আশিষ নেহরা

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তিন ম্য়াচের টি-২০ সিরিজে আশিস নেহরাকে সুযোগ দেওয়ায়, নানা মহলে নানা কথা চলছে। হাসি-ঠাট্টা করে অনেকে যেমন বলছেন, দলে বাঁ-হাতি পেসার দরকার যখন, তাহলে কোনও তরুণ ক্রিকেটারকে সুযোগ দেওয়া যেতে পারত, আটত্রিশ বছরের বুড়ো নেহরা কেন দলে? এ তো একেবারে পেছন দিকে হাঁটা। আবার অনেকে অবাক হয়েছেন ইয়ো-ইয়ো টেস্টে নেহরা পাশ করাতে। কারণ, তুলনায় বয়সে ছোটো যুবরাজ-রায়না যেখানে ব্য়র্থ, সেখানে দিল্লির এই পেস বোলার কি করে উতরে গেলেন! এরপরেও তাঁরা সেই এক যুক্তিকেই সমর্থন করছেন, ২০১৯ বিশ্বকাপের দিকে চোখ রেখে ভারত দল গড়ছে যখন, সেই সময়ে নেহরাকে দলে নেওয়ার কোনও মানে হয় না। কিন্তু, সমালোচকদের এই যুক্তি একেবারেই মানতে রাজি নন, ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার বীরেন্দ্র সেহওয়াগ। সমালোচকদের উদ্দেশে তাঁর প্রশ্ন, শচীন তেন্ডুলকর, সনৎ জয়সূর্য চল্লিশ-বিয়াল্লিশ বছর বয়স খেলা চালিয়ে গিয়েছিলেন, তাঁরা যদি পারেন, তাহলে নেহরা কেন পারবেন না?

চলতি সপ্তাহের মাঝামাঝি একটি বেসরকারি টিভি চ্য়ানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বীরু বলেন, ব্য়ক্তিগতভাবে আমি মনে করি, বয়স কোনও ব্য়াপার নয়। বিশ্বকাপ খেলার ক্ষেত্রে কারও বয়সকে ধরতব্যের মধ্যে আনা উচিত নয়। নেহরা যদি ফিট থাকে, দলকে উইকেট পাইয়ে দেয়, কম রান খরচ করে, তাহলে ওকে খেলতে দিতে অসুবিধে কোথায়? এতো আপত্তি কি জন্য? সনৎ জয়সূর্য বিয়াল্লিশ বছর বয়স পর্যন্ত খেলেছিলেন। শচীন তেন্ডুলকর চল্লিশ বছর বয়স পর্যন্ত খেলেছেন। তাহলে আশিস নেহরা কেন খেলবে না, বলতে পারেন?

সেহওয়াগ ও বর্তমান ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির মতো নেহরাও দিল্লির ক্রিকেটার। ফলে, ছোটো বেলা থেকেই তাঁকে চেনেন বীরু। তাঁর মতে নেহরার মধ্যে এখনও অনেক কিছু রয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটকে দেওয়ার জন্য। ছোটোবেলার বন্ধু সম্পর্কে সেহওয়াগ বলেন, অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজে ভারতীয় দলে ওকে অন্তর্ভুক্ত করার খবর কানে আসার পর, আমি মোটেই অবাক হইনি। বরং, খুশি হয়েছি। আমি চাই, দেশের হয়ে ভবিষ্য়তে আশিস আরও ম্য়াচ খেলুক।

উল্লেখ্য, আশিস নেহরা টেস্ট ও একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা না করলেও, এখন শুধু টি-২০ ক্রিকেট খেলেন। শেষবার ভারতের হয়ে আন্তর্জাতিক মঞ্চে টি-২০ ক্রিকেটে অংশ নিয়েছিলেন চলতি বছরের শুরুর দিকে ইংল্য়ান্ডের বিরুদ্ধে। এখনও পর্যন্ত ভারতের হয়ে পঁচিশটি টি-২০ ম্য়াচে নেহরার সংগ্রহ চৌঁত্রিশটি উইকেট।

সাত অক্টোবর থেকে তিন ম্য়াচের টি-২০ সিরিজে অংশ নিচ্ছে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ম্য়াচ রাঁচিতে। সিরিজের দ্বিতীয় ও তৃতীয় ম্য়াচ গুয়াহাটি ও হায়দরাবাদে দশ ও তেরোই অক্টোবর।

টি-২০ সিরিজে দুদলের স্কোয়াড –

ভারত : বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), রোহিত শর্মা (সহ-অধিনায়ক), শিখর ধওয়ন, কেএল রাহুল, মণীশ পান্ডে, কেদার যাদব, দিনেশ কার্তিক, এমএস ধোনি (উইকেটকিপার), হার্দিক পান্ডিয়া, কুলদীপ যাদব, যুজবেন্দ্র চহল, জসপ্রীত বুমরাহ, ভুবনেশ্বর কুমার, আশিস নেহরা, অক্ষর প্য়াটেল।

অস্ট্রেলিয়া : স্টিভ স্মিথ (অধিনায়ক), ডেভিড ওয়ার্নার (সহ-অধিনায়ক), জেসন বেহরেন্ডোরফ, ড্য়ান ক্রিশ্চিয়ান, ন্য়াথান কল্টার-নাইল, প্য়াট কামিন্স, অ্য়ারন ফিঞ্চ, ট্রাভিস হেড, মোজেস হেনরিকে, গ্লেন ম্য়াক্সওয়েল, টিম পেইন, কেন রিচার্ডসন ও অ্য়াডাম জাম্পা।

  • SHARE
    A sports enthusiast and a critic. Journalism is all about being unbiased to create positive influence from negative angle.

    আরও পড়ুন

    বাবা হলেন এই ভারতীয় ক্রিকেটার

    বাবা হলেন ভারতীয় ক্রিকেটের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান চেতেশ্বর পুজারা। এক কন্যা সন্তানের পিতা হলেন তিনি। আর সে...

    ত্রিদেশীয় সিরিজের জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা!

    শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত ট্রাই সিরিজ নিদাহাস ট্রফি জন্য ভারতীয় দল ঘোষণা করল বিসিসিআই। কেমন হল দল একবার দেখে...

    ধোনির দিন শেষ? কি বললেন সৌরভ

    ধোনির দিন শেষ? কি বললেন সৌরভ
    সেই কবেই নেভিল কার্ডাস বলে গেছেন ওয়ান ডে ক্রিকেটে পাজামা ক্রিকেট বলে। ওয়ান ডে ক্রিকেটের জামানায় টেস্ট...

    জয়ের সমস্ত কৃতিত্বই ওর : রোহিত শর্মা

    দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি২০ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে হারার পর ভারতীয় দল আরও দারুণভাবে ফিরে এসে সেঞ্চুরিয়ানের সুপার...

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ

    বিরাটের কাছেই স্পিন খেলা শিখেছি: স্টিভ স্মিথ
    বিশ্ব ক্রিকেটে এই মুহুর্তে তাদের মধ্যে চলছে শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। তা সত্ত্বেও এই দুজনের মধ্যে একে অপরকে সম্মান...