Shikhar Dhawan

অভিজ্ঞ ভারতীয় ব্যাটসম্যান শিখর ধাওয়ান (Shikhar Dhawan) ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (IPL 2022) শেষ মরশুমে ভালো পারফরমেন্স উপহার দিয়েছেন। তা সত্ত্বেও জাতীয় দলে জায়গা করে নিতে হিমশিম খাচ্ছেন তিনি। ভারতীয় দল দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজের জন্য কয়েকজন সিনিয়র খেলোয়াড়কে বিশ্রাম দিয়েছিল। এর মধ্যে বিরাট কোহলি, জাসপ্রিত বুমরাহ এবং রোহিত শর্মা রয়েছে। এটি দলের কিছু তরুণ খেলোয়াড়ের জন্য দরজা খুলে দিয়েছিল। কিন্তু ধাওয়ানকে টিমের বাইরেই রাখা হয়।

ধাওয়ানকে নিয়ে এই কথা জানালেন গাভাস্কর

Shikhar Dhawan

এখন মনে হচ্ছে, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে টি-২০ বিশ্বকাপেও দলে জায়গা পাওয়া শিখর ধাওয়ানের পক্ষে কঠিন। আর তেমনটাই ইঙ্গিত দিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে চলা বিশ্বকাপে ভারতীয় দলে ধাওয়ানকে দেখছেন না প্রাক্তন ব্যাটিং গ্রেট সুনীল গাভাস্করও। তিনি স্টার স্পোর্টসকে বলেন, “আমি মনে করি না তার (ধাওয়ান) নাম বিবেচনা করা হচ্ছে। তাকে সুযোগ দেওয়ার কথা থাকলে তিনি এই দলে (দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ) থাকতেন।”

গাভাস্কার আরও বলেছেন, “অনেক খেলোয়াড় ইংল্যান্ডে গিয়েছেন এবং তিনি (ধাওয়ান) এই দলে থাকতে পারতেন। যদি সে এই দলে না থাকে, তাহলে টি-২০ বিশ্বকাপের জন্য নির্বাচিত দলেও তাকে দেখতে পাবো না।” ৩৬ বছর বয়সী ধাওয়ান IPL-2022-এ পাঞ্জাব কিংসের হয়ে ১৪ ম্যাচে ১২২.৬৬ স্ট্রাইক রেটে ৪৬০ রান করেন। তবে তিনি সীমিত ওভারের ক্রিকেটের জন্য ভারতীয় দলে কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখোমুখি হয়েছেন এবং তার নির্বাচিত হওয়ার সম্ভাবনা ক্ষীণ। তিনি শেষবার ভারতের হয়ে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে টি-২০ ম্যাচ খেলেছিলেন জুলাই-২০২১ সালে।

দলের তৃতীয় ওপেনার এখন ইশান কিষাণ

Shikhar Dhawan কি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুযোগ পাবেন? জেনে নিন কী বললেন অভিজ্ঞ সুনীল গাভাস্কার 1

শিখর ধাওয়ান তার কেরিয়ারে এখন পর্যন্ত ৬৮টি টি-২০ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন এবং ২৭.৯২ গড়ে এবং১২৬.৩৬ স্ট্রাইক রেটে মোট ১৭৫৯ রান করেছেন। গাভাস্কর বিশ্বাস করেন যে রোহিত শর্মা এবং কেএল রাহুল টি-২০ বিশ্বকাপে ওপেনিংয়ের দায়িত্ব নেবেন। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজে ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে বিশ্রাম দেওয়া হলেও আসন্ন ইংল্যান্ড সফরের জন্য দলে ফিরেছেন। এদিকে চোটের কারণে সিরিজ মিস করেছেন কেএল রাহুল। এমন পরিস্থিতিতে ওপেন করে ভালো খেলা দেখালেন ইশান কিষাণ। সব মিলিয়ে এই দলে যে শিখর ধাওয়ানের আর কোন জায়গা নেই, তা ভালো করেই বুঝিয়ে দিয়েছেন জাতীয় নির্বাচকরা।

Leave a comment

Your email address will not be published.