নতুন ট্যাটু করালেন ভারত অধিনায়ক, মুহুর্তে ভাইরাল হলেন সোশ্যাল মিডিয়ায় 1

নতুন ট্যাটু করালেন ভারত অধিনায়ক, মুহুর্তে ভাইরাল হলেন সোশ্যাল মিডিয়ায় 2

ভারতীয় ক্রিকেটের এই প্রজন্মের ক্রিকেটারদের ট্যাটু প্রেম লক্ষ্য করার মতই। অন্যদিক ব্যাট হাতে যেভাবে তিনি দক্ষতার সঙ্গে বোলারদের শাসন করেন তেমনই ভাবে তিনি দক্ষ নিজের শরীরে বিভিন্ন রকম ট্যাটু করাতে। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির ট্যাটু প্রেম সর্বজনবিদিত। নিজের শরীরের বিভিন্ন অংশে ট্যাটু করানো নিয়ে প্রায় অবসেসড ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি, এমনই ট্যাটু প্রেম তার। অনেকের মতে বিরাটের শরীরের ট্যাটুগুলি পরিচয় দেয় বিরাটের আগ্রাসী মনোভাবের। সম্প্রতি বিরাটের ট্যাটু প্রেমের আরেকটি নমুনা দেখা গেল মুম্বাইয়ের এক ট্যাটু পার্লারে। কয়েকদিন আগেই দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষ করে দেশে ফিরেছে ভারতীয় দল।

নতুন ট্যাটু করালেন ভারত অধিনায়ক, মুহুর্তে ভাইরাল হলেন সোশ্যাল মিডিয়ায় 3

দলের বাকি সব সদস্য যখন শ্রীলঙ্কার স্বাধীনতার ৭০ বছর উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় সিরিজ নিদাহাস ট্রফির প্রস্তুতি নিয়ে ব্যস্ত তখন ছুটিতে রয়েছেন বিরাট। শ্রীলঙ্কার এই ত্রিদেশীয় সিরিজ থেকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে তাকে। ক্রমগত ক্রিকেট খেলে ক্লান্ত বিরাট তার এই ছুটিতে নিজের ট্যাটু প্রীতিকে আরও একটু ঝালিয়ে নিলেন। গত শনিবার মুম্বাইয়ের এক নামীদামী ট্যাটু পার্লারে নিজের শরীরে নতুন ট্যাটু করাতে দেখা যায় ভারত অধিনায়ককে। নতুন ওই ট্যাটুটি বিরাট করা্ন তার কাঁধের উপর।

নতুন ট্যাটু করালেন ভারত অধিনায়ক, মুহুর্তে ভাইরাল হলেন সোশ্যাল মিডিয়ায় 4

ট্যাট্য করানোর সময়কার ছবি তুলে তা সোশ্যাল মিডিয়া ইনস্টাগ্রামে পোষ্ট করেন ওই ট্যাটু পার্লারেরই এক কর্মী। ছবিটি পোষ্ট হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তা মুহুর্তে ভাইরাল হয়ে যায় সোশ্যাল মিডিয়ায়। ওই ছবিটি নিয়ে রীতিমতো হইচই পড়ে যায় বিরাটভক্তদের মধ্যে। ফেসবুক টুইটার, ইনস্টাগ্রাম সর্বত্রই ছড়িয়ে পড়ে ছবিটি। বিরাট সমর্থকদের দেখা যায় হুমড়ি খেয়ে ওই ছবির তলার কমেন্টসও করতে। অবশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের এই নতুন ট্যাটুর বিষয়ে মুখ খোলেন নি বিরাট। তবে তার ট্যাটু প্রীতি আরও একবার ভাল মতই বুঝে গিয়েছে ভারতীয় সমর্থকরা।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *