বিরাট কোহলি

এদেশে চাকরির অভাব। বেকাত্ব যুব সমাজের সবচেয়ে বড় সমস্য়া। এ সমস্য়াটা মিটে গেলেই দেশের ক্রাইম রেট অর্ধেক কমে যাবে। পেটে খাবারের অভাবটা মিটে গেলে এদেশের ভাবধারাটাও বদলে যাবে। চিন্তাধারা উন্নত হলে তবেই সমাজ উন্নত হবে। আর তবেই আমার দেশ এগোবে। আম-আদমি থেকে শুরু করে খেলোয়াড় সকলেরই এক চাহিদা। ছোটো শহর থেকে যখন কোনও ভালো অ্য়াথলিট উঠে আসেন, তাঁর প্রথম লক্ষ্য়ই থাকে মেগা-ইভেন্টে দেশের হয়ে একটা পদক জেতা। আর তা জিতলেই ভালো একটা চাকরি জুটবে। ক্রিকেট ছাড়া অন্য় খেলায় টাকা নেই। আবার কোনও অ্য়াথলিটের জীবন দশ বছরের বেশি লম্বাও হয় না। খেলতে খেলতে বয়স চলে গেলে একটা বয়সের পর আর-পাঁচটা ছেলে-মেয়ের মতো তাঁদের কপালেও চাকরি জোটে না। বেঁচে থাকাই তখন দায় হয়ে ওঠে। কারণ সরকার সরকারি চাকুরেদের পেনসন দিলেও অ্য়াথলিটদের কোনও ভাতা দেয় না।

ক্রিকেটাররা? জাতীয় দলে যাঁরা জায়গা ধরে রাখতে পারেননি তাঁদের কথা বাদ দেওয়া গেল। কিন্তু, বিরাট কোহলিদের মতো যেসব ক্রিকেটাররা বোর্ডের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ, তাঁরা কোন যুক্তিতে নামী সংস্থায় মোটা মাইনের চাকরি করে যাবেন। চুক্তির জন্য় বোর্ডের কাছ থেকে এমনিতেই কোটি কোটি টাকা আয় করেন। এর ওপর আবার বিজ্ঞাপন থেকেই আসে কোটি কোটি টাকা। এপরপরেও কেন, নামী কোম্পানির শাঁসালো পদ আঁকড়ে পড়ে থাকা। সেসব এমন শাঁসালো পদ, যে ওই সব পদে যেতে একটা সাধারণ মানুষের চাকরি জীবনের অর্ধেকের বেশি শেষ হয়ে যায়। সেখানে খেলোয়াড়রা একদিনও অফিসের হাজিরা খাতায় সই না করলেও, মাস গেলে অ্য়াকাউন্টে টাকা পড়ে যায়। শিক্ষাগত যোগ্য়তার কথা না হয় উহ্য় রাখা গেল ওইসব পেশার ক্ষেত্রে। তর্কের খাতিরে যোগ্য়তা নিয়ে প্রশ্ন তোলার উপমা অনেক রয়েছে সাধারণ মানুষের। শুধু ক্রিকেটাররা নন, একাধিক এমন অনেক পাবলিক সেক্টর কোম্পানিতে কাজ করেন নামজাদা খেলোয়াড়রা।

ইদানিং বোর্ডের কাজকর্মে যেভাবে দেশের সর্বোচ্চ আদালত নাক গলাতে শুরু করেছে, তাতে ব্য়াতিব্য়স্ত বিসিসিআই। কথায় কথায় বোর্ডের বিরুদ্ধে আদালতে ছুটছে অনেকেই। স্বার্থের সংঘাতের প্রশ্ন এনেই বোর্ডে ঢোকা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে অনেক দক্ষ প্রশাসককে। মাথার ওপর আবার জোর করে কমিটি অফ অ্য়াডমিনিস্ট্রেটর্সকে বসিয়ে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তারা এবার বোর্ডকে আদেশের নামে পরামর্শ দিয়েছে, ক্রিকেটাররা যেন ওইসব শাঁসালো পদ ছেড়ে খেলায় মন দেন। না ছাড়লে স্বার্থের সংঘাতের প্রশ্ন আনা হবে। আর তারপরই নড়েচড়ে বসেছে। বিরাটসহ জাতীয় দলের চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ওইসব পাবলিক সেক্টর কোম্পানিগুলি থেকে উপহার পাওয়া শাঁসালো পদগুলি ছেড়ে দেওয়ার জন্য়। না হলে পরের বছর থেকে বোর্ডের সঙ্গে চুক্তি বাড়ানো নিয়ে সমস্য়ায় পড়তে হবে।

ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি রাষ্ট্রায়াত্ত সংস্থা ওএনজিসিতে ম্য়ানেজারের পদ আঁকড়ে বসে আছেন। টেস্ট দলের সহ-অধিনায়ক অজিঙ্কা রাহানে, চেতেশ্বর পূজারার মতো আরও অনেক বোর্ডের চুক্তি করা ভারতীয় ক্রিকেটার ওএনজিসি বা ওএনজিসির মতো সংস্থাতে এরকম পদে রয়েছেন।

উল্লেখ্য়, ওএনজিসি বা ওএনজিসির মতো রাষ্ট্রায়াত্ত সংস্থাগুলির সঙ্গে জড়িত ক্রিকেটাররা ঘরোয়া টুর্নামেন্টে ওই সংস্থার হয়ে ক্রিকেট খেলেন। অতীতে বিরাট, ইশান্ত শর্মা ওএনজিসির হয়ে খেলেছেন। দিল্লির ঘরোয়া ক্রিকেটের অধিকাংশ ক্রিকেটারই ওএনজিসির হয়ে ক্রিকেট খেলেন। এখানে বলে রাখা ভালো, ২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের পর কোহলি, গৌতম গম্ভীর, মুনাফ প্য়াটেলকে ২০ লক্ষ টাকা করে আর্থিক পুরস্কার দেওয়ার পাশাপাশি পদোন্নতির উপহারও দিয়েছিল। বিসিসিআই এতদিন আপত্তি জানাত না কারণ, দল থেকে ছিটকে গেলে কোনও ক্রিকেটার ওই চাকরির টাকায় চলতে পারতেন বাকি জীবনটা। কিন্তু, এবার ক্রিকেটারদের সেই অবস্থাটা বদলাতে চলেছে।

  • SHARE

    আরও পড়ুন

    ২০২০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে কেন অবসর নেওয়া উচিত হবে না ধোনির?

    মহেন্দ্র সিং ধোনি - ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। তাঁর নেতৃত্বে আইসিসির বড় সব...

    রিপোর্ট: বিসিসিআইয়ের ঘনিষ্ঠ সূত্র লীক করলেন খবর, শেষ দুই টেস্ট থেকে এই ৩ খেলোয়াড়কে করা হবে বাইরে

    রিপোর্ট: বিসিসিআইয়ের ঘনিষ্ঠ সূত্র লীক করলেন খবর, শেষ দুই টেস্ট থেকে এই ৩ খেলোয়াড়কে করা হবে বাইরে
    লর্ডস টেস্টে ভারতীয় দল ইনিংসে এবং ১৫৯ রানের এক লজ্জাজনক হারের সম্মুখীন হতে হয়। ভারতীয় দল এই...

    ইংল্যান্ড বনাম ভারত: জসপ্রীত বুমরাহ হলেন তৃতীয় টেস্টের জন্য ফিট, সোশ্যাল মিডিয়ায় লোকেরা প্রকাশ করলেন খুশি

    ইংল্যান্ড বনাম ভারত: জসপ্রীত বুমরাহ হলেন তৃতীয় টেস্টের জন্য ফিট, সোশ্যাল মিডিয়ায় লোকেরা প্রকাশ করলেন খুশি
    ভারত আর ইংল্যান্ডের মধ্যে চলতি পাঁচ টেস্টের সিরিজের প্রথম দুটি টেস্টে ভারতকে ইংল্যান্ডের হাতে লজ্জাজনক হারের সম্মুখীন...

    ইংল্যান্ড বনাম ভারত—ইংল্যান্ডের ভারতের উপর কটাক্ষ, জানাল ইংরেজদের সামনে এখনও বাচ্চা ভারতীয় দলের বড় হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে

    ইংল্যান্ড বনাম ভারত—ইংল্যান্ডের ভারতের উপর কটাক্ষ, জানাল ইংরেজদের সামনে এখনও বাচ্চা ভারতীয় দলের বড় হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে
    ভারতীয় দলকে ইংল্যাণ্ডের বিরুদ্ধে চলা পাঁচ টেস্ট ম্যাচের টেস্ট সিরিজের লর্ডসে খেলা দ্বিতীয় টেস্টে লজ্জাজনক হারের সম্মুখীন...

    ব্রেকিং নিউজ: শচীনের এই বিশেষ বন্ধু হলেন ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের হেড কোচ

    ব্রেকিং নিউজ: শচীনের এই বিশেষ বন্ধু হলেন ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের হেড কোচ
    বিসিসিআই ভারতীয় মহিলা ক্রিকেট দলের জন্য দীর্ঘ সময় ধরে একজন ভালো কোচের সন্ধান করছিল। এর মধ্যেই বড়...