাফল যাই হোক না কেন, আমি শচীন ও সেহওয়াগকে আউট করতাম। শচীন ও সেহওয়াগ তাড়াতাড়ি আউট হলে ভারতের দল তাসের ঘরের মত ভাঙত। আমি খুব দুঃখিত ছিলাম। আমি ৫-৬ ঘন্টা ম্যাচ দেখেছি এবং পাকিস্তানকে ডাগ আউটে হারতে দেখেছি। আমি এমন ব্যক্তি নই যে কাঁদে কিন্তু, আমি এমন একজন ব্যক্তি যে জিনিসপত্র ভেঙে দেয় এবং আমি ড্রেসিংরুমে কিছু জিনিস ভেঙে দিয়েছিলাম কারণ আমি খুব দুঃখিত, হতাশ এবং ক্রুদ্ধ ছিলাম এবং পুরো দেশও তাই ছিল। আমি জানতাম প্রথম ১০ ওভারই গুরুত্বপূর্ণ ছিল।”

Leave a comment

Your email address will not be published.