। IND vs SA: বিরাট কোহলি এই খেলোয়াড়দের দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পাওয়া জয়ের শ্রেয় 1

ভারতীয় দল বিশ্বকাপ ২০১৯এ নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় হাসিল কর নিয়েছে। ভারতীয় দল দক্ষিণ আফ্রিকাকে এই ম্যাচে ৬ উইকেটে হারিয়ে দিয়েছে। সাউথহ্যাম্পটনে খেলা এই ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথমে ব্যাট করে ২২৭ রান করে। রোহিত শর্মার দুর্দান্ত সেঞ্চুরির সাহায্যে টিম ইন্ডিয়া এই ম্যাচ ৬ উইকেটে জিতে নেয়।

মুশকিল ছিল পিচ

। IND vs SA: বিরাট কোহলি এই খেলোয়াড়দের দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পাওয়া জয়ের শ্রেয় 2

ইংল্যাণ্ডের পিচ ব্যাটসম্যানদের জন্য আগের চেয়ে অনেক সহজ হয়ে গিয়েছে, কিন্তু এই ম্যাচে পিচ তেমনটা ছিল না। এই কারণে অধিনায়ক কোহলি রোহিত শর্মা আর অন্য ব্যাটসম্যানদের জমিয়ে প্রশংসা করেছেন। ম্যাচের পর অধিনায়ক বিরাট কোহলি বলেন,

“অপেক্ষা ভীষণই লম্বা ছিল আর তারপর আপনি এই ধরণের ম্যাচ পান যেখানে এটা চ্যালেঞ্জিং ছিল। আমাদের কাছে রানরেট ছিল না, কিন্তু আপনি যদি দেখেন যে খেলাটা কিভাবে চলেছে আর পিচ কেমন ব্যবহার করে তো এটা চ্যালেঞ্জিং ছিল। রোহিতকে সেলাম, আর ওর আশেপাশে ব্যাটিং করা মানুষদেরও”।

টস জিততাম তো কি করতে?

। IND vs SA: বিরাট কোহলি এই খেলোয়াড়দের দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পাওয়া জয়ের শ্রেয় 3

পিচ মুশকিল ছিল তা সত্ত্বেও দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ফাফ দু’প্লেসি টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। যখন বিরাট কোহলিকে প্রশ্ন করা হয় যে তিনি টস জিততেন তো কি করতেন? এনিয়ে বিরাট বলেন,

“আমরা প্রথমে বোলিং করতে জাচ্ছিলাম। ওরা দুটো ম্যাচ হেরে গিয়েছিল, এই জন্য আপনাকে এটা সুনিশ্চিত করতে হবে যে আপনি প্রথম ১৫ ওভার সঠিক খেলুন। সৎ হওয়ার জন্য জসপ্রীত একটা আলাদা স্তরের বোলিং করছে। চহেলও দুর্দান্ত ছিল। যখন আমি ক্যাচ ধরি তো আমি ১৫ মিনিটের জন্য ব্যাথা অনুভব করছিলাম। নতুন বলের সঙ্গে ও একদম দুর্দান্ত ছিল। দেখেন নি আমলা ওইভাবে আউট হয়! এমনকি কুইন্নি (কুইন্টন ডিকক)ও গতিতে ফেঁসে যায়”।

প্রথম জয় স্পেশাল

। IND vs SA: বিরাট কোহলি এই খেলোয়াড়দের দিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পাওয়া জয়ের শ্রেয় 4

ভারত বিশ্বকাপ ২০১৯এ নিজের প্রথম জয় হাসিল করে। ভারতের সামনে মাত্র ২২৮ রানের লক্ষ্য ছিল কিন্তু শিখর ধবন আর বিরাট কোহলি কিছু বিশেষ করতে পারেননি। এরপর কেএল রাহুল রোহিত শর্মার সঙ্গে ভাল সঙ্গে দেন। বিরাট শেষে বলেন,

“প্রথম জয় সবসময়ই গুরুত্বপূর্ণ হয়। মাঠে আমরা একটা দল হিসেবে আশ্বস্ত ছিলাম। ব্যাটের সঙ্গে আমাদের আক্রমনের কারণে নিজেদের ধরনে কাজ করতে হত।এখান থেকে রোহিতের ইনিংস ভীষণই স্পেশাল থেকেছে। টপ থ্রির মধ্যে থেকে একজনের সেঞ্চুরি এমন, যার উপর আমরা যথেষ্ট নির্ভর করি। কেএল ওর সঞগে ভাল ব্যাটিং করেছে। তখন এমএস দুর্দান্ত কম্পোজিং দেখিয়েছে। হার্দিকও ভাল প্রদর্শন করেছে। ও একটা ভাল হেডস্পেশে রয়েছে”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *