বাংলাদেশ লেজেন্ডসের বিরুদ্ধে এ কি করে বসলেন যুবরাজ সিং? নিজেই বিশ্বাস করতে পারছেন না 1

ছত্তিশগড় রায়পুরের শহীদ বীর নারায়ণ সিং আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ লেজেন্ডস ও ভারত লেজেন্ডসের মধ্যেকার রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজের সময় ভারতীয় দলের হয়ে প্রজ্ঞান ওঝা এবং যুবরাজ সিং দুর্দান্ত বোলিং করেছিলেন। ভারতীয় কিংবদন্তিরা মিলে বাংলাদেশ দলকে মাত্র ১০৯ রান তুলতে দেয়। বাংলাদেশ দলের নাসিমুদ্দিন ৩৯ রান করেছিলেন, যার মধ্যে তিনি ৩৩ বলে আটটি চার ও একটি ছক্কা মারেন।

IN-L VS BD-L Live Score Match-5 Road Safety World Series Indian Legends VS

বাংলাদেশ দল ১৯.৪ ওভারে অল আউট হয়ে যায়। মনপ্রীত গনি এবং ইউসুফ পাঠান এই সময়ের মধ্যে একটি করে উইকেট নিয়েছিলেন, বিনয় কুমারও দুটি উইকেট নিয়েছিলেন।

IND-L vs BD-L Dream11 Predictions, Road Safety World Series 2020-21, India Legends vs Bangladesh Legends: Playing XI, Cricket Fantasy Tips

ছত্তিশগড়ের রায়পুরে অনুষ্ঠিত রোড সেফটি ওয়ার্ল্ড সিরিজে প্রথম ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বাংলাদেশ লেজেন্ডসের অধিনায়ক মহম্মদ রফিক। বাংলাদেশ দলের হয়ে জাভেদ ওমর ও নাসিমুদ্দিন শুরু করেন এবং নাসিমউদ্দিন ৩৯ রান করেন। জাভেদ উমর তার ব্যাটিংয়ের সময় মাত্র ১২ রান করেছেন। এর পরে নাসিমুদ্দিনকে আউট করে যুবরাজ সিং উইকেট নেন। এদিকে, বাঁ হাতি স্পিন বোলার প্রজ্ঞান ওঝাও ভারতকে সফল করতে খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছিলেন। ১৩ তম ওভারে নাফিজ ইকবালকে আউট করেন তিনি।

যুবরাজ সিং নিজের বোলিংয়ে নিজেই বিস্মিত হয়েছিলেন

भारतीय गेंदबाजों ने बांग्लादेश के खिलाफ की शानदार गेंदबाजी, युवराज सिंह बोले- मैं खुद हैरान हूं 3

বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মহম্মদ রফিককে আউট করেছিলেন পার্টটাইম স্পিনার ইউসুফ পাঠান। যুবরাজ সিংয়ের বলে ১৫ ওভারের মাথায় আবদুল রাজ্জাক ও হান্নান সরকারও আউট হন। যেখানে আবদুল রাজ্জাককে রান আউট করেন যুবরাজ, এবং হান্নান সরকারকে বোল্ড করেন। বলা বাহুল্য যে, এই সময়ে, ক্রিকেটার যুবরাজ সিং দুই উইকেট নিয়েছিলেন এবং একটি রান আউট করেছিলেন।

भारतीय गेंदबाजों ने बांग्लादेश के खिलाफ की शानदार गेंदबाजी, युवराज सिंह बोले- मैं खुद हैरान हूं 1

যুবরাজ সিং তাঁর দুর্দান্ত পারফর্মেন্স সম্পর্কে বলেছেন, “আমি নিজেও অবাক হয়েছি। আমি এই বোলিংয়ে খুব খুশি এবং বাংলাদেশের পার্টনারশিপ ভেঙে দিয়েছি। আমি এই সময়ে বোলিং করেছি এবং রান আউটও করেছি। শচিন তেন্ডুলকর যদি অধিনায়ক হন তবে আপনার পক্ষে সব বিষয়ে মনোযোগ দেওয়া খুব জরুরি। আমি গত দুই সপ্তাহ ধরে একটানা অনুশীলন করছিলাম।”

 

Leave a comment

Your email address will not be published.