IND vs ENG: ব্যাট হাতে ব্যর্থ হলেও মেজাজে এখনও 'রাজা' কিং কোহলি, দেখুন এই ভাইরাল ভিডিও 1

IND vs ENG: ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক ও মহাতারকা ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি তার ক্রিকেট কেরিয়ায়ের সবচেয়ে খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন। কিছুতেই যেন তার খারাপ সময়টা কাটছেই না। প্রতিটা ম্যাচের আগেই মনে করা হচ্ছে, এই ম্যাচে হয়তো রান পাবেন কোহলি। তবে আদতে তেমনটা হচ্ছে না। যে খারাপ জায়গাটার মধ্যে রয়েছেন তিনি, নিজের ইনিংস শেষে সেই জায়গাতেই ফিরে যাচ্ছেন তিনি। এমন ফর্ম দেখে দেশের প্রাক্তন ক্রিকেটাররাও বলছেন কোহলিকে এবার বসানো উচিৎ।

ব্যাটে রান নেই বিরাটের

Virat Kohli

বেশ কিছুটা সময় ধরে সত্যিই রান করতে পারছেন না বিরাট। ২০১৯ সালে শেষবার একদিনের ক্রিকেটে শতরান করেছিলেন তিনি। এরপর থেকে এই ফর্ম্যাটে সেঞ্চুরি করতে পারেননি তিনি। তাই তার ফর্ম নিয়ে আলোচনা তুঙ্গে। বিরাটের কেন বড় রান করতে পারছেন না, এটাই যেন সব খবরের শিরোনাম। লর্ডসে রান তাড়া করতে নেমে এ দিন রান না করেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন রোহিত শর্মা। তাই এই ম্যাচে জিততে হলে, কোহলির ব্যাট থেকে রান আসতেই হতো। কিন্তু তেমনটা হয়নি। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচেও বড় রান করতে ব্যর্থ হয়েছেন বিরাট। ২৫ বলে ১৬ রান করে আউট হয়ে যান প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক।

তবে এর মধ্যে আলোচনার কারণ হয়ে উঠেছে অন্য একটি বিষয়। রিস টপলির বলে শূন্য করে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরার রাস্তা ধরেন রোহিত শর্মা। এরপরই লর্ডসের ড্রেসিংরুম থেকে মাঠের পথে হাঁটা লাগান বিরাট। এই পুরো ‘যাত্রা’টা হয়ে যায় ক্যামেরাবন্দী। সেখানে দেখা যায় নিজের স্বাভাবিক মেজাজেই রয়েছেন তিনি। মনে হয়নি তিনি কোন চাপের মধ্যে রয়েছেন। মাঠে নামার আগে চিরাচরিত ভঙ্গিতে নিজের কলারটাও তুলে নেন তিনি। আর সেই ভিডিওটি এবার ভাইরাল হয়ে উঠেছে।

দেখে নিন ভিডিও:

১০০ রানে ম্যাচ হারে ভারত

এদিন প্রথমে ব্যাট করে ২৪৬ রান করে ইংল্যান্ড। ভারতের হয়ে ৪ উইকেট নেন যুজভেন্দ্র চাহাল। জসপ্রীত বুমরাহ ও হার্দিক পান্ডিয়া ২টি করে উইকেট নেন। ২৪৭ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে শুরুতেই আউট হয়ে যান অধিনায়ক রোহিত শর্ম। প্রথম ম্যাচে টিম থেকে বাদ পড়ার পর, দ্বিতীয় ম্যাচে ফিরেছিলেন বিরাট কোহল। কিন্তু এই ম্যাচেও ব্যর্থ বিরাট। ১৬ রানে ফেরেন তিনি। ১৪৬ রানে শেষ হয়ে যায় ভারতের ইনিংস। ইংল্যান্ডের হয়ে ৬ উইকেট নিয়েছেন রিস টপলি।

Leave a comment

Your email address will not be published.