মহেন্দ্র সিং ধোনির অবসর না নেওয়ায় ভারতীয় ক্রিকেটের হচ্ছে এই তিন বড়ো লোকসান

মহেন্দ্র সিং ধোনি বিসিসিআইকে পরিস্কারভাবে বলে দিয়েছেন যে তিনি বর্তমানে অবসর নিচ্ছেন না। যদিওসেই সঙ্গে তিনি বিসিসিআইকে এটাও জানিয়ে দিয়েছেন যে তিনি ওয়েস্টইন্ডিজ সফরের জন্য উপলব্ধ থাকবেন না, কারণ তিনি আর্মি রেজিমেন্টের সঙ্গে কিছু সময় কাটাতে চান। আজ আমরা আপনাদের এমন তিনটি কারণ জানাব যার ফলে বলা যেতে পারে যে এমএস ধোনি অবসর না নেওয়ায় ভারতীয় ক্রিকেটের তিনটি বড়ো লোকসান হচ্ছে।

তরুণ উইকেটকিপারদের জন্য ভারতীয় দলের দরজা বন্ধ

মহেন্দ্র সিং ধোনির অবসর না নেওয়ায় ভারতীয় ক্রিকেটের হচ্ছে এই তিন বড়ো লোকসান 1

এমএস ধোনির অবসর না নেওয়ায় ভারতীয় দল তরুণ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানদের গ্রুম করতে পারছে না। ভারতের কাছে ঈশান কিষাণ, সঞ্জু স্যামসনের মত ভাল উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানও রয়েছেন, কিন্তু ধোনির অবসর না নেওয়ার কারণে এই খেলোয়াড়দের ভারতীয় দলে নির্বাচিত করার জন্য বিবেচিত করা যাচ্ছে না। যদি এমএস ধোনি অবসর নেন তখনই এই খেলোয়াড়দের জন্য ভারতীয় দলের দরজা খুলতে পারে। এমএস ধোনির ২০২৩ বিশ্বকাপ খেলা তো প্রায় অসম্ভবই ব্যাপার। এই অবস্থায় ভারতীয় ক্রিকেটের হিসেবে এটাই ভাল হবে যে এমএস ধোনি অবসর নিয়ে তরুণ খেলোয়াড়দের এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ দিন।

অন্য খেলোয়াড়দের যাচ্ছে ভুল মেসেজ

মহেন্দ্র সিং ধোনির অবসর না নেওয়ায় ভারতীয় ক্রিকেটের হচ্ছে এই তিন বড়ো লোকসান 2

এমএস ধোনির বয়েস ৩৮ বছরেরও বেশি হয়ে গিয়েছে। কিন্তু এখনো পর্যন্ত তার অবসরের কোনো অফিসিয়াল ঘোষণা হয়নি। বিদেশে দেখা যায় যে সাধারণভাবে ক্রিকেটার ৩৪-৩৫ বছর বয়েসেই ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়ে দেন। এর একটা বড়ো উদাহরণ থেকেছেন এবি ডেভিলিয়র্স আর ব্রেন্ডন ম্যাকালাম।
কিন্তু এমএস ধোনি ৩৮এরও বেশি বয়েস হয়ে যাওয়ার পরও অবসর ঘোষণা করেননি। যার ফলে কোথাও না কোথাও ভারতীয় দলের তরুণ খেলোয়াড়দের জন্য একটা ভুল মেসেজ যাচ্ছে। এমনিতেও ক্রিকেটে সবসময়ই একটা প্রবাদ বলা হয়ে থাকে যে অবসর সেই সময়ই নাও যাতে তোমার মানুষ প্রশ্ন করতে পারে যে ভাই অবসর কেন নিচ্ছ। সেই সময় নয় যখন মানুষ বলবে, ভাই অবসর কেন নিচ্ছ না?

ঋষভ পন্থ নিজের জায়গা নিয়ে আশ্বস্ত নন

মহেন্দ্র সিং ধোনির অবসর না নেওয়ায় ভারতীয় ক্রিকেটের হচ্ছে এই তিন বড়ো লোকসান 3

ঋষভ পন্থ এমনিতে তো ভারতীয় দলে গত দু বছর ধরে খেলছেন, কিন্তু এর মধ্যে তার মত প্রতিভাবান খেলোয়াড়কে বেশ কয়েকবার দল আসা এবং বাদ পড়তে হয়েছে। এমএস ধোনির কারণে তাকে ম্যাচে খেলা সত্ত্বেও কিপিং করার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না আর বেশ কয়েকবার তো তাকে ডাগআউটে বসেই ম্যাচ দেখতে হয়। তার জায়গা এখনো পর্যন্ত আশ্বস্ত নয় আর এই বিষয়ের অভাব তার খেলাতেও দেখা যায় আর তার আত্মবিশ্বাস কম হয়ে যাচ্ছে। যদি ঋষভ পন্থের কাছ থেকে তার ১০০ শতাংশ পেতে হয় তো তাকে সম্পূর্ণভাবে লাগাতার সুযোগ দিতে হবে আর কিপিংও করাতে হবে। তখনই তিনি ভবিষ্যতে ভারতীয় দলের হয়ে ভাল প্রদর্শন করতে পারবেন। কিন্তু এটা তখনই সম্ভব যখন এমএস ধোনি ক্রিকেট থেকে অবসর নেবেন।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *