"নিজেকে সান্তনা দিতে শিখুন..." ইনস্টাগ্রামে আবেগঘন বার্তা দিলেন সানিয়া মির্জা !! 1

পাকিস্তানি ক্রিকেটার শোয়েব মালিক (Shoaib Malik) এবং ভারতীয় টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা (Sania Mirza) এখন খবরের শিরোনামে, টেনিস তারকা সানিয়া মির্জা ও পাকিস্তানি ক্রিকেটার শোয়েব মালিকের বিয়ে নিয়ে চলছে আলোচনা। অনেক দিন ধরেই শোয়েবের ডিভোর্সের খবরে ছিলেন সানিয়া।  সূত্রের খবর অনুযায়ী এই দুই তারকার মধ্যে সম্পর্কের বাঁধন ভাঙতে চলেছে, ২০১০ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিল এই দম্পতি, ২০১৮ সালে তাদের জীবনে আগমন ঘটে তাদের সন্তান ইজহান মির্জা মালিকের। কয়েকদিন আগেই  এই দম্পতিকে একসঙ্গে দুবাইতে তাদের সন্তানের জন্মদিন উদযাপন করতে দেখা গেলো। তবে তারপরেই ঘটে গেছে অনেক কিছুই, সানিয়া সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ডিলিট করে দিয়েছে শোয়েবের ফটো, এই ফলে জল্পনা আরও বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে।

ইনস্টাগ্রামে সানিয়া মির্জার বেদনাদায়ক পোস্ট

"নিজেকে সান্তনা দিতে শিখুন..." ইনস্টাগ্রামে আবেগঘন বার্তা দিলেন সানিয়া মির্জা !! 2

ইতিমধ্যেই, সানিয়া মির্জা তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে একটি বেদনাদায়ক পোস্ট শেয়ার করেছেন। সানিয়ার এই পোস্ট নিয়ে চলছে তুমুল আলোচনা। সানিয়া সোশ্যাল মিডিয়াতে বেশ সক্রিয় থাকেন, তিনি ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, “আমরা মানুষ, আলো এবং অন্ধকার দিয়েই তৈরি। নিজেকে ভাঙার আগে নিজেকে যথেষ্ট ভালোবাসুন, যখন আপনার মনে কষ্ট থাকে তখন ঐ দিন গুলিতে নিজেকে সান্ত্বনা দিতে শিখুন।” এই পোস্টের পরে সোশ্যাল মিডিয়াতে আবার শুরু হয়েছে চর্চা।

প্রকাশিত হতে চলেছে নতুন টক শো

"নিজেকে সান্তনা দিতে শিখুন..." ইনস্টাগ্রামে আবেগঘন বার্তা দিলেন সানিয়া মির্জা !! 3

তবে সব কিছুর পরও যেন মানুষই বোকা হয়েছে,  সানিয়া মির্জা ও শোয়েব মালিকের ডিভোর্স নিয়ে যখন চলছিল অনেক কথা এমনকি চলছিল তাদের  বিবাহবিচ্ছেদের কথা তখনই এই দম্পতি তাদের টক শো এর কথা ঘোষণা করলেন। যেটি দেখে একেবারেই অবাক হয়ে গিয়েছে তাদের ভক্তগণ। কিছুদিনের মধ্যেই প্রকাশিত হতে চলেছে সানিয়া মির্জা এবং শোয়েব মালিকের নতুন টক শো যার নাম ‘দ্য মালিক মির্জা শো‘। সানিয়া ও শোয়েব দুজনেই এই শো নিয়ে খুবই উচ্ছ্বসিত। শো সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে সানিয়া বলেছিলেন যে তারা ( শোয়েব ও সানিয়া) একসাথে নতুন কিছু করতে চাইছেন। সানিয়া খেলাধুলার পাশাপাশি মিডিয়াতে কাজ করতে পছন্দ করবেন বলে ঘোষণা করেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.