INDvsAUS: ঋষভ পন্থকে প্লেয়িং ইলেভেনে ধরে রাখার জন্য ৫০ গড়ে রান কর এই খেলোয়াড়কে পড়ছেন বাদ 1

ভারতীয় ক্রিকেট দলের তরুণ প্রতিভাবান ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্থ খারাপ ফর্ম সত্ত্বেও নিয়মিত দলের প্লেয়িং ইলেভেনে রয়েছেন। এই মুহূর্তে প্লেয়িং ইলেভেনে ঋষভ পন্থের জায়গা বাঁচানোর ন্য যথা সম্ভব চেষ্টা করা হচ্ছে। এর মধ্যে টিম ম্যানেজমেন্ট, অধিনায়ক আর কোচ সকলেই যুক্ত রয়েছেন, যারা যে কোনো ভাবেই হোক ঋষভ পন্থের জায়গা হারানো দেখতে চাননা।

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ওয়ানডের প্লেয়িং ইলেভেনে ছিলেন না কেদার

INDvsAUS: ঋষভ পন্থকে প্লেয়িং ইলেভেনে ধরে রাখার জন্য ৫০ গড়ে রান কর এই খেলোয়াড়কে পড়ছেন বাদ 2

ভারত আর অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজেও এটা দেখা গিয়েছে যেখানে ঋষভ পন্থকে প্লেয়িং ইলেভেনে জায়গা দেওয়ার জন্য টিম ম্যানেজমেন্ট যে কোনো রিস্ক নিতে প্রস্তুত। মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার অস্ট্রেলিয়া আর ভারতের মধ্যে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ খেলা হয়েছে। এই ম্যাচে ভারতীয় দল নিজেদে রপ্লেয়িং ইলেভেনে কেএল রাহুল, শিখর ধবন আর রোহিত শর্মা, তিনজনকেই সুযোগ দিয়েছিল।

পন্থকে বাঁচানোর জন্য কেদার জাধবকে দেওয়া হয়েছে বাদ

INDvsAUS: ঋষভ পন্থকে প্লেয়িং ইলেভেনে ধরে রাখার জন্য ৫০ গড়ে রান কর এই খেলোয়াড়কে পড়ছেন বাদ 3

এই অবস্থায় এটাই মনে করা হচ্ছিল যে কেএল রাহুল উইকেটকিপিংয়ের দায়িত্ব পালন করতে পারবেন, তো উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্থকে দল থেকে বাদ দেওয়া হবে। যা একটা সঠিক সিদ্ধান্তও হতে পারত, কিন্তু বিরাট কোহলি এমনটা করেননি আর পন্থকে জায়গা দেওয়ার জন্য ছয় নম্বরের দুর্দান্ত ব্যাটসম্যান কেদার জাধবকে বসিয়ে দেওয়া হয়। যখন কেএল রাহুলের ব্যাপারে বলা হচ্ছিল যে তিনি উইকেটকিপিংয়ের দায়িত্ব পালন করতে পারেন তো কেদার জাধব যিনি নিয়মিত ছয় নম্বরে ভালো ব্যাটিং করছিলেন তাকে বাদ দেওয়া বুদ্ধির বাইরে। অর্থাৎ মানা যেতে পারে যে ঋষভ পন্থকে বাঁচানোর জন্য পুরো টিম ম্যানেজমেন্ট একজুট হয়ে গিয়েছে।

ছয় নম্বরে কেদার জাধবের থেকেছে দুর্দান্ত রেকর্ড

INDvsAUS: ঋষভ পন্থকে প্লেয়িং ইলেভেনে ধরে রাখার জন্য ৫০ গড়ে রান কর এই খেলোয়াড়কে পড়ছেন বাদ 4

এখন কেদার জাধবের ছয় নম্বরে খেলা নিয়ে কথা বলে হলে তিনি এখনো পর্যন্ত নিজের কেরিয়ারে যে ৭১টি ম্যাচ খেলেছেন তার মধ্যে তিনি ৩০ বার ছয় নম্বরে খেলেছেন আর তিনি ৫০.৬৩ গড়ে ৯৬২ রান করেছেন। এর মধ্যে ২টি সেঞ্চুরি আর ৩টি হাফসেঞ্চুরি রয়েছে। আর অন্যদিকে কেদারের ওভারঅল কেরিয়ারকে দেখা হলে তার খেলা ৭১টি ওয়ানডে ম্যাচে তিনি ৪২. ৩১ গড়ে ১৩৫৪ রান করেছেন। যার মধ্যে তার সর্বোচ্চ স্কোর হল ১২০ যা তিনি ছয় নম্বরেই করেছেন। কেদারের ছয় নম্বরে খেলে দুর্দান্ত রেকর্ড থেকেছে এরপরও তাকে দল থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। তো সেই সঙ্গে বোলিংয়ের কথা ধরা হলে তিনি ২৭টি উইকেটও নিয়েছেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *