DCvsRR: পরপর পাওয়া হারে রাজস্থান রয়্যালসের খেলোয়াড়রা সোশ্যাল মিডিয়ায় জমিয়ে হলেন ট্রোল 1

শারজাহের মাঠে আইপিএল ২০২০-র ২৩তম ম্যাচ রাজস্থান রয়্যালস আর দিল্লি ক্যাপিটালসের মধ্যে খেলা হয়েছে। এই ম্যাচের টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় রাজস্থান রয়্যালস। প্রথমে ব্যাট করে দিল্লির দল ১৮৫ রানের লক্ষ্য দেয়। জবাবে রাজস্থানের দল ১৩৮ রানে অলআউট হয়ে যায় আর দিল্লি ৪৬ রানে ম্যাচ জিতে নেয়।

রাজস্থান দুর্দান্ত শুরু করে

DCvsRR: পরপর পাওয়া হারে রাজস্থান রয়্যালসের খেলোয়াড়রা সোশ্যাল মিডিয়ায় জমিয়ে হলেন ট্রোল 2

টসে জিতে দিল্লিকে প্রথমে ব্যাট করতে ডাকা রাজস্থানের জন্য একদম সঠিক হয়নি। ৪.২ ওভারে খেলা পর্যন্ত জোফ্রা আর্চার দিল্লির দুই ওপেমারকে ফিরিয়ে দেন। শিখর ধবন যেখানে ৫ রান করে আউট হন তো পৃথ্বী শয়ের ব্যাট থেকে ১৯ রান আসে। পাওয়ার প্লে-র খেলা শেষ হওয়া পর্যন্ত রাজস্থান অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ারকেও ২২ রানের স্কোরে আউট করে দেয়।

দিলির স্কোর সেই সময় ৫০/৩ ছিল, আর পুরো নজর উইকেটকিপার ঋষভ পন্থ আর মার্কস স্টোইনিসের উপর ছিল। কিন্তু পন্থ আরও একবার দিল্লির সমর্থকদের নিরাশ করে আর মাত্র ৫ রান করেই আউট হন। ঋষভ পন্থের আউট হওয়ার পর স্টোইনিস আর শিমরন হেটমেয়ারের মধ্যে ৩০ রানের পার্টনারশিপ হয়। কিন্তু তখনই দুর্দান্ত ছন্দে দেখানো মার্কস স্টোইনিসকে রাহুল তেওটিয়া আউট করে দিল্লিকে বড়ো ধাক্কা দেয়

ছন্নছাড়া হয়ে যায় দিল্লি

DCvsRR: পরপর পাওয়া হারে রাজস্থান রয়্যালসের খেলোয়াড়রা সোশ্যাল মিডিয়ায় জমিয়ে হলেন ট্রোল 3

শিমরন হেটমেয়ার দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি ২৪ বলে ৪৫ রানের যোগদান দেন। অন্যদিকে হর্ষল প্যাটেল ১৬ আর অক্ষর প্যাটেল ১৭ রান করে। দিল্লি ক্যাপিটালসের দল নির্ধারিত ২০ ওভারের খেলায় ১৮৪/৮ স্কোর খাড়া করে আর রাজস্থানের সামনে ১৮৫ রানের লক্ষ্য দেয়। রাজস্থানের হয়ে জোফ্রা আর্চার তিন, কার্তিক ত্যাগী, অ্যাণ্ড্রু টাই আর রাহুল তেওটিয়া একটি করে উইকেট নেন।

রাজস্থান রয়্যালসের সামনে ১৮৫ রানের লক্ষ্য

DCvsRR: পরপর পাওয়া হারে রাজস্থান রয়্যালসের খেলোয়াড়রা সোশ্যাল মিডিয়ায় জমিয়ে হলেন ট্রোল 4

রাজস্থানের সামনে ১৮৫ রানের লক্ষ্য ছিল আর দলের শুরু ভীষণই খারাপ হয়। গত ম্যাচে হাফসেঞ্চুরি করা জোস বাটলার মাত্র ১৩ রান করে আউট হন। বাটলারকে রবিচন্দ্রন অশ্বিন শিখর ধবনের হাতে ক্যাচ করান। বাটলারের পর রাজস্থানের অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ আর যশস্বী জয়সওয়াল ইনিংস সামলানোর কাজ করেন। কিন্তু তখনই এনরিক নোকিয়ার বলে হেটমেয়ার স্টিভ স্মিথের দুর্দান্ত ক্যাচ ধরেন আর তাদের মধ্যে ৪১ রানের পার্টনারশিপ ভাঙার কাজ করেন। স্টিভ স্মিথ ২৪ রান করে আউট হন। দল স্মিথের ধাক্কা থেকে বেরনোর আগেই মার্কস স্টোইনিস নিজের প্রথম ওভারেই সঞ্জু স্যামসনকে আউট করে দেন। অন্য প্রান্তে যদিও যশস্বী জয়সওয়াল টিকে ছিলেন। কিন্তু দেখে দেখতে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে রাজস্থানের ইনিংস। মাহিপাল লোমরোর (১) আর যশস্বী জয়সয়াক ৩৪ রানের স্কোরে আউট হন। অন্যদকে আণ্ড্রু টাই ৬ রানে আউট হন। দলের স্কোর সেই সময় ৯০/ ৬ ছিল।

তেওটিয়ার কাছ থেকে আশা ছিল ধামাকার

DCvsRR: পরপর পাওয়া হারে রাজস্থান রয়্যালসের খেলোয়াড়রা সোশ্যাল মিডিয়ায় জমিয়ে হলেন ট্রোল 5

রাজস্থানের পুরো নজর এখন সম্পূর্ণভাবে রাহুল তেওটিয়ার উপর ছিল। আর অন্য প্রান্ত থেকে একের পর এক উইকেট পড়তে থাকে। এখনও পর্যন্ত টুর্নামেন্টে ২২০ স্ট্রাইকরেটে রান করা জোফ্রা আর্চার ২ রান করে কাগিসো রাবাদার বলে আউট হন। রাহুল সম্পূর্ণ চেষ্টা করেন দলকে জেতাতে কিন্তু ব্যর্থ হন। রাহুল ২৯ বলে ৩৮ রান করেন। রাজস্থানের পুরো দল ১৩৮ রানই করতে পারে আর ৪৬ রানে এই ম্যাচ হেরে যায়। এটি রাজস্থানের পরপর চতুর্থ হার ছিল। দিল্লির জয়ে রাবাদা তিন আর অশ্বিন এবং স্টোইনিস দুটি করে উইকেট নেন।

এখানে দেখুন সম্পূর্ণ স্কোরবোর্ড

DCvsRR: পরপর পাওয়া হারে রাজস্থান রয়্যালসের খেলোয়াড়রা সোশ্যাল মিডিয়ায় জমিয়ে হলেন ট্রোল 6

DCvsRR: পরপর পাওয়া হারে রাজস্থান রয়্যালসের খেলোয়াড়রা সোশ্যাল মিডিয়ায় জমিয়ে হলেন ট্রোল 7

DCvsRR: পরপর পাওয়া হারে রাজস্থান রয়্যালসের খেলোয়াড়রা সোশ্যাল মিডিয়ায় জমিয়ে হলেন ট্রোল 8

DCvsRR: পরপর পাওয়া হারে রাজস্থান রয়্যালসের খেলোয়াড়রা সোশ্যাল মিডিয়ায় জমিয়ে হলেন ট্রোল 9

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *