আগামী ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সীমিত ওভারের সিরিজে মুখোমুখি হতে চলেছে ভারতীয় ক্রিকেট দল। চলবে ১৩ অক্টোবর পর্যন্ত। সিরিজে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া পাঁচটি একদিনের আন্তর্জাতিক ও তিনটি টি-২০ আন্তর্জাতিক ম্য়াচে অংশ নেবে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে হোম সিরিজে পর ঘরের মাটিতে নিউজিল্য়ান্ড ও শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হবে ভারত।

বিশেষজ্ঞ মহলের ধারণা, অস্ট্রেলিয়া সিরিজের পরই মোটামুটি আভাস পাওয়া যাবে, ২০১৯ বিশ্বকাপের জন্য় ভারতীয় দলে কে কে জায়গা পেতে পারেন। বিশ্বকাপ খেলতে ইংল্য়ান্ড রওনা হওয়ার আগে ভারতীয় দলকে ঘঁষেমেজে তৈরি করার জন্য় অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও কোচ রবি শাস্ত্রী প্রায় দেড় বছরের মতো সময় হাতে পাচ্ছেন।

তার আগে নজর রাখা যাক অস্ট্রেলিয়া সিরিজে সম্ভাব্য় পনেরো সদস্য়ের ভারতীয় দলের দিকে –

১. রোহিত শর্মা

সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ভারতীয় ক্রিকেট দলের অন্য়মত গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার। অস্ট্রেলিয়া সিরিজে তাঁকে রাখতেই হবে নির্বাচকদের। শ্রীলঙ্কা সিরিজে পরপর দুম্য়াচে সেঞ্চুরি করে তাঁর অপরিহার্যতা আরও একবার প্রমাণ করে দিয়েছেন ভারতের সহ-অধিনায়ক। তাছাড়া, একদিনের ক্রিকেটে দুটি ডাবল সেঞ্চুরির মালিককে কখনই বিবেচনার বাইরে রাখা যায় না।

২. শিখর ধওয়ন

দশম আইপিএলের পর থেকে ভারতের এই বাঁ-হাতি ওপেনিং ব্য়াটসম্য়ানটি তাঁর জীবনের সেরা ফর্মে রয়েছেন। টপ অর্ডারে ভারতীয় দলের খুব দামি ক্রিকেটার। চ্য়াম্পিয়ন্স ট্রফি ও শ্রীলঙ্কা সফরে ধওয়নের পারফরম্য়ান্সের পর তাঁকে ছাড়া একদিনের ক্রিকেটে ভারতীয় দলকে কল্পনাই করা যায় না।

৩. বিরাট কোহলি

দলের নেতা হওয়ার সঙ্গে ভারতীয় ব্য়াটিংয়ের মূল চালিকা শক্তি। রান তাড়া করে ম্য়াচ জেতায় বিরাটের সমকক্ষ কেউ নেই। অস্ট্রেলিয়া সিরিজেও বিরাটের সোনালি ফর্ম অব্য়াহত থাকবে, এটাই আশা করা যায়।

৪. মণীশ পান্ডে

মনীশ পান্ডে

 

শ্রীলঙ্কায় দুবার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল তাঁকে। দুটি ইনিংসেই তাঁকে মনে রাখার মতো অবদান রেখেছেন। হোম সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তাঁকে স্কোয়াডে রাখা হবে, এনিয়ে কোনও দ্বিমত নেই।

৫. এমএস ধোনি

সত্য়ি কথা বলতে ভারতীয় ক্রিকেটে ধোনির বিকল্প এখনও তৈরি হয়নি। দেশের সর্বকালের সেরা উইকেটকিপার তিনি। এই মুহূর্তে জাতীয় দলে তাঁকে খুব বেশি করে দরকার। টেস্ট থেকে অবসর নেওয়ার পর এখন শুধু ওয়ান-ডে এবং টি-২০ ক্রিকেট খেলেন ধোনি। ফলে, অস্ট্রেলিয়া সিরিজে তাঁকে বিশ্রাম দেওয়ার কোনও প্রয়োজন নেই।

৬. কেদার যাদব

শ্রীলঙ্কায় কেদার যাদব ফর্মের ধারেকাছে ছিলেন না। তবে, একদিনের সিরিজের পঞ্চম তথা শেষ ম্য়াচে তাঁর ব্য়াট থেকে ম্য়াচ উইনিং হাফ-সেঞ্চুরি এসেছে। তাই অস্ট্রেলিয়া সিরিজে তাঁর নির্বাচন হওয়া স্বাভাবিক।

৭. হার্দিক পান্ডিয়া

২০১৯ বিশ্বকাপে ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার অন্য়তম দাবিদার। ভারতীয় দলে বহুকাল ধরে একজন পেস বোলিং অলরাউন্ডারের অভাব ছিল। সেই অভাবটা পূরণ করে দিয়েছেন তিনি। বিশ্বকাপের আগে হার্দিককে তৈরি করে নিতে, তাঁকে  বেশি করে খেলাতে আগ্রহী কোচ এবং অধিনায়ক।

৮. রবীন্দ্র জাদেজা

শ্রীলঙ্কা সিরিজে তাঁকে বিশ্রাম দিয়েছিলেন নির্বাচকরা। অস্ট্রেলিয়া সিরিজে তাঁর ভারতীয় দলে ফেরা নিশ্চিত। টেস্ট সিরিজে ভালো ফর্মে ছিলেন। কিন্তু, দেখার বিষয় সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ফর্মে ফিরতে সেটা কতটা কাজে লাগাতে পারেন জাড্ডু।

৯. কুলদীপ যাদব

কূলদীপ যাদব

এই মুহূর্তে ভারতীয় দলের অন্য়তম উঠতি প্রতিভা। ভারতের প্রথম চায়নাম্য়ান বোলারকে নিয়ে বিসিসিআইও বেশ উদ্য়োগী। তাঁর বাঁ-হাতি রিস্টস্পিন বিশ্বকাপের সময় ইংল্য়ান্ডের পরিবেশে কাজে লাগতে পারে। ফলে, অস্ট্রেলিয়া সিরিজে তাঁর নির্বাচন হওয়া নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

১০. অক্ষর প্য়াটেল

শ্রীলঙ্কা সফরে ভারতীয় দলের সীমিত ওভারের ফরম্য়াটে অক্ষর আবার বিরাটদের ভাবনা-চিন্তায় কামব্য়াক করেছেন। তাঁকে বিশ্বকাপের দলে দেখতে অনেকেই আগ্রহী। পাশাপাশি ব্য়াটিং দক্ষতার জন্য় অস্ট্রেলিয়া সিরিজে ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার অন্য়তম প্রধান দাবিদার অক্ষর।

১১. ভুবনেশ্বর কুমার

বর্তমান ভারতীয় দলে বিরাটের টিমের পেস বিভাগের নেতা ভুবনেশ্বর কুমার। গত দুবছর ধরে তিনি ধারাবাহিকতা দেখিয়ে চলেছেন বল হাতে। খুব একটা বড় অঘটন না ঘটলে ভুবি ২০১৯ বিশ্বকাপে যাচ্ছেনই।

১২. উমেশ যাদব

ভারতীয় দলে বোলিং বিভাগে বিরাটের অন্য়তম সেরা অস্ত্র। শ্রীলঙ্কা একদিনের সিরিজে তাঁকে বিশ্রাম দিয়েছিলেন নির্বাচকরা। অস্ট্রেলিয়া সিরিজে উমেশের দলে ফেরা নিশ্চিত। চ্য়াম্পিয়ন্স ট্রফিতে বল হাতে সফল হয়েছিলেন যাদব।  

১৩. জসপ্রীত বুমরাহ

ওয়ান-ডে ক্রিকেটে স্পেশালিস্ট বোলার। গত বছর অভিষেকের পর থেকে বুমরাহ এখনও পর্যন্ত একবারও হতাশ করেননি। শ্রীলঙ্কায় পাঁচ ম্য়াচে পনেরোটি উইকেট নেওয়া বুমরাহকে অস্ট্রেলিয়া সিরিজের বাইরে রাখা খুব কঠিন নির্বাচকদের পক্ষে।

১৪. যুবরাজ সিং

ব্য়াটিং অর্ডারের চার নম্বর স্থানটা এখনও নড়বড়ে। বিশ্বকাপের আগে এই দুর্বলতাটা মেটানো প্রয়োজন। শ্রীলঙ্কায় লোকেশ রাহুল এই পজিশনে ডাহা ফেল। ফিটনেসের কারণে বাদ পড়ার আগে এবছর চার নম্বর পজিশনে ব্য়াট করেই যুবি নটি ইনিংসে ৩৭২ রান করেছেন। হাতে আর কোনও অপশন না থাকায় অস্ট্রেলিয়া সিরিজে দলে ফিরিয়ে এনে যুবরাজকে আরও একটা সুযোগ দেওয়া যেতেই পারে।

১৫. অজিঙ্কা রাহানে

টেস্ট দল জায়গা পাকা হলেও সীমিত ওভারের ক্রিকেটে রাহানের জায়গা পাওয়া নিয়ে কোনও নিশ্চয়তা নেই। ফর্মে থাকলেও, তাঁকে রিজার্ভ বেঞ্চে বসে কাটাতে হচ্ছে। তবে, ভারতের এই ওপেনিং ব্য়াটসম্য়ানকে যখনই সুযোগ দেওয়া হয়েছে, নিজের প্রতিভার প্রতি সুবিচার করেছেন। শ্রীলঙ্কায় লোকেশ রাহুল ব্য়র্থ হওয়ার পর অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে দলে জায়গা পাওয়া নিয়ে লোকেশ রাহুলের আগে বিবেচনায় রাহানাকে আনা উচিত নির্বাচকদের। ওপেনিং স্লট ফাঁকা না থাকায় মিডল অর্ডারে তাঁকে দেখে নেওয়া যেতে পারে।

SHARE

আরও পড়ুন

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বাধিক সেঞ্চুরির মালিক যে পাঁচ ক্রিকেটার

ক্রিকেটে একজন ব্যাটসম্যানের মানদণ্ড বিচার করার ক্ষেত্রে কোন ব্যাটসম্যান কত সংখ্যক সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তাঁর ক্যারিয়ারে তা অতীব...

দ্বিতীয় ওয়ানডেতে যে তিনটি মাইলফলক স্পর্শ করতে পারেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা

ঘরের মাটিতে জয়রথ যেন থামছেই না টিম ইন্ডিয়ার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সাদা পোশাকে সিরিজ জয়ের পর রঙিন...

স্ট্যাটস: ভারত বনাম ওয়েস্টইন্ডিজ: প্রথম ওয়ানডেতে হতে পারে সাতটি রেকর্ড, রোহিত আর ধবন ইতিহাস বইতে নথিভূক্ত করতে পারেন নিজের নাম

স্ট্যাটস: ভারত বনাম ওয়েস্টইন্ডিজ: প্রথম ওয়ানডেতে হতে পারে সাতটি রেকর্ড, রোহিত আর ধবন ইতিহাস বইতে নথিভূক্ত করতে পারেন নিজের নাম
ভারতীয় দল আর ওয়েস্টইন্ডিজ দলের মধ্যে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ আগামিকাল ২১ অক্টোবর গুয়াহাটির মাঠে...

হ্যাপি বার্থ ডে সেহবাগ: এই ৫টি জিনিস প্রমান করে যে এখনও পর্যন্ত হয়নি বীরেন্দ্র সেহবাগের মত ব্যাটসম্যান

হ্যাপি বার্থ ডে সেহবাগ: এই ৫টি জিনিস প্রমান করে যে এখনও পর্যন্ত হয়নি বীরেন্দ্র সেহবাগের মত ব্যাটসম্যান
বিশ্বের সবচেয়ে আক্রামণাত্মক ওপেনার্সদের একজন বীরেন্দ্র সেহবাগ ৪০তম জন্মদিন পালন করছেন। ক্রিকেট জগত আর ওপেনিংকে নতুন পরিভাষা...

প্রত্যেক উইকেট নেওয়ার পর মিলত ১০ টাকা, ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার পর রাতভর কেঁদেছিলেন এই খেলোয়াড়

প্রত্যেক উইকেট নেওয়ার পর মিলত ১০ টাকা, ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার পর রাতভর কেঁদেছিলেন এই খেলোয়াড়
নিজের দলের হয়ে উইকেট নিতে প্রত্যেক বোলারেরই ইচ্ছে থাকে। পাপু রায় এক এমন বোলার যার জন্য উইকেট...