ধোনি নন বরং এই খেলোয়াড়কে বিশ্বকাপ ২০১১র জয়ের হিরো মানেন বীরেন্দ্র সেহবাগ

২০১১য় ভারতীয় ক্রিকেট দল মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে আইসিসি বিশ্বকাপ খেতাব জিতে কপিলদেবের কৃতিত্বের ২৮ বছর পর পুণরাবৃত্তি করেছিল। ভারত দুর্দান্ত প্রদর্শন করে দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ জয়ী হওয়ার গৌরব হাসিল করেছিল আর অধিনায়ক ধোনি আরো একবার ইতিহাস গড়ে ফেলেছিল।

ধোনির সেই ম্যাচ ফিনিশিং ছক্কা আজো রয়েছে সকলের মনে

কথা যখন ভারতীয় দলের এই ঐতিহাসিক জয়ের করা হয় তো সবাচেয়ে বড়ো নায়ক হিসেবে মহেন্দ্র সিং ধোনির চেহারাই স্বাভাবিকভাবে সকলের মনে চলে আসে।

ধোনি নন বরং এই খেলোয়াড়কে বিশ্বকাপ ২০১১র জয়ের হিরো মানেন বীরেন্দ্র সেহবাগ 1

কারণ এমএস ধোনি সেই ম্যাচ উইনিং ছক্কা কেউই ভুলতে পারেন না যখন ধোনি ছক্কা মেরে ভারতীয় দলের ঝুলিতে বিশ্বকাপ খেতাব এনে দিয়েছিলেন।

ধোনি ফাইনালে এসেছিলেন যুবরাজ সিংয়ের জায়গায় ব্যাটিং করতে

মহেন্দ্র সিং ধোনি শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে হওয়া খেতাবি লড়াইতে দুর্দান্ত ইনিংস খেলে ৯১ রান করেছিলেন আর ভারতীয় দলের হয়ে বিশ্বকাপকে দ্বিতীয়বার জিততে সবচেয়ে বড়ো নায়ক হিসেবে উঠে এসেছিলেন।

ধোনি নন বরং এই খেলোয়াড়কে বিশ্বকাপ ২০১১র জয়ের হিরো মানেন বীরেন্দ্র সেহবাগ 2

যতই ধোনি ম্যাচ উইনিং ইনিংস খেলুন আর জয়ে সবচেয়ে বড়ো যোগদান দিক কিন্তু ওই জয়ী দলের খেলোয়াড় থাকা প্রাক্তন ওপেনিং ব্যাটসম্যান বীরেন্দ্র সেহবাগ এখানে মহেন্দ্র সিং ধোনিকে নয় বরং অন্য কোনো খেলোয়াড়কে জয়ের মাস্টার মাইন্ড মনে করেন।

ধোনির যুবির আগে ব্যাটিংয়ে আসার পেছেন বীরু করলেন বড়ো খোলসা

এখানে এই খেতাবি লড়াইতে প্রত্যেককেই অবাক করে দিয়ে মহেন্দ্র সিং ধোনি ফর্মে থাকা যুবরাজ সিংয়ের আগে পাঁচ নম্বরে ব্যাটিং করতে পৌঁছোন। যদিও এই সিদ্ধান্তকে সকলেই সঠিক মনে করছিলেন না কিন্তু এই সিদ্ধান্ত সফল প্রমান হল যা ভারতের জন্য বিশ্ব বিজেতার গাথা লিখে দেয়।

ধোনি নন বরং এই খেলোয়াড়কে বিশ্বকাপ ২০১১র জয়ের হিরো মানেন বীরেন্দ্র সেহবাগ 3

অধিনায়ক ধোনি এই ম্যাচ জিতে হিরো হন কিন্তু অন্যদিকে বীরেন্দ্র সেহবাগ ধোনির পাঁচ নম্বরে ব্যাটিংয়ের জন্য পাঠানোর পেছনে শচীন তেন্ডুলকরের হাত বলে জানাচ্ছেন আর শচীনকেই বীরু এই জয়ের মাস্টার মাইন্ড বলে অভিহিত করছেন।

ধোনি নন বরং শচীন এই সিদ্ধান্তের মাস্টারমাইন্ড

বীরেন্দ্র সেহবাগ খোলসা করতে গিয়ে বলেন যে ধোনিকে যুবরাজ সিংয়ের জায়গায় পাঠানর পেছনে স্বয়ং ধোনি নন বরং শচীন তেন্ডুলকরের পরামর্শ ছিল।
বীরেন্দ্র সেহবাগ জানিয়েছেন যে,

“যখন গৌতম গম্ভীর আর বিরাট কোহলি ব্যাটিং করছেন তো আমি আর শচীন পাজি ড্রেসিংরুমে এক সঙ্গে বসে ছিলাম”।

ধোনি নন বরং এই খেলোয়াড়কে বিশ্বকাপ ২০১১র জয়ের হিরো মানেন বীরেন্দ্র সেহবাগ 4

বীরু আরো জানান যে,

“সেই সময় আমি আর শচীন ড্রেসিংরুমে কথা বলছিলাম, তখন ধোনি সেখানে আসেন। শচীন ধোনিকে বলেন যে যদি ডানহাতি ব্যাটসম্যান আউট হন তো তুমি ব্যাটিংয়ের জন্য যেও আর যদি বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান আউট হন তো যুবরাজ সিংকে ব্যাটিংয়ের জন্য পাঠিয়ো”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *