‘ভারত যা বলবে তাই হবে’ Sahid Afridi ভারতকে কটাক্ষ করে বললেন এই বড় কথা

পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক শাহিদ আফ্রি সম্প্রতিই স্থানীয় মিডিয়া চ্যানেলে কথা বলতে গিয়ে ভারতীয় দলেকে নিয়ে বড় দাবি করেছে, সেই সঙ্গে তিনি এউ বলেছেন যে বিশ্ব ক্রিকেটে ভারতের কর্তৃত্ব রয়েছে। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগ আর সম্প্রতি ঘোষিত হওয়া আগামী মরশুমে এর আড়াই মাসের উইন্ডোর ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে টি-২০ বিশ্বকাপ জয়ী খেলোয়াড় শাহিদ আফ্রিদি বলেছেন ভারত এটা করতে সিদ্ধহস্ত।

ভারতীয় দলকে নিয়ে বড় দাবি শাহিদ আফ্রিদির

‘ভারত যা বলবে তাই হবে’ Sahid Afridi ভারতকে কটাক্ষ করে বললেন এই বড় কথা 1

প্রতিবেশী রাষ্ট্রের প্রাক্তন অধিনায়ক শাহিদ আফ্রিদি দাবি করেছেন যে বিশ্ব ক্রিকেটে ভারতের কর্তৃত্ব রয়েছে। একটি স্থানীয় মিডিয়া চ্যানেলের হয়ে কথা বলতে গিয়ে তিনি এর পেছনের কারণ সম্পর্কেও জানিয়েছেন। আফ্রিদির বক্তব্য, ‘ভারত সবচেয়ে বড় ক্রিকেটের বাজার’। আফ্রিদি বলেন,

“এই বিষয়গুলি বাজার আর অর্থ ব্যবস্থার উপর নির্ভর করে। সবচেয়ে বড় (ক্রিকেট) বাজার ভারত। ওরা যা বলবে তাই হবে”।

কিছুদিন আগেই বিসিসিআই সচিব জয় শাহ নিশ্চিত করেছিলেন যে আগামী বছর থেকে আইসিসির ফিউচার টুর প্রোগ্রামে আইপিএলের জন্য আড়াই মাসের আলাদা উইন্ডোর ব্যবস্থা করা হবে। জয় শাহের এই বয়ান পাকিস্তানকে সম্পূর্ণ নাড়িয়ে দিয়েছিল কারণ দুই দেশের মধ্যে রাজনৈতিক টানাপোড়েন থাকার কারণে পাকিস্তানী খেলোয়াড়রা আইপিএলে অংশ নিতে পারেন না।

দুই বছর আগে শাহিদ আফ্রিদি আইপিএল নিয়ে দিয়েছিলেন বড় বয়ান

‘ভারত যা বলবে তাই হবে’ Sahid Afridi ভারতকে কটাক্ষ করে বললেন এই বড় কথা 2

ভারতকে নিয়ে পাকিস্তানের ক্ষুব্ধ হওয়া স্বাভাবিক কারণ যদি আইপিএল আইসিসির এফটিপি ক্যালেন্ডারে আলাদা উইন্ডো পায় তাহলে তা পাকিস্তান ক্রিকেটকেও প্রভাবিত করবে। এর কারণে পাকিস্তান সেই সময় আন্তর্জাতিক ম্যাচ ঘরের মাঠে খেলতে পারবে না বা তারা অন্য দেশের সফরও করতে পারবে না।

প্রসঙ্গত, দু বছর আগে আফ্রিদি আইপিএলকে বড় ব্রান্ড বলেছিলেন আর খোলসা করেছিলেন যে বাবর আজম সহ পাকিস্তানের অন্য খেলোয়াড়রাও এই লীগে খেলতে চান। আইপিএল নিয়ে পাকিস্তান থেকে আসা বয়ানগুলো শুনে এটা বলা ভুল হবে না যে পাকিস্তানী খেলোয়াড়রা এই আশায় বসে আছেন যে কখন এই দুই দেশের মধ্যে রাজনৈতিক সম্পর্ক শুধরোবে আর কবে তারা আইপিএলে খেলতে পারবেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.