PAK vs NZ: পাকিস্তানের কাছে হারার পর বিষ্ফোরক উইলিয়ামসন, এর ওপরই চাপালেন হারের যাবতীয় দোষ !! 1

PAK vs NZ: টি-২০ ক্রিকেটের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান বলা বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ানকে। তবে বিশ্বকাপের শুরু থেকে নিজেদের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারছিলেন না। অবশেষে বাবর ও রিজওয়ান সেমিফাইনালের মতোর গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে জ্বলে উঠলেন একসঙ্গে। তাদের ব্যাটে ভর করেই নিউজিল্যান্ডকে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছে গেল পাকিস্তান। বুধবার বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফইনালে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে খেলে দুটি দল। এ দিন, প্রথমে ব্যাট করতে নামা নিউজিল্যান্ড ড্যারিল মিচেলের হাফসেঞ্চুরি ও কেন উইলিয়ামসনের ব্যাটে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৫২ রান করে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেট হারিয়ে ও ৫ বল বাকি থাকতে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় পাকিস্তান।

বাবর-রিজওয়ানের ব্যাটেই জয় পায় পাকিস্তান

PAK vs NZ: পাকিস্তানের কাছে হারার পর বিষ্ফোরক উইলিয়ামসন, এর ওপরই চাপালেন হারের যাবতীয় দোষ !! 2

১৫৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে পাকিস্তান। ওপেনিং জুটিতেই ১২.৪ ওভারে ১০৫ রান তোলেন বাবর ও রিজওয়ান। চলতি টুর্নামেন্টে খারাপ ফর্মে থাকা বাবর অবশেষে রানের দেখা পান। ৪০ বলে হাফসেঞ্চুরি করা এই ব্যাটার শেষ পর্যন্ত ৫৩ রানে বিদায় নেন। ৪২ বলে ৭টি চার হাঁকিয়ে ট্রেন্ট বোল্টের বলে আউট হন। ১৩তম ওভারে তুলে মারতে গিয়ে ড্যারিল মিচেলকে ক্যাচ দেন। অন্যদিকে থাকা রিজওয়ান ৩৬ বলে হাফসেঞ্চুরির দেখা পান। বোল্টের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হওয়া এই তারকা ৪৩ বলে ৫টি চারে ৫৭ রানে মাঠ ছাড়েন। তবে মোহাম্মদ হারিস ২৬ বলে ২টি চার ও একটি ছক্কায় ৩০ করে প্রায় শেষ দিকে আউট হন।

হারার পর কী বললেন উইলিয়ামসন?

PAK vs NZ: পাকিস্তানের কাছে হারার পর বিষ্ফোরক উইলিয়ামসন, এর ওপরই চাপালেন হারের যাবতীয় দোষ !! 3

কিন্তু এদিন জয় পেতে কোন সমস্যা হয়নি পাকিস্তানের। কিউয়ি বোলার ট্রেন্ট বোল্ট ২টি ও মিচেল স্যান্টনার একটি উইকেট পান। ম্যাচের পর কেন উইলিয়ামসন বলেন, “আমরা প্রথম দিকে চাপে পড়েছিলাম। পাকিস্তান খুব সুন্দর বোলিং করেছে। আমরা মিচেলের একটি অবিশ্বাস্য ইনিংসের কারণে কিছুটা লড়াইয়ে ফিরে আসতে পেরেছিলাম। খেলার প্রথম পর্যায়ে এসে আমাদের মনে হয়েছিল এটা লড়াই করার মতো একটা স্কোর। উইকেট একটু শক্ত ছিল। তবে শেষে বোঝা যায় ম্যাচ জেতার জন্য এটা যথেষ্ট ছিল না। কোন সন্দেহ নেই, যোগ্য দল হিসেবেই জিতেছে পাকিস্তান।”

Leave a comment

Your email address will not be published.