প্রাক্তন ভারতীয় কোচ গ্রেগ চ্যাপেল বললেন রাহুল দ্রাবিড় অস্ট্রেলিয়ার থেকে শিখে ভারতীয় দল প্রস্তুত করেছেন

অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন কোচ গ্রেগ চ্যাপেল আরও একবার ভারতীয় ক্রিকেটারদের প্রশংসা করেছেন। এর সঙ্গেই তিনি ম্যানেজমেন্টেরও প্রশংসা করেছেন। গ্রেগ চ্যাপেলের এই ব্যাপারে বক্তব্য যে তরুণ প্রতিভাকে চিনতে ভারত অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে ভাল। চ্যাপেল বলেছেন যে ভারত আর ইংল্যান্ড দুই দেশই তরুণ প্রতিভাদের এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে অস্ট্রেলিয়ার চেয়ে এগিয়ে। তিনি বলেছেন যে ভারত এই কাজে দ্রুতগতিতে এগিয়েছে, কারণ জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির প্রধান রাহুল দ্রাবিড় নিজের বুদ্ধি ব্যবহার করছেন আর তরুণ প্রতিভাদের চিহ্নিত করেছেন।

রাহুল দ্রাবিড়ের প্রশংসা করলেন চ্যাপেল

প্রাক্তন ভারতীয় কোচ গ্রেগ চ্যাপেল বললেন রাহুল দ্রাবিড় অস্ট্রেলিয়ার থেকে শিখে ভারতীয় দল প্রস্তুত করেছেন 1

তিনি এর মধ্যে বলেছেন যে আমার মনে হয় অস্ট্রেলিয়া তরুণ প্রতিভাকে চিহ্নিত করতে নিজের পরিস্থিতি হারিয়ে ফেলেছে আর ইংল্যান্ড তথা ভারত এই ব্যাপারে এগিয়ে গিয়েছে। ৭২ বছরের প্রাক্তন ক্রিকেটার গ্রেগ চ্যাপেল বলেছেন যে যদি ইতিহাস দেখা যায় তো আমরা তরুণ খেলোয়াড়দের বিকশিত করার ব্যাপারে সেরা ছিলাম, কিন্তু গত কিছু বছরে এই ব্যাপারে পরিবর্তন এসেছে।

তরুণ প্রতিভাকে চিহ্নিত করতে ভারত সবচেয়ে ভালো

প্রাক্তন ভারতীয় কোচ গ্রেগ চ্যাপেল বললেন রাহুল দ্রাবিড় অস্ট্রেলিয়ার থেকে শিখে ভারতীয় দল প্রস্তুত করেছেন 2

চ্যাপেল নিজের কথা বলতে গিয়ে আগে আরও বলেন আমি দেখছি যে বেশকিছু তরুণ খেলোয়াড়কে যাদের যোগ্যতা রয়েছে। তাদের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না। এটা কোনো কারণেই মেনে নেওয়া যায় না। আমরা একজন খেলোয়াড়কেও হারাতে পারি না। প্রাক্তন ক্রিকেটার এটাও চান যে অস্ট্রেলিয়ার প্রিমিয়ার ঘরোয়া প্রতিযোগীতা শেফিল্ড শিল্ডকে আগষ্ট বা সেপ্টেম্বর মাসে দ্রুত শুরু করা হোক আর এটা প্রত্যেক বছর বিগ ব্যাশ লীগের আগে আয়োজন করা উচিত। বিগব্যাশ এর পর অস্ট্রেলিয়া এ ম্যাচের জন্য সময় রিজার্ভ করা উচিত।

আমরা তরুণ প্রতিভাকে চিহ্নিত করতে হয়েছি ব্যর্থ

চ্যাপেল এর মধ্যে বলেছেন যে আমাদের কাছে ফুল টাইম ক্রিকেটাররা রয়েছেন, কিন্তু জানিনা কেনো আমরা নিয়মিত ক্রিকেট মরশুম কেনো রাখতে পারছি না। আমাদের এই খেলোয়াড়দের বছরে এক মাস পর্যন্ত খেলানো উচিত। আমার মতে শেফিল্ড শিল্ডের জন্য ফুল ব্লক রাখা উচিত যাতে খেলোয়াড়রা লাল বলের ক্রিকেট বেশি খেলতে পারে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *