রাহুল দ্রাবিড়ের এই ২২ বছরের শিষ্যকে বাবা পাঠাতে চেয়েছিলেন কানাডা, এখন আইপিএলে হয়ে উঠেছেন তারকা 1

আইপিএল ২০২১ এর চতুর্থ ম্যাচ চলাকালীন পাঞ্জাব কিংস আর রাজস্থান রয়্যালসের মধ্যে কড়া প্রতিদ্বন্দ্বীতা দেখতে পাওয়া গিয়েছে। পাঞ্জাব কিংসের অধিনায়ক কেএল রাহুল ৯ রানের ইনিংস খেলেন। অন্যদিকে দীপক হুড্ডা ৬৪ রনের ইনিংস খেলেন। রাজস্থান রয়্যালসের অধিনায়কের কথা বলা হলে সঞ্জু স্যামসন ১১৯ রানের ইনিংস খেলেন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি আলোচনা রাজস্থানের চেতন সাকারিয়া তথা পাঞ্জাবের অর্শ্বদীপ সিংকে নিয়ে হচ্ছে। অর্শ্বদীপকে ২০ লাখ টাকায় কেনা হয়েছিল। এই ম্যাচে অর্শ্বদীপ মাত্র ৩৩ রান করে তথা তিন উইকেটও নেন। শেষ ওভারে তিনি সঞ্জু স্যামসন আর ক্রিস মরসিককে ১৩ রান পূর্ণ করতে দেননি আর ৮ রান দিয়ে পাঞ্জাবকে ৪ রানে জয় এনে দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেন।

রাহুল দ্রাবিড়ের এই ২২ বছরের শিষ্যকে বাবা পাঠাতে চেয়েছিলেন কানাডা, এখন আইপিএলে হয়ে উঠেছেন তারকা 2

আইপিএল ২০১৯ চলাকালীন অর্শ্বদীপকে পাঞ্জাবের তরফ থেকে ২০ লাখ টাকায় কেনা হয়েছিল। এর মধ্যে তিনি বেশি খেলার সুযোগ পাননি। পাঞ্জাব কিংসের হয়ে অর্শ্বদীপের এটি তৃতীয় মরশুম। এর মধ্যে তিনটি ম্যাচ খেলে এখনও পর্যন্ত তিনি ৩টি উইকেট নিয়েছেন। আইপিএল ২০২০তে তিনি যথেষ্ট ভালো প্রদর্শন করেছেন। তিনি ৮টি ম্যাচ খেলে ৯টি উইকেট নেন। তিনি মনীষ পাণ্ডে, রোহিত শর্মা আর অ্যান্দ্রে রাসেলের মতো খেলোয়াড়দের উইকেট নিয়েছেন।

২০১৮য় হওয়া অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপেও তিনি ভারতীয় দলে ছিলেন। এর মধ্যে তাকে দুটি ম্যাচে খেলার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল। রাহুল দ্রাবিড়ের কোং তথা পৃথ্বী শয়ের অধিনায়কত্বে খেলে তিনি ৩টি উইকেট নিয়েছিলেন। ২২ বছরের এই খেলোয়াড় ক্রিকেট কেরিয়ার বিশেষ কিছুই ভালো যায়নি। তার বাবা তাকে পড়াশুনার জন্য বিদেশ পাঠাতে চেয়েছিলেন।

বাবার কাছে চেয়েছিলেন ১ বছরের সময়

রাহুল দ্রাবিড়ের এই ২২ বছরের শিষ্যকে বাবা পাঠাতে চেয়েছিলেন কানাডা, এখন আইপিএলে হয়ে উঠেছেন তারকা 3

অর্শ্বদীপের বড়ো ভাই কানাডাতেই থাকেন। তিনি সেখানে পড়াশুনার জন্য গিয়েছিলেন। যারপর তার বাবা চেয়েছিলেন যে তিনি কানাডাতেই সেটল হয়ে যান। বাবার কাছে সময় চেয়ে তিনি মাত্র ১ বছরের সময় চান। যার পর অর্শ্বদীপ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ দলেরও অংশ হন। এরপর তাকে পাঞ্জাব দলেও শামিল করা হয়।। আর এখন ২০২১ এর আইপিএল মরশুমের শুরু তার জন্য ভীষণই স্পেশাল হয়ে উঠেছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *