ঋষভ পন্থকে নেতৃত্ব দিয়ে বড় ভুল করেছেন নির্বাচকরা! এই তারকাকে অধিনায়কত্ব দিলে বিশ্বরেকর্ড গড়ত ভারত 1

দক্ষিণ আফ্রিকার (South Africa) বিপক্ষে সিরিজে অনেক অভিজ্ঞ খেলোয়াড়কে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। এই কারণে, কেএল রাহুলের (KL Rahul) হাতে দলের কমান্ড হস্তান্তর করা হয়েছিল, তবে তিনি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের ঠিক আগে চোট পেয়েছিলেন এবং বাইরে থাকতে হয়েছিল। এ কারণে বিসিসিআই (BCCI) তড়িঘড়ি করে ঋষভ পন্থকে (Rishabh Pant) অধিনায়ক করলেও তার নেতৃত্বে ভারতীয় দলকে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে শোচনীয় পরাজয়ের মুখে পড়তে হয়। এখন তার অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন চিহ্ন উঠছে।

পন্থকে নিয়ে চরম সমালোচনা! আইপিএলে খারাপ পারফরম্যান্স

Rishabh Pant

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে অধিনায়ক ঋষভ পন্থ খুব বাজে ভাবে অধিনায়কত্ব করেছিলেন। বোলিংয়ে ঠিক মতো পরিবর্তন আনতে পারেননি তিনি। তিনি যুজবেন্দ্র চাহালের কাছ থেকে মাত্র দুটি ওভার পেয়েছেন, যিনি আইপিএল ২০২২-এ ভাল পারফর্ম করেছিলেন। একই সঙ্গে ফিল্ডিং সাজাতে গিয়েও স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেননি তিনি। অধিনায়ক হিসেবে কোনো প্রভাব ফেলতে পারেননি পন্থ। অধিনায়কত্ব করার সময় তাকে চাপের মধ্যে দেখা গেছে। ভারত দক্ষিণ আফ্রিকাকে জিততে ২১২ রানের টার্গেট দিয়েছিল, কিন্তু তারপরও এই স্কোর বাঁচাতে পারেনি টিম ইন্ডিয়া। ঋষভ পন্থের নেতৃত্বে, দিল্লি ক্যাপিটালস আইপিএল ২০২২-এ খুব খারাপ পারফরম্যান্স করেছিল। দিল্লি ক্যাপিটালস ১৪টি ম্যাচের মধ্যে মাত্র ৭টি ম্যাচ জিততে পারে এবং প্লে অফে পৌঁছাতে পারেনি। রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে ম্যাচে তাকে মাঠের বাইরে তার খেলোয়াড়দের খেলা ছাড়ার নির্দেশ দিতে দেখা গেছে। ব্যাট হাতে বাজেভাবে ফ্লপ করেন পন্থ। তা সত্ত্বেও, টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক হিসেবে নির্বাচকরা অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের উপেক্ষা করে অধিনায়কত্বের জন্য পন্থকে বেছে নেন।

এই খেলোয়াড়ের অধিনায়কত্ব পাওয়া উচিত ছিল

Hardik Pandya

ঋষভ পন্থের জায়গায় হার্দিক পান্ডিয়াকে টিম ইন্ডিয়ার অধিনায়ক করা হলে গল্পটা অন্যরকম হতে পারত, কারণ হার্দিকের নেতৃত্বে গুজরাট টাইটান্স আইপিএল ২০২২ শিরোপা জিতেছিল। একই সময়ে, হার্দিক পান্ডিয়া খুব সংযতভাবে অধিনায়কত্ব করেছেন। হার্দিক পান্ডিয়াও ডিআরএস নেওয়ার ওস্তাদ হয়ে উঠেছেন। বল ও ব্যাট হাতে দলের জয়ে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। হার্দিক দলের সেরা স্কোরার ছিলেন, আইপিএল ২০২২-এ ৪৮৭ রান করেছিলেন এবং তিনি ৮ উইকেটও নিয়েছিলেন। টিম ইন্ডিয়া যদি দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ম্যাচ জিতত, তাহলে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে টানা ১৩টি ম্যাচ জেতার দল হয়ে উঠত, কিন্তু তা হতে পারেনি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ভারতীয় বোলাররা খুব খারাপ পারফর্ম করেছে। প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানরা তাদের বিরুদ্ধে দাপটে খেলে। বোলারদের কারণেই হারের মুখে পড়তে হয়েছে টিম ইন্ডিয়াকে। তাই, টিম ইন্ডিয়া ২১২ রান করলেও ভারত হেরে গেল।

Read More: দ্বিতীয় টি-২০ তেও সুযোগ পাবেন না উমরান মালিক, বরং এই তরুণ বোলার জায়গা দেওয়ার দাবি ওয়াসিম জাফরের

Leave a comment

Your email address will not be published.