IND vs NZ: ভারতের ওপেনিং সমস্যা নিয়ে চিন্তিত দীনেশ কার্তিক, কিউইদের বিরুদ্ধে এই খেলোয়াড় হতে পারেন মুশকিল আসান !! 1

IND vs NZ: আরও একটা টি-২০ বিশ্বকাপ ট্রফিহীন ভাবেই শেষ করতে হয়েছে ভারত’কে। সেই ২০১৩ সালে শেষ বার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতেছিলো দল। তারপর থেকে দশ বছর হতে চললো, নেই কোনো আইসিসি ট্রফি। যে দুর্দান্ত ছন্দে ভারত ২০২২ এ টি-২০ বিশ্বকাপের সূচনা করেছিলো, অনেকেই ভেবেছিলেন আশাপূরণ হতে চলেছে এবার। কিন্তু প্রকৃতপক্ষে দেখা গেলো উল্টোটাই। সেমিফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে ১০ উইকেটে হেরে থমকে গেলো ভারতের বিজয়রথ। ব্যাটিং না বোলিং? নাকি অধিনায়কের দল পরিচালনা? গলদ ছিলো কোথায়? পাড়ার চায়ের দোকান হোক বা টিভি চ্যানেলের স্টুডিও, সব জায়গায় নিজেদের মত করে ব্যাখ্যা দিচ্ছেন মানুষজন। কিন্তু টি-২০’র মত ধুমধাড়াক্কা ক্রিকেটে পাওয়ার-প্লে’তে ভারতীয় ওপেনারদের হতাশাজনক পারফর্ম্যান্স যে ভারতের কাপ স্বপ্নভঙ্গের জন্য অনেকাংশে দায়ী, তা একবাক্যে মানছেন অনেকেই। বিশ্বকাপ শেষে ভারত এবার সীমিত ওভারের খেলায় মুখোমুখি হয়েছে নিউজিল্যান্ডের। সেই দলে আবার নেই দুই নিয়মিত ওপেনার রাহুল-রোহিত সহ একঝাঁক সিনিয়র খেলোয়াড়। আগামী’র কথা ভেবে নতুন ওপেনার বেছে নিতে উপদেশ দিলেন দীনেশ কার্তিক। ব্যাট হাতে ইনিংসের শুরুতে তিনি দেখতে চান ঋষভ পন্থ’কে।

বিশ্বকাপে ব্যর্থ ওপেনার’রা, জায়গা পাচ্ছিলেন না পন্থ-

Rohit Sharma, KL Rahul | image: twitter
Indian openers Rohit Sharma and KL Rahul had tough times in T20 World Cup 2022.

ভারতের অধিনায়ক রোহিত শর্মা(Rohit Sharma) আর সহ-অধিনায়ক কে এল রাহুলের(KL Rahul) ওপর দায়িত্ব ছিলো টি-২০ বিশ্বকাপে ইনিংসের সূচনা করার। বড় রান তুলে দল’কে দুর্দান্তভাবে এগিয়ে নিয়ে যাবেন তাঁরা, এমনটাই আশা করা হচ্ছিলো। তবে বিশ্বকাপের মঞ্চে দেখা গেলো একদম উলটো ছবি। প্রথম ম্যাচ থেকেই চূড়ান্ত ফ্লপ হতে শুরু করেন ওপেনারদ্বয়। প্রথম ৬ ওভারে অন্যান্য দল যখন ফিল্ডিং বিধিনিষেধ কাজে লাগিয়ে ৫০ বা ৬০ রান তুলতে ব্যাপৃত, সেখানে ভারত রোজ শুরুতে উইকেট হারিয়ে চাপে পড়তে থাকে। রাহুল দুটি এবং রোহিত একটি অর্ধশতক করলেও দলের প্রয়োজনে তাঁদের এগিয়ে আসতে দেখা যায় নি। অপরদিকে দলে সুযোগ’ই পাচ্ছিলেন না তরুণ উইকেটরক্ষক ব্যাটার ঋষভ পন্থ(Rishabh Pant)। আর জায়গা হচ্ছিলো না দীনেশ কার্তিকের’ই(Dinesh Karthik) জন্য। অভিজ্ঞ কার্তিক’কে ‘ফিনিশার’এর ভূমিকায় দেখতে চেয়েছিলো ভারতীয় দল। প্রথম ৪ ম্যাচে তাই ডাগ-আউটেই বসে কাটাতে হয়েছে পন্থ’কে। সুযোগ শেষ দুই ম্যাচে মিললেও ব্যাটিং অর্ডারের অনেক নীচের দিকে নেমে নিজেকে ঠিকঠাক মেলে ধরতে পারেন নি তিনি।

নিউজিল্যান্ড সফরে নেই অনেকে,খেলবেন পন্থ ?

Rishabh Pant | image: Twitter
In the absence of seniors Pant will play in IND vs NZ series.

টি-২০ বিশ্বকাপের একদম পরেই ভারতীয় দল খেলতে গিয়েছে নিউজিল্যান্ডে। কিউইদের দেশে সাদা বলের ক্রিকেট সিরিজ থেকে নিজেদের সরিয়ে নিয়েছেন রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি, কে এল রাহুল সহ দলের অধিকাংশ অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। এমনকি শেষ কয়েকমাসে ভারতের টি-২০ দলের নিয়মিত উইকেটরক্ষক দীনেশ কার্তিকের’ও জায়গা হয় নি দলে। বিশ্বকাপে খারাপ পারফর্ম করার তাঁর জন্য চিরদিনের জন্য বন্ধ হতে পারে জাতীয় দলের দরজা, শোনা যাচ্ছে এমন’ও। অপরপক্ষে সফরকারী দলের সহ-অধিনায়ক নির্বাচিত হয়েছেন দিল্লী’র ঋষভ(Rishabh Pant)। তাই বিশ্বকাপের মত নিউজিল্যান্ডে যে তাঁকে অন্তত বাইরে বসে থাকতে হবে না তা একরকম নিশ্চিত। এবার নিয়মিত সুযোগ পেয়ে নিজেকে কতদূর উইকেটরক্ষকের ভূমিকায় প্রতিষ্ঠা করতে পারেন তিনি সেই দিকে নজর থাকবে সবার। স্কোয়াডে রয়েছেন ঈশান কিষণ এবং সঞ্জু স্যামসনের মত আরও দুই উইকেটরক্ষক। জায়গা পেতে লড়বেন তাঁরাও।

পন্থ করুক ওপেন, চাইছেন দীনেশ কার্তিক-

Dinesh Karthik and Rishabh Pant | image: twitter
Dinesh Karthik wants Rishabh Pant to open the batting for India in IND vs NZ seires.

দলে পন্থ’কে তাঁর প্রতিযোগী নয়, বরং ছোটো ভাই হিসবেই দেখেন কার্তিক। এর আগেও কিপিং বা ব্যাটিং নিয়ে অনুজ’কে পরামর্শ দিতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। নিউজিল্যান্ডে সিরিজে দলের বাইরে থাকা ‘ডিকে’ এখন ক্রিকেট অ্যানালিস্টের ভূমিকায়। সম্প্রতি ক্রিকবাজ ওয়েবসাইটের এক আলোচনায় ভারতের ওপেনিং সমস্যা’র প্রশ্ন উঠলে নিজের পছন্দ হিসেবে ঋষভ পন্থের(Rishabh Pant) নাম জানান কার্তিক। তিনি বলেন, “ আমরা কি ঋষভ পন্থ’কে ওপেন করার একটা সুযোগ দিতে পারি? আমরা জানি ও কিরকম শট খেলতে পারে। ম্যাচের শুরতে ওকে একটা সুযোগ দিয়ে দেখা যেতে পারে। ও পাওয়ার-প্লে’র সুবিধা ভালোই নিতে পারবে।” টি-২০ বিশ্বকাপে ভারতের ওপেনারদের মন্থর ব্যাটিং নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে বিস্তর। দীনেশ কার্তিক বলেন, “ খুব চিত্তাকর্ষক একটা বিষয় হলো, যখন’ই পন্থ ওপেন করে, ওর স্ট্রাইক রেট সবচেয়ে বেশী থাকে। বোলার’দের ওপর পালটা চাপ সৃষ্টি করার চেষ্টা করে ও। ওর মত বড় শট ক্ষমতা আর কারও নেই।”

Leave a comment

Your email address will not be published.