কেন পাকিস্তান ভারতের চেয়ে ভালো করছে ইংল্যান্ডের মাটিতে? ব্যাখ্যা করলেন সরফরাজ 1

ইংল্যান্ডের মাটিতে চলমান পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে খুবই কঠিন সময় পার করছে বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারতীয় ক্রিকেট দল। প্রথম দুই ম্যাচের সব কটিতে হেরে তৃতীয় টেস্টেই এখন সিরিজ হারের আশংকার মধ্যে পড়েছে দলটি।

প্রচলনা আছে যে, ইংল্যান্ডের মাটিতে এশিয়ান দল গুলো টেস্টে ভালো করতে পারে না। তবে ভারত ও অন্যান্য এশিয়ান দল গুলো ভালো করতে না পারলেও ইংল্যান্ডের মাটিতে ভালো খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে পাকিস্তানের। কিন্তু এই ভালো খেলার রহস্যটা কি?

কেন পাকিস্তান ভারতের চেয়ে ভালো করছে ইংল্যান্ডের মাটিতে? ব্যাখ্যা করলেন সরফরাজ 2

এ ব্যাপারে কথা বলেছেন পাকিস্তানের তিন ফরমেটের বর্তমান অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। তিনি ব্যাখ্যা করেছেন কেন পাকিস্তান ভারতের চেয়ে ভালো করছে ইংল্যান্ডের মাটিতে। সরফরাজ বলেন, “আমি ইংল্যান্ডে দুই বার সফর করেছি এবং উভয়বারই পাকিস্তান দল ভালো খেলেছে। আমার মতে, যে কোনও এশিয়ান দলই ইংল্যান্ডে খেলতে গেলে মুশকিলে পড়ে। ভারতের ক্ষেত্রেও এটি ভিন্ন নয় কারণ সেখানের পরিবেশ খুবই কঠিন।”

কেন পাকিস্তান ভারতের চেয়ে ভালো করছে ইংল্যান্ডের মাটিতে? ব্যাখ্যা করলেন সরফরাজ 3
Getty Images

প্রাক্তন অধিনায়ক মিসবাহ উল হকের নেতৃত্বে ২০১৬ সালে ইংল্যন্ডের মাটিতে চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলে পাকিস্তান। পাবলিক প্রত্যাশার বিপরীত পারফরমেন্স করে, লর্ডস এবং ওভালে জয় তুলে নিয়ে ২-২ ব্যবধানে সিরিজে ড্র করে পাকিস্তান। দলের গুরুত্বপূর্ন সদস্য হিসেবে স্কোয়াডে ছিলেন সরফরাজ।

তিনি যোগ করেন, “আমার ধারণা পাকিস্তানের প্রস্তুতি ভালো ছিল। যদি ইংল্যান্ডে আমার প্রথম সফরের ব্যাপারে কথা বলি, সিরিজ শুরু হওয়ার ২৫ দিন আগে আমরা সেখানে পৌঁছেছিলাম। আমাদের একটি ১০ দিনের ক্যাম্প ছিল এবং এরপর দুইটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছি।”

পাকিস্তান দল ২০১৮ সালে তাদের ইংল্যান্ড সফর শুরু করেছিল দুইটি চারদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ দিয়ে। এরপর আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের একমাত্র টেস্টে পাঁচ উইকেটের জয় তুলে নিয়ে লিসেস্টারসেয়ারে একটি দুইদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে তারা।

কেন পাকিস্তান ভারতের চেয়ে ভালো করছে ইংল্যান্ডের মাটিতে? ব্যাখ্যা করলেন সরফরাজ 4

অধিনায়কত্বে খুব বেশি অভিজ্ঞতা না থাকা সত্ত্বেও, লর্ডসে প্রথম টেস্টে দলকে জয়ে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন সরফরাজ আহমেদ। যদিও তারা লিডসে পরের টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে ম্যাচ হারে, সফরকারীরা ১-১ ব্যবধানে সিরিজ ড্র করার সম্মানজনক ফলাফল অর্জন করতে সক্ষম হয়।

সরফরাজ আরো বলেন, “২০১৮ সালের সফরের ব্যাপার বললে, পাকিস্তান প্রায় তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে এবং এরপর ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছে। একজন খেলোয়াড় এবং অধিনায়ক হিসেবে আমি মনে করি, আমাদের প্রস্তুতি আরো ভালো ছিল। সুতরাং আমরা ভারতের চেয়ে ভালো ফলাফল করেছি।”

Nazmus Sajid

Sports Fanatic!

Leave a comment

Your email address will not be published.