INDvsENG: ভারতের জয়ে অখুশি যুবরাজ সিং, বলে দিলেন এমনকিছু…

পিঙ্ক বল টেস্টে ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানরা যেভাবে ভারতীয় বোলারদের সামনে আত্মসমর্পণ করেছেন, তাতে সকলের মনেই প্রশ্ন উঠে পড়েছে। বেশকিছু ক্রিকেট দিগগজ মোতেরার পিচকে আদর্শ মনে করেননি। ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার যুবরাজ সিং যথেষ্ট অখুশি। শুধু তাই নয়, হরভজন সিং, ভিভিএস লক্ষ্মণ আর মাইকেল ভনও পিচ নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন। সকলের বক্তব্য যে এই পিচ টেস্ট ম্যাচের উপযুক্ত নয়। ইংলিশ মিডিয়াও এই ব্যাপারে ইন্ধন জুগিয়েছে। অন্যদিকে মহান ব্যাটসম্যান সুনীল গাভাস্কার পিচের জায়গায় খারাপ ব্যাটিংকে দোষ দিয়েছেন।

কুম্বলের ১০০০ আর ভাজ্জির ৮০০ উইকেট হত

INDvsENG: ভারতের জয়ে অখুশি যুবরাজ সিং, বলে দিলেন এমন কিছু… 1

ভারত আর ইংল্যান্ডের মধ্যে খেলা হওয়া তৃতীয় টেস্টে ভারত ১০ উইকেটে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে জয়লাভ করে। এই ম্যাচে মোট ৩০টি উইকেট পড়েছে। তাও মাত্র দুদিনে। উইকেট পড়ার কথা বলা হয়ে টেস্টের প্রথম দিন ১৩টি আর দ্বিতীয় দিন ১৭টি উইকেট পরেছে। আর ৩০টির মধ্যে স্পিনাররাই পেয়েছেন ২৮টি উইকেট। অন্যদিকে জোরে বোলারদের ঝুলিতে গিয়েছে মাত্র ২টিই উইকেট।

ভারতের প্রাক্তন অলরাউন্ডার যুবরাজ সিংও এই ব্যাপারে যথেষ্ট সমালোচনা করেহেন। যদিও তিনি ভারতীয় বোলারদের প্রশংসাও করেছেন। কিন্তু এটাও বলেছেন যে যদি এমন পিচ অনিল কুম্বলে আর হরভজন সিং পেতেন তো আজ তাদের উইকেট সংখ্যা অনেক বেশি হত। যুবরাজ টুইট করে লেখেন, “ম্যাচ দু’দিনেই শেহশ হয়ে গিয়েছে, নিশ্চিতভাবে বলতে পারব না যে এই টেস্ট ক্রিকেটের জন্য ভাল। যদি অনিল কুম্বলে আর হরভজন সিং এই ধরণের উইকেটে বল করতেন তো তাদের নামে ১০০০ আর ৮০০ উইকেট নথিভুক্ত হত। তাও অক্ষরের কী অসাধারণ স্পেল ছিল, শুভেচ্ছা, অশ্বিন, ঈশান্তকেও শুভেচ্ছা”।

মাইকেল ভনও করেছিলেন সমালোচনা

INDvsENG: ভারতের জয়ে অখুশি যুবরাজ সিং, বলে দিলেন এমন কিছু… 2

অন্যদিকে যুবরাজের এই বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়েছেন হরভজন সিংও। টেস্টে ৪০০ উইকেট নেওয়া হরভজন বলেছেন যে, “এটা আদর্শ পিচ ছিল না। যদি ইংল্যান্ড নিজেদের প্রথম ইনিংসে ২০০ রান করে ফেলত তো ভারও সংকটে পড়ে যেত। কিন্তু দুই দলের জন্য পিচ সমান ছিল”।

অন্যদিকে ইংল্যান্ডের প্রকাতন অধিনায়ক মাইকেল ভন এটা পর্যন্ত বলে দিয়েছিলেন যে, “যদি এই ধরণের পিচ তৈরি করা হয় তো আমার কাছে জবাব হল এটা কীভাবে কাজ করতে পারে। দলগুলিকে তিনটে করে ইনিংস খেলতে দেওয়া হোক”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *