এই খেলোয়াড় স্বয়ং করলেন খোলসা, বললেন আমি মদ খেয়ে কেভিন পিটারসেনের নাম ভেঙে দিয়েছিলাম

কেভিন পিটারসেনের নাম সবসময়ই বিতর্কে থেকেছে। তবে তিনি বেশকিছুবার নিজের কেরিয়ারে স্বয়ং ভুল না করেও ফেঁসে গিয়েছেন। এর মধ্যে তাকে নিয়ে তার সতীর্থ খেলোয়াড় মার্কস ট্রেসকোথিক একটি খোলসা করেছেন। যেখানে ট্রেসকোথিক স্বীকার করেছেন যে একটি সিঙ্গিং শো চলাকালীন তিনি মদ খেলে কেভিন পিটারসেনের নাক ভেঙে দিয়েছিলেন। সেই সঙ্গে তিনি এটাও মেনে নিয়েছেন যে এই বিষয়টির সমাধান হয়ে গিয়েছিল আর পরে সকলে মিলে দারুণ আনন্দ করেছিলেন।

আমি মদ খেয়ে কেভিন পিটারসেনের ভেঙে দিয়েছিলাম নাক

এই খেলোয়াড় স্বয়ং করলেন খোলসা, বললেন আমি মদ খেয়ে কেভিন পিটারসেনের নাম ভেঙে দিয়েছিলাম 1

আসলে ২০০৫ এ অ্যাসেজ সিরিজের পর ইংল্যান্ডের দল পাকিস্তান সফরে ছিল। এই সফরের সঙ্গে যুক্ত একটি ঘটনার উল্লেখ করে মার্কস ট্রেসকোথিক বলেছেন, “আমরা দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ হেরে গিয়েছিলাম আর সিরিজ শেষ হয়ে গিয়েছিল। হোটেলে সেই রাতে কারওকে নাইটসের আয়োজন করা হয়েছিল। এটা স্রেফ খেলোয়াড়দের আর স্টাফেদের জন্য ছিল। কিন্তু সকলেই হারের ফলে যথেষ্ট নিরাশ ছিলেন, এই কারণে স্রেফ আটজন লোকই এই আয়োজনে পৌঁছেছিলেন। আমি, কেভিন পিটারসেন, পল নিক্সন, ম্যাথু হোগার্ডও সেখানে ছিলেন। আমরা খুব বিয়ার আর মদ খাই। ওখানে প্রশ্ন করা হয় যে আমাদের মধ্যে সবচেয়ে ভালো কে গান গায়। আমার মনে নেই কী হয়েছিল, স্রেফ এটা মনে আছে যে আমি নিজের মাথা জোরে কেভিন পিটারসেনের মুখে মারি আর আমার মনে হয় যে আমি ওর নাক ভেঙে দিয়েছি। এরপর পিটারসেন আমাকে মাটিতে ফেলে দিয়েছিল”।

বেশি মদ আপনার সঙ্গে এমনটা ঘটিয়ে দেয়

এই খেলোয়াড় স্বয়ং করলেন খোলসা, বললেন আমি মদ খেয়ে কেভিন পিটারসেনের নাম ভেঙে দিয়েছিলাম 2

মার্কস ট্রেসকোথিক নিজের কথা আগে আরো বলেন, “বেশি মদ আপনার সঙ্গে এমনটা ঘটিয়ে দেয়। তবে আমরা বিষয়টিকে সমাধান করে ফেলেছিলাম। তারপর আমরা হাসতে হাসতে লুটিয়ে পড়তে থাকি। লাহোরের মাঝামাঝি একটি হোটেলের বড়ো হলে বন্ধ দরজার পেছনে কী হচ্ছিল কেউ কিছুই জানে না, সেখানে ওটা আমার জীবনের সবচেয়ে দারুণ কারওকে সিঙ্গিং শো ছিল আর যখন এসব শেষ হয় তো আমরা আটজন সকলেই সেই খালি হলের স্টেজে চড়ে যাই আর আমরা সকলে একসঙ্গে গাইতে শুরু করি”।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এমন থেকেছে মার্কস ট্রেসকোথিকের ক্রিকেট কেরিয়ার

এই খেলোয়াড় স্বয়ং করলেন খোলসা, বললেন আমি মদ খেয়ে কেভিন পিটারসেনের নাম ভেঙে দিয়েছিলাম 3

মার্কস ট্রেসকোথিক ইংল্যান্ড দলের হয়ে ৭৬টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন। যেখানে তিনি ৪৩.৭৯ গড়ে ৫৮২৫ রান করেছেন। অন্যদিকে তিনি নিজের ১২৩টি ম্যাচের ওয়ানডে কেরিয়ারে ৩৭.৩৭ গড়ে ৪৩৩৫ রান করেছেন। তিনি ইংল্যান্ড দলের হয়ে ৩টি টি-২০ আন্তর্জাতিক ম্যাচও খেলেছিলেন। যেখানে তিনি ৫৫.৩৩ গড়ে ১৬৬ রান করেছেন। তিনি নিজের শেষ টেস্ট ম্যাচ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আগষ্ট ২০০৬ এ খেলেছিলেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *