বিদেশি খেলোয়ার আনতে সানিয়াকে তুলনায় টানলেন সোয়েব 1

পাকিস্থান সুপার লিগ চলাকালীন ফেব্রুয়ারি মাসেই, পাকিস্থানের একাধিক জায়গায় আত্মঘাতী বিস্ফোরনে প্রাণ হারিয়েছে একাধিক সাধারণ মানুষ। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে লাহোরে অনুষ্ঠিত হওয়া পিএসএল ফাইনালে একাধিক বিদেশী তারকা খেলার জন্য না করেছেন।ফলে এই আকর্ষনীয় লীগ অনেকটাই জৌলুস হারিয়েছে। পাকিস্থানের ক্রিকেটের তারকা ব্যাটসম্যান সোয়েব মালিক সেই জৌলুস ফিরিয়ে আনার জন্য এবার মাঠে নামলেন।

মহারাজের রেকর্ড ভাঙলেন এ বি ডেভিলিয়ার্স


পাকিস্থানের ডন পত্রিকাকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সোয়েব বলেন, ‘পাকিস্থানের নিরাপত্তার কোনও অভাব নেই। এমনকী আমিও বাড়িতে নিরাপত্তা রক্ষী রাখিনা। যে সমস্ত ক্রিকেটাররা পাকিস্থানে আসতে চাননি, তাঁদেরও আমি জানিয়েছি, আমার স্ত্রী একজন ভারতীয়। সানিয়া পাকিস্থানে এলেও ওর কোনও বিশেষ নিরাপত্তার প্রয়োজন হয় না।’
সোয়েব এভাবেই পাকিস্থানের নিরাপত্তার বিজ্ঞাপন করতে দুনিয়ার কাছে নিজের স্ত্রীকে ব্রান্ড অ্যাম্বাসাডার করলেন ঠিকই। তবে এ নিয়েও বিতর্ক দানা বেঁধেছে। পাকিস্থানের নিরাপত্তার বিষয়ে জানাতে কেন সানিয়ার মত এক ভারতীয়ের প্রসঙ্গ টানা হল সে নিয়েই খোদ পাকিস্থানের প্রশ্নের মুখে পড়েছেন সোয়েব। পাশাপাশি ভারতীয় ক্রীড়া মহলও এনিয়ে আপত্তি জানিয়েছে।

ইংল্যান্ডের মাঠে ফিরতে পারত ফিল হিউজ’র স্মৃতি, অল্পের জন্য রক্ষা ক্রিকেটারের


এদিকে, সোয়েব দেশের নিরাপত্তা নিয়ে বিদেশি ক্রিকেটারদের আশ্বস্ত করলেও, পিএসএল ফাইনালে দেখা পাওয়া যাবে না কেভিন পিটারসন, টাইমল মিলসকে। মিলস ইতিমধ্যেই ট্যুইট করে তাঁর অবস্থান স্পষ্ট করে দিয়েছেন। দেশের নিরাপত্তার বিজ্ঞাপনের পাশাপাশি সোয়েব বিশ্বব্যপী টি-টোয়েন্টি লিগের জনপ্রিয়তার নীরিখে বিগ ব্যাশ লিগের পর পাকিস্থান সুপার লিগকেই রাখলেন। তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় বিগ ব্যাশ লিগের পরে পিএসএল স্বতন্ত্র এক ধারা তৈরি করতে পেরেছে। যত দিন যাচ্ছে পিএসএল আরও উন্নতি করে যাচ্ছে।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *