যুবরাজ সিং বলেছিলেন যে মহেন্দ্র সিং ধোনি করেননি সমর্থন, একজন আশিস নেহেরা মাহীর সমর্থনে বললেন এই কথা

ভারতীয় দলের তারকা ব্যাটসম্যানদের মধ্যে একজন যুবরাজ সিং সাম্প্রতিক বয়ানে বলেছিলেন যে তিনি সৌরভ গাঙ্গুলীর অধিনায়কত্বে যেমন সমর্থন পেয়েছিলেন তেমনটা মহেন্দ্র সিং ধোনি বা বিরাট কোহলির অধিনায়কত্বে পাননি। কিন্তু তার সতীর্থ আর প্রাক্তন জোরে বোলার আশিস নেহেরার বক্তব্য আলাদা।

যুবরাজ ধোনির অধিনায়কত্বে সবচেয়ে ভালো খেলেছেন

যুবরাজ সিং বলেছিলেন যে মহেন্দ্র সিং ধোনি করেননি সমর্থন, এখন আশিস নেহেরা মাহীর সমর্থনে বললেন এই কথা 1

স্টার স্পোর্টসের সঙ্গে কথাবার্তায় আশিস নেহেরা যুবরাজ সিংয়ের ওই বয়ান নিয়ে বলেন, “যুবরাজ ধোনির অধিনায়কত্বে সবচেয়ে ভালো খেলেছিল, যতদূর আমি যুবরাজের কেরিয়ার দেখেছি যেভাবে ও ২০০৭ আর ২০০৮ এ খেলেছিল তা দুর্দান্ত ছিল। ২০১১য় আমরা দেখেছি যে রোগ সত্ত্বেও ও ধোনির অধিনায়কত্বে সাহসের সঙ্গে খেলেছে। আমার মনে হয় যে ১৬ বছর পর্যন্ত ক্রিকেট খেলার পর প্রত্যেক খেলোয়াড়ের নিজের পছন্দের অধিনায়ক থাকে, আর আমার হিসেবে যুবরাজ ধোনির অধিনায়কত্বে সবচেয়ে ভালো খেলেছে”।

ভারতীয় ক্রিকেটের সবচেয়ে বড়ো ম্যাচ উইনারদের মধ্যে একজন

যুবরাজ সিং বলেছিলেন যে মহেন্দ্র সিং ধোনি করেননি সমর্থন, এখন আশিস নেহেরা মাহীর সমর্থনে বললেন এই কথা 2

যুবরাজ সিং অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ, টি-২০ বিশ্বকাপ আর ওয়ানডে বিশ্বকাপ তিনটি খেতাবই জিতেছে। জানিয়ে দিই যে তিনি ২০০০এ অনুর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপের ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্টের খেতাব জিতেছিলেন। অন্যদিকে ২০১১ বিশ্বকাপেও তিনি ম্যাচ অফ দ্যা টুর্নামেন্ট ছিলেন। তার দুর্দান্ত অলরাউন্ডার প্রদর্শনের সৌজন্যেই ভারত বিশ্বকাপ জিতেছিল।
তিনি ২০১১ বিশ্বকাপের ৯টি ম্যাচের ৮টি ইনিংসে ৯০.৫ এর দুর্দান্ত গড়ে মোট ৩৬২ রান করেছুলেন আর এর মধ্যে তার স্ট্রাইকরেট থেকেছে ৮৬.১৯। তিনি বিশ্বকাপ ২০১১য় মোটি একটি সেঞ্চুরি আর ৪টি হাফসেঞ্চুরি করেছিলেন। তিনি বল হাতেও দুর্দান্ত প্রদর্শন দেখিয়ে ২০১১ বিশ্বকাপে মোট ১৫টি উইকেট নিয়েছিলেন। ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপের একটি ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে যুবরাজ ৬ বলে ৬টি ছক্কাও মারেন। তিনি ওই ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে মাত্র ১২ বলে হাফসেঞ্চুরি করে দিয়েছিলেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *