ম্যাচ জিতে ইংল্যান্ড অধিনায়ক Ben Stoke এর ভারতকে অপমান করে হুঙ্কার ‘বাকি দল আমাদের থেকে ভাল হতে পারে কিন্তু...”

ইংল্যান্ড দল বেন স্টোকসের (Ben Stokes) নেতৃত্বে ইতিহাস গড়েছে। প্রথমে দেশের মাটিতে তারা নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ জেতে, এরপর ভারতের বিরুদ্ধে গত বছর হওয়া টেস্ট সিরিজের বাকি থাকা একমাত্র টেস্টেও তারা দেশের মাটিতে ভারতকে উড়িয়ে দিয়েছে। একেবারে খাদের কিনারে থাকা ইংল্যান্ড দল এই টেস্টে প্রত্যাবর্তন করে ভারতীয় দলকে(Team India) পেছনে ফেলে টেস্টে এক নতুন কৃতিত্ব স্থাপন করেছে।

এজবাস্টনে খেলা হওয়া ভারত বনাম ইংল্যান্ড (ENG vs IND) এর মধ্যে পঞ্চম টেস্টে ইংল্যান্ড ভারতের দেওয়া টেস্ট ইতিহাসের সবচেয়ে বড় স্কোর ৩৭৬ রান তাড়া করে শেষ দিন দুই সেশন বাকি থাকতেই জয় হাসিল করে নেয়। এই জয়ের পর ইংল্যান্ড অধিনায়ক বেন স্টোকসকে যথেষ্ট খুশি দেখিয়েছে। ম্যাচ শেষে তিনি অন্যান্য দলগুলিকে হুঁশিয়ারি দেওয়ার পাশপাশি সীমিত ওভারের সিরিজে ভারতের জন্য বিপদের সংকেতও দিয়েছেন

ঐতিহাসিক টেস্ট জিতলো ইংল্যান্ড

Ben Stokes

গত বছর ভারত আর ইংল্যান্ডের মধ্যে পাঁচ ম্যাচের পতৌদি ট্রফি সিরিজ খেলা হয়েছিল। কিন্তু করোনা সংক্রমণের (Corona Virus) বৃদ্ধির কারণে এই সিরিজের পঞ্চম ম্যাচটি বাতিল হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু বাকি থাকা এই ম্যাচটি গত ১ জুলাই থেকে পুণরায় খেলা শুরু হয়েছিল। এই ম্যাচে প্রথম ৩দিন ভারতীয় দল কর্তৃত্ব করলেও চতুর্থ দিন ম্যাচ নিজেদের দখলে নিয়ে নেয় ইংল্যান্ড।

এর আগে টেস্ট ম্যাচের দিক থেকে এই ধরণের আক্রামণাত্মক লক্ষ্য তাড়া করা ব্যাটিং দেখা যায়নি। বিশেষ করে চতুর্থ ইনিংসে ভারতের ৩৭৮ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করার ক্ষেত্রে। কিন্তু ইংল্যান্ডের দুই ব্যাটসম্যান জনি বেয়রস্টো (Jonny Bairstow) এবং জো রুট (Joe Root) সমস্ত হিসেবে উল্টে দেন। এবং দেশের মাটিতে ভারতের বিরুদ্ধে সবচেয়ে বড় লক্ষ হাসিল করে সহজেই এই ঐতিহাসিক ম্যাচ জিতে নেয়।

ম্যাচ জিতে Ben Stokes দিলেন হুমকি

Ben Stokes

ভারত আর ইংল্যান্ডের মধ্যে খেলা হওয়া এই টেস্ট ম্যাচে জয়ের কৃতিত্ব ইংল্যান্ড দলের নতুন অধিনায়ক আর কোচকেই দেওয়া হচ্ছে। নিউজিল্যান্ডের প্রাক্তন বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান ব্রেন্ডন ম্যাককালাম আর বেন স্টোকসের জুটি ইংল্যান্ডের টেস্ট ফর্ম্যাটে নতুন যুগের সূচনা বলে দাবি করছেন। শুধু তাই নয় এই ম্যাচ জিতে ভারতকে প্রায় অপমান করে বেন স্টোকস এক বড় বয়ানও দিয়েছেন। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন,

“যখন খেলোয়াড়রা এইভাবে খেলেন তখন আমার কাজ সহজ হয়ে যায়। ৩৭৮ রানের লক্ষ্য পাঁচ সপ্তাহে আগে ভয়ের ছিল, কিন্তু এখন এটা আমাদের জন্য সাধারণ লক্ষ্য। জনি আর রুটকে এর পুরো শ্রেয় দেওয়া হবে, কিন্তু বুমরাহ আর শামির বিরুদ্ধে নতুন বলে ওপেনিং ব্যাটসম্যানরা দুরন্ত প্রদর্শন করেছে। কখনও কখনও বাকি দলগুলি আমাদের থেকে ভাল হতে পারে, কিন্তু আমাদের চেয়ে বাহাদূর কেউ নয়।

আমরা টেস্ট ক্রিকেটে এক নতুন অধ্যায় লেখার চেষ্টায় রয়েছি। গত চার-পাঁচ সপ্তাহ ধরে আমাদের সমস্ত পরিকল্পনা সেটাই রয়েছে যা আমরা এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। আমরা টেস্ট ক্রিকেটকে এক নতুন জীবন দিতে চাই, আমরা যে সমর্থন পেয়েছি, কম সময়ে তা দারুণ থেকেছে। আমরা আগামী প্রজন্মকে অনুপ্রেরিত করতে চাই”। 

Leave a comment

Your email address will not be published.