ইংল্যান্ডে ভারতীয় দলের বাস ড্রাইভারও টিম ইন্ডিয়ার ফ্যান, সুরেশ রায়নাকে বললেন ভগবান

ইংল্যান্ডে টিম ইন্ডিয়ার বাস ড্রাইভার জোফ গুডউইন নিজের অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন। এই মুহুর্তে টিম ইন্ডিয়া ইংল্যান্ড সফরে রয়েছে। এর মধ্যে গুডউইন নিজের ড্রাইভিঙের গল্প একটি ভিডিয়োর মাধ্যেম জানিয়েছেন। তিনি গত ২০ বছর ধরে ইংল্যান্ডে টিম ইন্ডিয়ার বাসের ড্রাইভিং করছেন। ১৯৯৯ সালে হওয়া ওয়ার্ল্ডকাপ থেকে তিনি ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন। তখন থেকেই তিনি ইংল্যান্ডে সফর করা দলগুলিকে একস্থান থেকে অন্যস্থানে নিয়ে যাওয়ার কাজ করেন।

গুডউইন ভারতীয় দলকে সবচেয়ে অনুশাসিত দল বললেন
ইংল্যান্ডে ভারতীয় দলের বাস ড্রাইভারও টিম ইন্ডিয়ার ফ্যান, সুরেশ রায়নাকে বললেন ভগবান 1
সম্প্রতি বিসিসিআই একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছে। যেখানে গুডউইন ভারতীয় দলকে দুনিয়ার সবচেয়ে অনুশাসন সম্পন্ন দল বলে অভিহিত করেছেন। ওই ভিডিয়োতে তিনি বলেন, “সকলেই দারুণ ভাল এবং অনুশাসিত থাকেন। প্রথমে অস্ট্রেলিয়া দল খেলার শেষে ড্রিংক করতে থাকত। তারপর তারা চেঞ্জিং রুমে সময় লাগাত। কিন্তু এখন অতটা আর নেই। এই সময় বিশেষ করে ভারত, সবচেয়ে অনুশাসিত, খেলার পর তারা দ্রুত বাইরে আসে। এটা সবচেয়ে দুর্দান্ত একটা দল”। জেজ গুডউইন একটি ঘটনার কথা স্মরণ করেছেন যখন তার স্ত্রী অসুস্থ ছিল এবং সুরেশ রায়না তাকে সাহায্য করার প্রয়াস করেছিলেন। তিনি বলেন, “ লীডসে কিছু বছর আগে সুরেশ রায়না আমাকে তার একটি টিশার্ট নিলাম করারজন্য দিয়েছিলেন। সেই ঘটনা আমি কখনও ভুলতে পারি নি”। গুডউইন আরও একটি কথা খোলসা করে বলেন যে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি কোথায় বসতে পছন্দ করেন। তিনি বলেন, “ কোহলি সামনে বসেন আর এই মহাশয় (চহেলের দিকে ঈশারা করে) আমাকে বুড়ো মানুষ বলে ডাকেন”। আর এর মধ্যেই ওই ভিডিয়োটিতে চহেল পেছন থেকে বলেন, “কারণ আপনি তাই”।
ইংল্যান্ডে ভারতীয় দলের বাস ড্রাইভারও টিম ইন্ডিয়ার ফ্যান, সুরেশ রায়নাকে বললেন ভগবান 2
জেফের ছেলেও ভারতীয় দলের বাস চালিয়েছিলেন। তার দুর্দান্ত কাজের জন্য তিনি ভারত সকারের কাছ থেকে একটি চিঠিও পান। জেফ জানান, “ আমার ছেলে টিম ইন্ডিয়াকে নিয়ে যাচ্ছিল। সেই সময় তেন্ডুলকর বলতেন আপনার বাবা একজন বড় তারকা। সফরের শেষ দিকে আমার ছেলে একজন বড় তারকাও হয়ে গিয়েছিল। ও মাত্র ২১ বছর বয়েসী ছিল এবং ভারত সরকারের তরফ থেকে একটি ধন্যবাদ জানানো চিঠি আমার আর আমার ছেলের নামে এসেছিল”। জেফকে একটি ডাকনাম ‘পাপআই’ নামেও ডাকা হয়। যখন ২০০৪ সালে অস্ট্রেলিয়া দল তার সঙ্গে বাসে করে সফর করছিল তখন অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার ড্যারেন লেম্যান তাকে সবার আগে পাপআই নামে ডেকেছিলেন। তখন থেকেই সকলে তাকে পাপআই নামেই ডাকেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *