প্রশংসা করতে গিয়ে আবারও মুখ ফসকে বিতর্ক ডেকে আনলেন সঞ্জয় মাঞ্জরেকর 1
MANCHESTER, ENGLAND - JULY 10: ICC Commentators Ian Smith(L) and Sanjay Manjrekar and during the Semi-Final match of the ICC Cricket World Cup 2019 between India and New Zealand at Old Trafford on July 10, 2019 in Manchester, England. (Photo by Stu Forster-ICC/ICC via Getty Images)

ভারতের প্রথম সারির ধারাভাষ্যকারদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন প্রাক্তন ভারতীয় ব্যাটসম্যান সঞ্জয় মাঞ্জরেকর। তার নিপুণ ভাষার ব্যবহার এবং তথ্য ও বিশ্লেষণমূলক বক্তব্য অন্য এক জায়গা তৈরি করে রেখে দিয়েছিল। কিন্তু গত বছরের বিশ্বকাপ থেকেই বিতর্কের মধ্যেই ছিলেন মাঞ্জরেকর। আর ফের আবারও বিতর্কে জড়ালেন মাঞ্জরেকর।

Why Sanjay Manjrekar's commentary is riling up players and fans alike | The News Minute

আইপিএল-এর উদ্বোধনী ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংস পাঁচ উইকেটে হারিয়েছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে। সেই ম্যাচে চেন্নাইয়ের হয়ে ব্যাটে অম্বাতি রায়ডু ও বোলিংয়ে লেগস্পিনার পীযুষ চাওলা কার্যকরী ভূমিকা নিয়েছিলেন। বোলিংয়ে চার ওভারে মাত্র ২১ রানে একটি উইকেট নিয়েছিলেন পীযুষ, আর রান তাড়া করতে গিয়ে দুরন্ত ৭১ রানের ইনিংস খেলেছিলেন রায়ডু। এবার তাদের প্রশংসা করতে গিয়ে আবারও বিতর্ক নিজের ঘাড়ে চাপালেন সঞ্জয় মাঞ্জরেকর।

అంబటి రాయుడు, చావ్లా లో-గ్రేడ్ ఆటగాళ్లు... మరోసారి సంజయ్ వివాదాస్పద వ్యాఖ్యలు! | commentator Sanjay manjrekar tweet about ambati rayudu and piyush chawla goes wrong CRA

গত ২০ সেপ্টেম্বর একটি টুইটে সঞ্জয় মাঞ্জরেকর লেখেন, “অম্বাতি রায়ডু এবং পীযুষ চাওলার মত দুজন কম পরিচিতির দুই ক্রিকেটারের জন্য আমি খুব খুশি। বোলিংয়ে দুর্দান্ত ছিলেন পীযুষ, পঞ্চম ওভার আর ১৬তম ওভারও করেছেন তিনি। আর শটের মানের বিচারে রায়ডু তার সেরা আইপিএল-এর ইনিংস খেলেছেন। খুব ভালো চেন্নাই সুপার কিংস।”

আর এই টুইট নিয়েই শোরগোল পড়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। পীযুষ চাওলা এবং অম্বাতি রায়ডুর মত জাতীয় দলে খেলা অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের কম পরিচিতির ক্রিকেটার বলায় আবারও বিতর্কের মুখে পড়েন প্রাক্তন ভারতীয় এই ব্যাটসম্যান।

Sanjay Manjrekar Badly Trolled For Calling Ambati Rayudu & Piyush Chawla Low-Profile Cricketers - RVCJ Media

একাধিক ক্রিকেটপ্রেমীরা তার টুইটের জবাবে বেশ কড়া উত্তর দেন। তাদের দাবি, পীযুষ চাওলার দুটি বিশ্বকাপের পদক রয়েছে। এছাড়া অম্বাতি রায়ডু ভারতের হয়ে ৫০টির বেশি আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ক্রিকেট খেলেছেন। এছাড়াও তার কাছে প্রশ্ন উঠেছে যে হাইপ্রোফাইল হওয়ার জন্য ক্রিকেটারদের কি যোগ্যতা থাকতে হয়। অনেকে আবার সরাসরি আক্রমণ করেছেন মাঞ্জরেকরকে, যেখানে সঞ্জয় মাঞ্জরেকরকে চাওলা ও রায়ডুর থেকে কম পরিচিতির ক্রিকেটার হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিতর্কের আর এক নাম সঞ্জয় মাঞ্জরেকর

২০১৯ বিশ্বকাপের আগে ভারতের তারকা অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজাকে বিটস অ্যান্ড পিসেস ক্রিকেটার বলায় চরম সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন সঞ্জয় মাঞ্জরেকর। একহাত নিয়েছিলেন খোদ জাদেজাও। এরপর একাধিক বিতর্কের জেরে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই এর ধারাভাষ্যকারদের এলিট প্যানেল থেকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয় সঞ্জয় মাঞ্জরেকরকে।

Watch Video: Sanjay Manjrekar says Ravindra Jadeja ripped him apart by sheer brilliance in World Cup

এরপর সোশ্যাল মিডিয়ায় নানাভাবে তাকে ফিরিয়ে নিয়ে আসার কথা তোলেন মাঞ্জরেকর, কিন্তু বিসিসিআই কোনও কথা শোনেনি। বরং চলতি ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ধারাভাষ্যকারদের বিরাট প্যানেলে সকলের জায়গা হলেও স্থান পাননি মাঞ্জরেকর।

Manjrekar Writes to BCCI to Be Reinstated in Commentary Panel

এর ফলে বর্তমানে জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোতে বিশ্লেষক হিসেবে রয়েছেন মাঞ্জরেকর। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে তাকে জিজ্ঞাসা করা হয় যে আইপিএল-এ তিনি আদৌ ধারাভাষ্য করাটা মিস করবেন কি না? তার জবাবে সঞ্জয় মাঞ্জরেকর বলেন, “ভালো হয় যদি আমি উত্তর না দিই। আমি এখন পুরোদমে ইএসপিএন ক্রিকইনফোর সাথে তাদের প্রি ম্যাচ ও পোস্ট ম্যাচ শোয়ে কাজ করছি।”

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *