মারা গেলেন প্রাক্তন আম্পায়ার রুডি কার্টজেন, এই মারাত্মক জিনিসটি মনে করিয়ে দিলেন বীরেন্দ্র সেহওয়াগ ! 1

মঙ্গলবার বড়সড় ধাক্কা খেয়েছে ক্রিকেট বিশ্ব। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন আন্তর্জাতিক আম্পায়ার রুডি কার্টজেন গাড়ি দুর্ঘটনায় মারা গেছেন। রুডি কার্টজেনের বয়স হয়েছিল প্রায় ৭৩ বছর। দেশ ও বিশ্বের প্রবীণ ক্রিকেটাররা তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন এবং তার আত্মার শান্তি কামনা করেছেন। ভারতের প্রাক্তন ওপেনার বীরেন্দ্র সেহওয়াগও তার মৃত্যুতে একটি টুইট করেছেন এবং শোক প্রকাশ করেছেন। রুডি কার্টজেন স্ত্রী ও চার সন্তান রেখে গেছেন।

বিশ্বের অন্যতম সম্মানিত আম্পায়ারদের একজন

রুডি কার্টজেনকে ১৯৯০ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম সম্মানিত আম্পায়ার হিসেবে বিবেচনা করা হয়। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ৪০০টিরও বেশি ম্যাচে তিনি দায়িত্ব পালন করেছেন। মঙ্গলবার সকালে রিভারডেলের কাছে একটি মুখোমুখি গাড়ি সংঘর্ষে প্রাক্তন আম্পায়ার রুডি কার্টজেন এবং অন্য তিনজন নিহত হয়েছেন। রুডি কার্টজেন সপ্তাহান্তে গলফ খেলে কেপটাউন থেকে নেলসন ম্যান্ডেলা বেতে বাড়ি ফিরছিলেন। প্রাক্তন আম্পায়ারের ছেলে জুনিয়র রুডি কার্টজেন খবরটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, “তিনি কয়েকজন বন্ধুর সঙ্গে গলফ প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে গিয়েছিলেন। সোমবার তার ফিরে আসার কথা থাকলেও, আবারও অন্য রাউন্ডের ম্যাচ খেলার সিদ্ধান্ত নেন।”

রুডি কার্টজেনের দুর্দান্ত কেরিয়ার মারা গেলেন প্রাক্তন আম্পায়ার রুডি কার্টজেন, এই মারাত্মক জিনিসটি মনে করিয়ে দিলেন বীরেন্দ্র সেহওয়াগ ! 2

কার্টজেন ২০০২ সালে আইসিসির এলিট প্যানেলের আম্পায়ার হন এবং আট বছর সেই দায়িত্বে ছিলেন। তিনি তার মেয়াদে ৩৯৭ ম্যাচে মাঠের এবং তৃতীয় আম্পায়ারের ভূমিকা পালন করেন। তিনি ১২৮টি টেস্ট, রেকর্ড ২৫০টি ওয়ানডে এবং ১৯টি টি-টোয়েন্টি আন্তর্জাতিকে দায়িত্ব পালন করেছেন। এই সময়ে তিনি বিতর্কেও জড়িয়েছিলেন। এছাড়াও তিনি নিয়মের ভুল ব্যাখ্যা করে অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কার মধ্যে ২০০৭ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচটি কম আলোতে চালিয়ে যান। এরপর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম মরশুমে তাকে আম্পায়ার হিসেবে নিয়োগ করেনি আইসিসি।

রুডি কার্টজেনের মৃত্যুতে বীরেন্দ্র সেহওয়াগ লিখেছেন যে তাঁর পরিবারের প্রতি সমবেদনা। প্রাক্তন ওপেনার আরও লিখেছেন যে তাঁর সাথে খুব ভাল সম্পর্ক ছিল। তিনি লেখেন, “আমি যখনই দ্রুত শট খেলতাম, তিনি আমাকে ধমক দিয়ে বলতেন, স্মার্ট খেলো, আমি তোমার ব্যাটিং দেখতে চাই।” সেহওগায় যোগ করেন, “তিনি তার ছেলের জন্য একটি নির্দিষ্ট ব্র্যান্ডের ক্রিকেট প্যাড কিনতে চেয়েছিলেন এবং আমাকে এটি সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করেছিলেন। আমি তাকে সেটাই উপহার দিয়েছিলাম এবং সে খুব কৃতজ্ঞ ছিল। একজন ভদ্রলোক এবং খুব চমৎকার মানুষ। রুডি তোমাকে মিস করবে। ওম শান্তি।”

Leave a comment

Your email address will not be published.