আইপিএল ২০১৮: আজ অনুষ্কার জন্মদিন, ওর উপস্থিতিতে এই পারফর্মেন্স জরুরী ছিল: বিরাট

শেষপর্যন্ত জয়ের রাস্তায় ফিরল আরসিবি। ঘরের মাঠে দুরন্ত অলরাউন্ডার পারফর্মেন্স করে মুম্বাইয়ের বিরুদ্ধে তারা মাত্র ১৬৭ রান ডিফেন্ড করতে সক্ষম হল। এতদিনের হার সত্ত্বেও এদিনের ম্যাচে দর্শকরা ঘরের মাঠে ছিলেন দলের পাশেই। শেষ পর্যন্ত তাদের মুখে হাসি ফোটালেন কোহলি অ্যান্ড কোং। কোহলির দলকে ১৬৭ রানে আটকে দিয়ে মুম্বাই ভেবেছিল এই ম্যাচ তারা মুঠোয় পুরে ফেলেছে। কিন্তু বিরাট কোহলির দলের মনোভাব অন্য কিছু ছিল। নিজেদের রান থেকে মাত্র ১৪ রান দূরেই তারা থামিয়ে দেয় মুম্বাইকে। এই ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট ছিল ব্যাঙ্গালোরের ইনিংসের শেষ দুই ওভার। ১৮ তম ওভারে পরপর তিন উইকেট নিয়ে আরসিবির রান তোলার গতি ধীরে করে দেন হার্দিক পাণ্ডিয়া। এক সময় তিনি হ্যাটট্রিকের মুখেও দাঁড়িয়ে ছিলেন। কিন্তু ২০ তম ওভারে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম ২৪ রান তুলে নেন।
আইপিএল ২০১৮: আজ অনুষ্কার জন্মদিন, ওর উপস্থিতিতে এই পারফর্মেন্স জরুরী ছিল: বিরাট 1
মুম্বাই ইনিংসের ১৯ তম ওভারেও তাদের জয়ের জন্য ঠিক ওই রানটাই দরকার ছিল। তিনি ততক্ষণে তাদের সমস্ত ম্যাচ উইনাররাই ফিরে গিয়েছেন প্যাভিলিয়নে। ব্যাঙ্গালোরের তরফ এই ম্যাচের মাস্টারস্টোক ছিল মনন ভোরাকে ওপেনিংয়ে নামানো। অন্যদিকে মুম্বাই অধিনায়কের ভুল হয় ম্যাকলেনাঘনকে শেষ ওভারে বল করতে ডাকা। এই ম্যাচেও মুম্বাইয়ের ব্যাটিং তাসের ঘরের মত ভেঙে পড়ে। স্কোরবোর্ডে খুব বেশি রান না থাকা সত্ত্বেও উমেশ যাদবের প্রথম স্পেলই এই ম্যাচের নির্নায়ক প্রমানিত হয়। উমেশ নতুন বল হাতে সেরা ফর্মে থাকার পাশাপাশি ডি গ্র্যান্ডহোম, মহম্মদ সিরাজ, যজুবেন্দ্র চহেল এবং টিম সাউদিও ছিলেন বল হাতে দুরন্ত। মুম্বাইয়ের তরফে একমাত্র হার্দিক পান্ডিয়া হাফ সেঞ্চুরি করেন। এই ম্যাচে মুম্বাই হারের মুখোমুখি হওয়ায় মনে করা হচ্ছে প্লে অফের বাইরে চলে গেল তারা। সেই সঙ্গে কোহলি বাহিনী তাদের প্লে অফের আশাও জিইয়ে রাখলেন।
আইপিএল ২০১৮: আজ অনুষ্কার জন্মদিন, ওর উপস্থিতিতে এই পারফর্মেন্স জরুরী ছিল: বিরাট 2
ম্যাচ শেষে আরসিবি অধিনায়ক বিরাট কোহলি বলেন, “ আমাদের এই জয়টার প্রয়োজন ছিল। খুবই গুরুত্বপূর্ণ জয়। আজকের রাত উৎসবের, আমাদের ওই দু পয়েন্ট দরকার ছিল। আমাদের সম্ভবত অনেক কিছু নিয়েই কথা বলার আছে। নিজেদের ফিল্ডগুলো নিয়ে। ওদের কনফিউজ করার জন্য, খুব বেশি সাহায্য করবে না। প্রত্যেকেই খুব ভাল বল করেছে। উমেশের ওভার। কলিনের ওভার এবং ওর ব্যাট হাতে ইনিংস। মনন ওদের হাত থেকে ম্যাচ ছিনিয়ে নিয়েছে। আমাদের প্রভাবশালী পারফর্মেন্সের দরকার ছিল। আমাদের কাছ সঠিক অভিপ্রায় ছিল, ফলাফলকে দূরে সরিয়ে রাখলেও। আমাদের এই আত্মবিশ্বাসকেই এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আমার স্ত্রী এখানে রয়েছে এবং আজ ওর জন্মদিন। ওর সামনে এই দু পয়েন্ট তুলে নেওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল”।
আইপিএল ২০১৮: আজ অনুষ্কার জন্মদিন, ওর উপস্থিতিতে এই পারফর্মেন্স জরুরী ছিল: বিরাট 3

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *