সঞ্জয় মঞ্জরেকর বললেন যদি জিততে হয় বিশ্বকাপ ২০১৯ তো এই ২ খেলোয়াড়ের থেকে বিরাটকে করতে হবে মোহভঙ্গ

ওয়ার্ল্ড কাপের আগে টিম ইন্ডিয়া এই সময় চার নম্বর ব্যাটসম্যানের সন্ধান করছে। ভারত লাগাতার মনীষ পান্ডে আর দীনেশ কার্তিককে সুযোগ দিচ্ছে। তারপরও তাদের পারফর্মেন্স বিশেষ ভালো হয় নি। অন্যদিকে সঞ্জয় মঞ্জরেকর মনে করেন যে টিম ইন্ডিয়াকে এখন অন্যান্য ব্যাটসম্যানদের সুযোগ দেওয়া উচিত।

টিম ইন্ডিয়াকে এখন অন্য বিকল্পের দিকে ধ্যান দেওয়া উচিত
সঞ্জয় মঞ্জরেকর বললেন যদি জিততে হয় বিশ্বকাপ ২০১৯ তো এই ২ খেলোয়াড়ের থেকে বিরাটকে করতে হবে মোহভঙ্গ 1
প্রাক্তণ ক্রিকেটার সঞ্জয় মঞ্জরেকর এশিয়াকাপের পর ভারতের চার নম্বরের ব্যাটিং নিয়ে খোলাখুলি নিজের রায় জানিয়েছেন। তিনি ভারতের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর টুইট করেছিলেন যে ভারত এশিয়া কাপ জিতে নিয়েছে কিন্তু মিডল অর্ডার সমস্যা একই রয়ে গিয়েছে। মিডল অর্ডারে ভরসাযোগ্য ব্যাটসম্যানে সন্ধান জারি রাখা উচিত। এখন সময় এসে গিয়েছে যে আমরা দীনেশ কার্তিক এবং মনীষ পান্ডে ছাড়াও এই নম্বরে জন্য বিকল্পের সন্ধান করি। আমাদের আগামি ওয়ানডে সিরিজে এমনটা করা উচিত।

কেদারের করেছেন সমর্থন
সঞ্জয় মঞ্জরেকর বললেন যদি জিততে হয় বিশ্বকাপ ২০১৯ তো এই ২ খেলোয়াড়ের থেকে বিরাটকে করতে হবে মোহভঙ্গ 2
এছাড়াও তিনি কেদার যাদবের সমর্থন করেছেন। যদিও তিনি পরিস্কার করেছেন যে কেদারও চোট আর ফিটনেসের কারণে পিছিয়ে পড়ছেন। তিনি নিজের দ্বিতীয় টুইটে বলেছিলেন,

“আমার মনে হয় কেদার যাদব নিজের উপযোগী বোলিংয়ের কারণে মিডল অর্ডারের দৌড়ে সবার আগে চলছিল। কিন্তু দুর্ভাগ্য যে ওর ফের চোট লেগে গিয়েছে। এই কারণে ও দৌড়ে আবারও পিছিয়ে গিয়েছে”।

এশিয়া কাপে হয়েছিল পরীক্ষা
সঞ্জয় মঞ্জরেকর বললেন যদি জিততে হয় বিশ্বকাপ ২০১৯ তো এই ২ খেলোয়াড়ের থেকে বিরাটকে করতে হবে মোহভঙ্গ 3
এশিয়া কাপে ভারত ছটি ম্যাচ খেলেছে। এর মধ্যে তিন ম্যাচে দীনেশ কার্তিক চার নম্বরে ব্যাট করার সুযোগ পেয়েছিলেন। মহেন্দ্র সিং ধোনিও এই নম্বরে দুবার ব্যাটিং করেছেন। কিন্তু এই পাঁচটি ম্যাচে কার্তিক বা ধোনি একটাও হাফ সেঞ্চুরি করতে পারেন নি। দীনেশ কার্তিক চার নম্বরে ব্যাট করে ৩৩,৩১, আর ৩৭ রানের ইনিংস খেলেন। ধোনিও এই জায়গায় ব্যাট করে ৩৩ আর ৮ রান করে আউট হন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *