সেহবাগ ২০০৬ এই সৌরভ গাঙ্গুলীকে নিয়ে করেছিলেন এই ভবিষ্যতবাণী, ১৩ বছর পর হল সত্যি

ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী বিসিসিআইয়ের নতুন সভাপতি হয়ে গিয়েছেন। তিনি ভারতের মাত্র দ্বিতীয় অধিনায়ক যিনি এই পদে আসীন হলেন। ভারতীয় ক্রিকেটের সঙ্গেই পুরো বিশ্বেই সৌরভ গাঙ্গুলীর বড়ো নাম রয়েছে আর এই কারণে তার সভাপতি হওয়ার পর ক্রিকেট সমর্থক আর পন্ডিতরা তাদের কাছ থেকে অনেকটাই আশা রাখছেন।

বীরেন্দ্র সেহবাগ জানালেন বড়ো কথা

সেহবাগ ২০০৬য়েই সৌরভ গাঙ্গুলীকে নিয়ে করেছিলেন এই ভবিষ্যতবাণী, ১৩ বছর পর হল সত্যি 1

ভারতীয় দলের প্রাক্তন ওপেনার বীরেন্দ্র সেহবাগ খোলসা করেছেন যে তিনি অনেক আগেই জেনে গিয়েছিলেন যে দাদা বিসিসিআইয়ের সভাপতি হতে পারেন। ২০০৬ এর দক্ষিণ আফ্রিকা সফরকে স্মরণ করে বীরু ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের নিজের কলামে লিখেছেন,

“যখন আমি প্রথমবার শুনি যে গাঙ্গুলী বিসিসিআইয়ের সভাপতি হতে চলেছেন তো আমার ২০০৭ এর কথা মনে পড়ে যায় যখন আমরা দক্ষিণ আফ্রিকার সফরে ছিলাম। কেপটাইউ টেস্ট চলাকালীন আমি আর ওয়াসিম জাফর দ্রুত আউট হয়ে গিয়েছিলাম। শচীনকে ৪ নম্বরে ব্যাটিং করতে হত কিন্তু উনি যাননি। তখনই গাঙ্গুলীকে চার নম্বরে ব্যাটিং করার জন্য বলা হয়েছে। গাঙ্গুলীর কামব্যাক সিরিজ ছিল আর তার উপর চাপ ছিল, কিন্তু যেভাবে উনি ব্যাটিং করেছিলেন আর চাপকে সামলেছিলেন, সেটা স্রেফ গাঙ্গুলীই করতে পারতেন”।

আরো একটি ভবিষ্যতবাণী করেছিলেন

সেহবাগ ২০০৬য়েই সৌরভ গাঙ্গুলীকে নিয়ে করেছিলেন এই ভবিষ্যতবাণী, ১৩ বছর পর হল সত্যি 2

সৌরভ গাঙ্গুলীর বিসিসিআই সভাপতি হওয়ার ভবিষ্যতবাণীর সঙ্গেই বীরেন্দ্র সেহবাগ সেইদিন আরো একটি কথা বলেছিলেন। তার মতে সৌরভ গাঙ্গুলী পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীও হতে পারেন। যদিও দাদা এখনো পর্যন্ত রাজনীতিতে পা রাখেননি কিন্তু তিনি যদি এমন করেন তো তার জনপ্রিয়তা দেখে তিনি মুখ্যমন্ত্রীও হতে পারেন। বীরেন্দ্র সেহবাগ আগে বলেন,

“ওইদিন আমাদের সমস্ত খেলোয়াড়দের মনে হয়েছিল যে যদি আমাদের খেলোয়াড়দের মধ্যে কেউ বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হতে পারেন তো তিনি হলেন দাদাই। আমি এটাও বলেছিলাম যে একদিন উনি পশিচমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীও হবে। একটা ভবিষ্যতবাণী তো পূর্ণ হয়ে গিয়েছে আরো একটা বাকি রয়েছে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *