‘ঋদ্ধিমান সাহা একজন আন্ডাররেটেড খেলোয়াড়’ শচীন তেন্ডুলকর ঋদ্ধিকে নিয়ে দিলেনে এই চমকে দেওয়ার মতো বয়ান

ভারতীয় দলের অভিজ্ঞ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ঋদ্ধিমান আইপিএল ২০২২ এ গুজরাট টাইটান্সের হয়ে খেলছেন। এবং দারুণ প্রদর্শন করেছেন। ঋদ্ধি এই মরশুমে নিজের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে সকলকে অবাক করে দিয়েছেন। তিনি টাইটান্সের হয়ে এই আইপিএলে আইডল ১১ এ ছিলেনও না, কিন্তু ম্যাথু ওয়েডের খারাপ প্রদর্শনের পর গুজরাট ঋদ্ধিকে সুযোগ দেয়, এবং তিনি নিজেকে প্রমাণ করেন। ঋদ্ধির ব্যাটিং দেখে সকলেই তার প্রশংসা করছেন। এই অবস্থায় ‘গড অফ ক্রিকেট’ শচীন তেন্ডুলকরও জমিয়ে ঋদ্ধির প্রশংসা করেছেন।

মাস্টার ব্লাস্টার প্রশংসা করলেন ঋদ্ধিমান সাহার

‘ঋদ্ধিমান সাহা একজন আন্ডাররেটেড খেলোয়াড়’ শচীন তেন্ডুলকর ঋদ্ধিকে নিয়ে দিলেনে এই চমকে দেওয়ার মতো বয়ান 1

আপনাকে জানিয়ে দিই যে গুজরাট টাইটান্সের হয়ে ঋদ্ধিমান সাহা আইপিএল ২০২২ এ এখনও পর্যন্ত ৩০০-র বেশি রান করেছেন। এর মধ্যে তার ব্যাট থেকে ৩টি হাফসেঞ্চুরিও দেখতে পাওয়া গিয়েছে। ঋদ্ধি এই বছর পাওয়ার প্লেতে বোলারদের জমিয়ে শাসন করছেন। ৩৭ বছর বয়সী ঋদ্ধি এই মরশুমে নিজের অসাধারণ ব্যাটিংয়ে সবার মন জয় করেছেন। এই অবস্থায় শচীনও ঋদ্ধির প্রশংসা করতে পেছপা হননি। হিন্দুস্তান টাইমসের একটি রিপোর্ট অনুযায়ী শচীন ঋদ্ধির প্রসঙ্গে বলেন,

“ঋদ্ধিমান সাহা একজন আন্ডাররেটেড খেলোয়াড়। আমি ওকে অনেক বেশি রেট করি কারণ ও একজন ভয়ঙ্কর খেলোয়াড়। স্পিনার আর জোরে বোলারদের বিরুদ্ধে ও যে কোনো জায়গায় শট খেলতে পারে, কিন্তু শুরুতে ওর রান করার গতি সামান্য প্রভাবিত হয়েছিল কারণ ও বেশি স্ট্রাইক পাচ্ছিল না। যখন একজন ব্যাটসম্যান ভাল খেলে, তখন ওর জন্য স্ট্রাইক নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ, কিন্তু ও ততটা পায়নি যতটা ও চেয়েছিল”।

আমার হিসেবে ও ভুল সিদ্ধান্তের শিকার হয়েছে

‘ঋদ্ধিমান সাহা একজন আন্ডাররেটেড খেলোয়াড়’ শচীন তেন্ডুলকর ঋদ্ধিকে নিয়ে দিলেনে এই চমকে দেওয়ার মতো বয়ান 2

গুজরাট টাইটান্স আর রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের মধ্যে হওয়া আইপিএল ২০২২ এর ৬৭তম ম্যাচে ম্যাথুওয়েড খারাপ অ্যাম্পায়ারিংয়ের শিকার হন। আসলে, ওয়েড নিজের স্বদেশীয় গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের বলে সুইপ মারতে যান, কিন্তু তিনি বলকে টাইম করতে পারেননি আর বল প্যাডে গিয়ে লাগে। যে কারণে তাকে আউট দেওয়া হয়। তবে ওয়েড একদমই ঘাবড়াননি আর তিনি দ্রুত ডিআরএস নেন। কারণ পরিস্কার মনে হচ্ছিল বল মুভ হয়েছে।

কিন্তু অ্যাল্ট্রা এজে দেখা যায় যে বল না তো তার ব্যাটে লাগে আর না তার গ্লাভসে। এই অবস্থায় ওয়েডকে দুর্ভাগ্যজনকভাবে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন। আউট হওয়ার পর ওয়েডেকে যথেষ্ট নিরাশ দেখিয়েছিল। অন্যদিকে এখন ওয়েডের আউট নিয়ে শচীন তেন্ডুলকর বলেছেন যে তিনি ভুল সিদ্ধান্তের শিকার হয়েছিলেন। মাস্টার ব্লাস্টার শচীন এ ব্যাপারে বলেন,

“কিছুক্ষণের জন্য আমার মনে হয়েছিল যে সাহা আর ওয়েড কিছু করবে কিন্তু ওয়েডের উইকেট দুর্ভাগ্যজনক ছিল। আমার হিসেবে ও ভুল সিদ্ধান্তের শিকার হয়েছে। পরিস্কার দেখা যাচ্ছিল বল ওখানে কিছু মুভমেন্ট করেছিল”।

Leave a comment

Your email address will not be published.