প্রত্যাবর্তনের পর প্রথম তিন ম্যাচে হয়েছিলেন ফ্লপ, চতুর্থ ম্যাচেই তুললেন ঝড়

বর্তমানে বেশ কয়েকজন তরুণ প্রতিভাশালী ক্রিকেটার ভারতীয় দলের হয়ে ডেবিউ করেছেন। এদের মধ্যে অনেকেই প্রথম ম্যাচ থেকে নিজেদের পারফর্মেন্সের কারণে প্রভাবিত করেছেন, অনেকেই ছিটকে গিয়েছেন দল থেকে। এই তরুণদের মধ্যে সবচেয়ে প্রভাবিত করেছেন ভারতীয় দলের ওপেনিং ব্যাটসম্যান পৃথ্বী শ। পৃথ্বী ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে ১১৮.৫০ এর দুর্দান্ত গড়ে এবং ৯৪.০৪ এর দুর্দান্ত স্ট্রাইকরেটে ২৩৭ রান করেছিলেন। ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে তরুণ ব্যাটসম্যান পৃথ্বী শ নিজের ডেবিউ টেস্টেই দুর্দান্ত ১৩৪ রানের সেঞ্চুরি করে নিজের ক্রিকেট কেরিয়ারের শুরুয়াত করেছিলেন। ওয়েস্টইন্ডিজের বিরুদ্ধে ম্যান অফ দ্যা সিরিজও হয়েছিলেন। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজে আহত হয়েছিলেন এই তরুণ ওপেনার। নিজের ফর্ম ফিরে পাওয়ার জন্য লাগাতার সংঘর্ষ করছিলেন তিনি। মুম্বাইয়ের হয়ে সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফি খেলা এই ব্যাটসম্যানের ফর্ম ভালো ছিলনা। কিন্তু গোয়ার বিরুদ্ধে হওয়া এই ম্যাচে এই খেলোয়াড় দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন। সেই সঙ্গে ফর্মেও ফিরেছেন তিনি। গত কিছু ম্যাচে তিনি লাগাতার অসফল ছিলেন।

প্রথমে ব্যাট করে গোয়া ১৪০ রান করে
প্রত্যাবর্তনের পর প্রথম তিন ম্যাচে হয়েছিলেন ফ্লপ, চতুর্থ ম্যাচেই তুললেন ঝড় 1
এই ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে গোয়া নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৪০ রান করে। লক্ষ্যের তাড়া করতে নামা মুম্বাই দলের জয়কে পৃথ্বী শ ভীষণই সহজ করে দেন। পৃথ্বী নিজের ইনিংসে সাতটি ছক্কা আর পাঁচটি চার মারেন। গোয়ার হয়ে সবচেয়ে বেশি রান অমোঘ সুনীল দেশাই করেন। গোয়ার এই অধিনায়ক ৩৮ রানের ইনিংস খেলেছেন।

প্রথম উইকেটের জন্য মুম্বাই দল করেছে ৯৫ রানের পার্টনারশিপ
প্রত্যাবর্তনের পর প্রথম তিন ম্যাচে হয়েছিলেন ফ্লপ, চতুর্থ ম্যাচেই তুললেন ঝড় 2
লক্ষ্য তাড়া করার সময় পৃথ্বী শ আর অধিনায়ক অজিঙ্ক রাহানে প্রথম উইকেটের জন্য ৯৫ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। ভারতীয় দলের তরুণ সেনসেশন পৃথ্বী শ ১৫১.০৬ স্ট্রাইকরেটে রান করেন। যার কারণে দলের জয় ভীষণই সহজ হয়ে যায়। ১২তম ওভারে রাহানে আউট হন।

শ্রেয়স আইয়ার হয়েছেন ফ্লপ
প্রত্যাবর্তনের পর প্রথম তিন ম্যাচে হয়েছিলেন ফ্লপ, চতুর্থ ম্যাচেই তুললেন ঝড় 3
এখনো পর্যন্ত দুর্দান্ত ফর্মে চলা শ্রেয়স আইয়ারের ব্যাট এই ম্যাচে চলেনি। দুটি সেঞ্চুরি করা এই খেলোয়াড় এই ম্যাচে মাত্র ২ রানই করতে পারেন। অন্যদিকে মুম্বাইয়ের আরেক ইন ফর্ম ব্যাটসম্যান সূর্যকুমার যাদব ১৯ বলে ২৪ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে দলকে জেতান। আইপিএলে এই খেলোয়াড়ের ব্যাট থেকে আরো রান হওয়ার আশা রয়েছে।
পৃথ্বী শ যেখানে আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে খেলেন, অন্যদিকে সূর্যকুমার যাদব মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের সদস্য। এছাড়াও শ্রেয়স আইয়ার দিল্লির অধিনায়ক।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *