IND vs ENG: বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে আবশেষে কড়া ইংল্যান্ড পুলিশ, এজবাস্টনের ঘটনায় নিল এই বিশাল পদক্ষেপ 1

IND vs ENG: ভারত ও ইংল্যান্ডের মধ্যে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের শেষ ম্যাচটি ১ থেকে ৫ জুলাই এজবাস্টনে খেলা হয়েছিল। ইংল্যান্ড ম্যাচ জিতে সিরিজ ২-২ সমতায় শেষ করে। এই ম্যাচেই বর্ণবিদ্বেষের বিষয়টি সামনে আসে। এই ঘটনায় বড় সাফল্য পেয়েছে পুলিশ। এই বিষয়ে তারা একজনকে আটক করেছে। বার্মিংহাম পুলিশ এক বিবৃতিতে বলেছে, “সোমবার বার্মিংহামে টেস্ট ম্যাচ চলাকালীন বর্ণবিদ্বেষ, আপত্তিকর আচরণের রিপোর্টের পর একজন ৩২ বছর বয়সী ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে রাখা হয়েছে।”

ইসিবি এই তথ্য জানিয়েছে

IND vs ENG: বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে আবশেষে কড়া ইংল্যান্ড পুলিশ, এজবাস্টনের ঘটনায় নিল এই বিশাল পদক্ষেপ 2

সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিক অভিযোগের পর ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি) বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্যের মামলার কথা জানিয়েছে। ইসিবি টুইট করে জানিয়েছিল যে সিরিজের শেষ ম্যাচ চলাকালীন বর্ণবিদ্বেষের একটি মামলা সামনে এসেছে। এজবাস্টনের কর্মকর্তারা পুরো বিষয়টি তদন্ত করেছেন। একজনকে আটক করার পর তদন্ত চলছে।

ভারতীয় দর্শকের অভিযোগ

IND vs ENG: বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে আবশেষে কড়া ইংল্যান্ড পুলিশ, এজবাস্টনের ঘটনায় নিল এই বিশাল পদক্ষেপ 3

সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহারের কথা জানিয়েছিলেন এক ভারতীয় দর্শক। তিনি প্রকাশ করেছিলেন যে ম্যাচ চলাকালীন দর্শকরা তাকে কারি এবং পাকিস্তানি বলে ডাকে। তিনি এই বিষয়ে মাঠে উপস্থিত পুলিশদের অবহিত করেন এবং একাধিকবার তাকে নিয়ে বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্যকারী ব্যক্তির পরিচয়ও দেন। কিন্তু নিরাপত্তারক্ষীরা কোন ব্যবস্থা নেয়নি। গত বছর ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক মাইকেল ভনের বিরুদ্ধেও বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ ওঠে। আদিল রশিদও এই অভিযোগকে সমর্থন করেছিলেন।

এর আগে ইয়র্কশায়ারের সিইও এবং এসেক্স কাউন্টির প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধেও বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ ওঠে। এই দুটি পদের ব্যক্তিদের পদত্যাগ করতে হয়েছিল। মাইকেল ভন সোশ্যাল মিডিয়াতে খুব সক্রিয় এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ওয়াসিম জাফরের সাথে ঘন ঘন এই নিয়ে লড়াই চলতো। ইয়র্কশায়ারের প্রাক্তন ক্রিকেটার তাবাসসুম ভাট্টি প্রকাশ করেছিলেন যে পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত হওয়ার কারণে তাকে বেশ কয়েকবার বর্ণবিদ্বেষের মুখোমুখি হতে হয়েছিল। একবার কিছু খেলোয়াড় তার মাথায় প্রস্রাব করে। এই প্রকাশের পর ব্যাপক তোলপাড় হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published.