যুবরাজ সিং অবসরের পর শুরু করলেন এই মহৎ কাজ

ভারতীয় দলের সিক্সার কিং নামে পরিচিত যুবরাজ সিং ১০ জুন ২০১৯ এ অবসর নিয়েছিলেন। তিনি নিজের দুর্দান্ত প্রদর্শনে ভারতীয় দলকে বেশকিছু বড়ো টুর্নামেন্ট জিতিয়েহেন। জানিয়ে দিই যে তিনি ২০০০ সালের আইসিসি চ্যাম্পিয়নশিপ ট্রফি দিয়ে নিজের কেরিয়ারের শুরু করেছিলেন। তিনি ২৩ অক্টোবর ২০০০ এ কেনিয়ার বিরুদ্ধে ডেবিউ করেছিলেন। অবসরের পর তিনি সমাজসেবার সঙ্গে যুক্তি বেশ কিছু ভাল কাজ করছেন।

যুবরাজ শুরু করলেন সেন্টার অফ এক্সিলেন্স

যুবরাজ সিং অবসরের পর শুরু করলেন এই মহৎ কাজ 1

পদ্মশ্রী সম্মানে সম্মানিত ক্রিকেটার যুবরাজ সিং নিজের অবসরের পর নিজের জীবনের আনন্দ উপভোগ করছেন। আর সমাজসেবার সঙ্গে যুক্ত কাজে এগিয়ে এসে অংশ নিচ্ছেন। যুবরাজ সিং শুক্রবার হোলি হার্ট প্রেসিডেন্সি স্কুলে যুবরাজ সিং সেন্টার অফ এক্সিলেন্সের উদ্বোধন করেছেন।

কড়া মেহনতের কোনো বিকল্প নেই

যুবরাজ সিং অবসরের পর শুরু করলেন এই মহৎ কাজ 2

উৎসাহিত ছাত্র আর কর্মচারী ভরা এই সভাকে সম্বোধন করে যুবরাজ সিং বলেন,

“তরুণদের কড়া মেহনত করার, অনুশাসিত থাকা আর খেলার প্রয়াসে সক্রিয় থাকার প্রয়োজন রয়েছে। আমরা বিশ্বস্তরীয় সুবিধা দিচ্ছি। আমি ছাত্রদের এটা বোঝাতে চাই যে কড়া মেহনতের কোনো বিকল্প নেই। পড়াশুনা আর খেলা দুটিতেই সক্রিয় থাকা আবশ্যক। আমি পরামর্শ দিতে চাইব যে, যে কোনো রূপে খেলাকে ছাত্রদের স্কুল জীবনের অংশ করা উচিৎ। ওয়াইএসসিইর উদ্দেশ্য ক্রিকেট আর অন্য খেলার উত্থানের জন্য বিশ্বস্তরীয় সুবিধাগুলিকে প্রদান করানো”।

অবসরের পর আমার জীবন ভাল চলছে

যুবরাজ সিং অবসরের পর শুরু করলেন এই মহৎ কাজ 3

অবসরের পর চলা নিজের জীবনের ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে এবং ১২ নম্বর নীল জার্সির প্রতি ভালবাসার ব্যাপারে কথা বলতে গিয়ে যুবরাজ সিং বলেন,

“অবসরের পর আমার বুক্তিগত জীবন ভাল ছলছে। আমি নিজের পরিবারের সঙ্গে অনেক সময় কাটাই। আমি অনুশাসিত জীবন শৈলীর কারণে নিজের ব্যক্তিগত আর ব্যবসায়িক জীবনকে ম্যানেজ করতে পারছি। আমার জীবন থেকে এখন চাপ অনেক কম হয়ে গিয়েছে। এটা ভাল, কিন্তু আমার নিজের জার্সির কথা মনে পড়ে। এটা আমার শরীরের অংশ, যদিও আমি বলতে পারি যে অবসরের পর আমার জীবন উন্নত হয়েছে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *