ধোনির সঙ্গে কখনো রুম শেয়ার করতে চাইতেন না সেহবাগ, সার্বজনিক করলেন রহস্য

বিশ্বকাপ ২০১১য় ভারত ২৮ বছর পরে বিশ্বকাপ ট্রফি জিতেছিল। এই বিশ্বকাপে ভারতীয় দলের প্রত্যেক খেলোয়াড় নিজেদের পুরো জোশ দেখিয়েছেন তা সে ব্যাটিং হোক, বোলিং হোক বা ফিল্ডিং। ২০১১য় ভারতীয় দলে ওপেনার হিসেবে থাকা বীরেন্দ্র সেহবাগ র্যালপিড ফায়ারে নিজের সতীর্থ খেলোয়াড়ের পোল খুলেছেন।

বীরেন্দ্র সেহবাগ খুললেন শচীন, বিরাট আর রায়নার পোল

ধোনির সঙ্গে কখনো রুম শেয়ার করতে চাইতেন না সেহবাগ, সার্বজনিক করলেন রহস্য 1

র্যা পিড ফায়ার রাউন্ডে বীরেন্দ্র সেহবাগকে যখন প্রশ্ন করা হয় যে তার সময়ে সবচেয়ে বেশি সেলফি কে নিতেন? তো এটা শুনতেই সেহবাগ হুট করেই বিরাট কোহলির নাম নিয়ে নানা যে বিরাট কোহলি ছবি তোলার কোনো সুযোগই ছাড়েননা। এখন বীরেন্দ্র সেহবাগ জানিয়েছেন যে তার সময় দলের সবচেয়ে ভাল ডান্সার আর সবচেয়ে ভাল খাবার কে বানাতেন। এর জবাব শুনতেই সকলেই অবাক হয়ে যাবেন কারণ তিনি আর কেউ নন স্বয়ং ক্রিকেটের ভগবান বলে পরিচিত শচীন তেন্ডুলকর। যখন সেহবাগকে প্রশ্ন করা হয় যে ভারতীয় দলে সবচেয়ে ভাল গান কে গান তো তিনি চেন্নাই সুপার কিংসের হিরো আর ২০১১য় দলকে জেতাতে সহযোগ দেওয়া সুরেশ রায়নার নাম নেন।

এই খেলোয়াড়কে ভয় পান সেহবাগ আর ধোনির সঙ্গে এক ঘরে এই জন্য থাকতে চাননা

ধোনির সঙ্গে কখনো রুম শেয়ার করতে চাইতেন না সেহবাগ, সার্বজনিক করলেন রহস্য 2

এখন জেনে নেওয়া যাক যখন বীরেন্দ্র সেহবাগকে প্রশ্ন করা হয় যে কোন খেলোয়াড়কে পুরো দল ভয় পেতে আর কোন খেলোয়াড়কে তিনি ভয় পেতেন তো সেহবাগ অনিল কুম্বলের নাম নেন কারণ মাঠে তিনি সবসময় চেঁচাতেন আর কুম্বলে ড্রেসিংরুমে প্রবেশ করতেই সব শান্ত হয়ে যেত।
নিজের বন্ধু হরভজনের পোল খুলে সেহবাগ বলেছেন যে হরভজন সেই খেলোয়াড় যিনি প্রত্যেক জায়গায় নিজেকে দেখতে চান। তিনি সবেয়ে বেশি নিজেকে দেখাতে পছন্দ করেন।
প্রাক্তন অধিনায়ক আর ক্যাপ্টেন কুল নামে পরিচিত মহেন্দ্র সিং ধোনি সেই খেলোয়াড় যার সঙ্গে সেহবাগ কোনো মূল্যের রুম শেয়ার করতে চাইতেন না। কারণ এটাই যে ধোনির ফ্যান বেশ খুব বেশি আর তাকে বেশি ভক্তরা সবজায়গায় ফলো করেন।

সৌরভ গাঙ্গুলীর এই বিশেষত্ব, নিজের বন্ধু যুবরাজের করলেন বেইজ্জতি

ধোনির সঙ্গে কখনো রুম শেয়ার করতে চাইতেন না সেহবাগ, সার্বজনিক করলেন রহস্য 3

এই তালিকা জারি রেখে সেহবাগকে প্রশ্ন করা হয় যে গুগলের ব্যবহার সবচেয়ে বেশি কে করেন, তা নিয়ে সেহবাগের জবাব ছিল দাদা অর্থাৎ সৌরভ গাঙ্গুলী কারণ দাদা সমস্ত রেকর্ড জানেন। এখন ভারতীয় দলে রোহিত শর্মা সেই খেলোয়াড় যিনি সবচেয়ে দেরীতে টিম বাসে আসতেন। এখন জানানো যাক বীরেন্দ্র সেহবাগের সময়কার সেই খেলোয়াড় যিনি সবচেয়ে দেরীতে বাসে আসতেন আর তিনি হলেন ভিভিএস লক্ষ্মণ। যখন তার কাছে সম্প্রতি অবসর নেওয়া যুবরাজ সিংয়ের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হয় যে দলে মিউজিকের সবচেয়ে খারাপ টেস্ট কার? তো এই প্রশ্নের জবাবে সেহবাগ যুবরাজের নাম নিয়ে বলছেন যুবরাজের পছন্দের গানে লিরিক্স থাকে না। কিন্তু তার চুটকিগুলি অসাধারণ হত।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *