কড়া ভাষায় বীরেন্দ্র সেহবাগ জানালেন এই তারকা ক্রিকেটারকে দল থেকে বাদ দিয়ে নেওয়া হোক লোকেশ রাহুলকে

টিম ইন্ডিয়া এবং আয়ারল্যান্ডের মধ্যে চলতি টি২০ সিরিজের দ্বিতীয় তথা শেষ ম্যাচ আজ আবারও ডাবলিনের মাঠেই অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম ম্যাচটিও এই মাঠেই হয়েছিল যাতে ভারতীয় দল ৭৬ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় লাভ করেছিল। এই ম্যাচের পরেই ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন, যে তারা সমস্ত প্লেয়ারকেই সুযোগ দেবেন। এটা এই কারণেই কারণ প্রথম ম্যাচেই প্লেয়িং ইলেভেন নিয়ে বড় বিতর্ক উঠেছিল। কেএল রাহুল এবং দীনেশ কার্তিক সুযোগ না পাওয়ায় সমর্থকরা কোহলিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলও করেন। রাহুল এবং কার্তিক দুজনেই আইপিএলের একাদশ সংস্করণে দুর্দান্ত প্রদর্শন করে দেখিয়েছিলেন।
কড়া ভাষায় বীরেন্দ্র সেহবাগ জানালেন এই তারকা ক্রিকেটারকে দল থেকে বাদ দিয়ে নেওয়া হোক লোকেশ রাহুলকে 1
এখন দ্বিতীয় ম্যাচেও এই বিষয়টি গম্ভীর রূপ ধারণ করেছে যে কোহলি কোন প্লেয়ারকে প্লেয়িং ইলেভেনে গুরুত্ব দেবেন। দ্বিতীয় ম্যাচে কোন প্লেয়ারের জায়গা পাওয়া উচিত এই ব্যাপারে প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার বীরেন্দ্র সেহবাগ নিজের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। সেহবাগের বক্তব্য রাহুলের জায়গা পাওয়া উচিত প্রথম একাদশে। এর জন্য সেহবাগ নামও বলে দিয়েছেন যে কোন প্লেয়ারকে দলের বাইরে বসানো প্রয়োজন। সেহবাগ জানান, “ টিম ইন্ডিয়াকে নিজেদের ওপেনিং জুটি্র (শিখর ধবন রোহিত শর্মা) পরিবর্তন করা উচিত নয়। কিন্তু তৃতীয় নম্বরে রাহুলকে সুযোগ দেওয়া উচিত। ওর দীনেশ কার্তিকের জায়গায় সুযোগ পাওয়া উচিত। চতুর্থ নম্বরে বিরাট কোহলি এবং এমএস ধোনির নামা উচিত। রাহুলের এই জন্য সুযোগ পাওয়া চিত কারণ ও ব্যাটিংয়ে গভীরতা এনে দেবে”।
কড়া ভাষায় বীরেন্দ্র সেহবাগ জানালেন এই তারকা ক্রিকেটারকে দল থেকে বাদ দিয়ে নেওয়া হোক লোকেশ রাহুলকে 2
প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখা ভাল যে প্রথম ম্যাচে না তো রাহুল সুযোগ পেয়েছেন আর না দীনেশ কার্তিক। ভারতীয় দল বাঁ হাতি ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়নার উপর ভরসা রেখেছিল যিনি মাত্র ১০ রান করেছেন প্রথম ম্যাচে। ফলে সেহবাগ রাহুলের উপর বেশি ভরসা রেখেছেন কারণ তার মনে হয়েছে যে এই তরুণ ব্যাটসম্যানের মধ্যে যথেষ্ট প্রতিভা রয়েছে এবং তিনি যে কোনও বোলিং আক্রমণকে তছনছ করে দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন।
কড়া ভাষায় বীরেন্দ্র সেহবাগ জানালেন এই তারকা ক্রিকেটারকে দল থেকে বাদ দিয়ে নেওয়া হোক লোকেশ রাহুলকে 3
এই মুহুর্তে ভারতীয় দল আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ২টি টি২০ ম্যাচের সিরিজ খেলছে, এরপরেই তারা ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিনটি টি২০ ম্যাচের সিরিজ এবং এই সমসংখ্যকই ওয়ানডে ম্যাচের সিরিজ খেলবে। এরপরে ভারত এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলা হবে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *