সুপ্রিম কোর্ট হঠালো আজীবন ব্যান, তো শ্রীসন্থ বললেন এই কথা, বিশ্বকাপের আগে বাড়তে পারে নির্বাচকদের মাথাব্যাথা

সুপ্রিম কোর্ট ভারতীয় দলের জোরে বোলার এস শ্রীসন্থকে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলার সুযোগ দিয়েছে। সুপ্রিমকোর্ট বিসিসিআইয়ের তরফে এই বোলারের উপর লাগানো আজীবনের ব্যান শেষ করে দিয়েছে। জানিয়ে দিই যে কোর্ট বিসিসিআইকে বলেছে যে এই ব্যান নিয়ে আবারো চিন্তাভাবনা করতে। কোর্ট জানিয়েছে যে এব্যাপারে তিন মাসের মধ্যে সিদ্ধান্ত নিতে।

শ্রীসন্থ আদালতের এই সিদ্ধান্তে প্রকাশ করলেন খুশি
সুপ্রিম কোর্ট হঠালো আজীবন ব্যান, তো শ্রীসন্থ বললেন এই কথা, বিশ্বকাপের আগে বাড়তে পারে নির্বাচকদের মাথাব্যাথা 1
শ্রীসন্থের আজীবন নির্বাসন শেষ হয়ে গিয়েছে, কিন্তু তিনি এখনো বিসিসিআইয়ের সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত খেলতে পারবেন না। সুপ্রিম কোর্টের তরফে তিনি ক্লীনচিট তো পেয়ে গিয়েছেন আর ৯০ দিনের ভেতর আশা রয়েছে যে বিসিসিআইয়ের তরফেও তাকে ক্লীনচিট দিয়ে দেওয়া হবে। এমনটা যদি হয় তো তিনি আরো একবার ভারতীয় দলের হয়ে খেলার যোগ্য হয়ে যাবেন। আদালত জানিয়েছে যে বিসিসিআই শ্রীসন্থের পক্ষও শুনুক। এর সঙ্গেই বিচারকরা বলেছেন যে লাইফটাইম ব্যান অনেক বেশি শাস্তি। আদালতের এই সিদ্ধান্ত শ্রীসন্থ খুশি প্রকাশ করেছেন।

আমি আবারো মাঠে নামার জন্য প্রস্তুত
সুপ্রিম কোর্ট হঠালো আজীবন ব্যান, তো শ্রীসন্থ বললেন এই কথা, বিশ্বকাপের আগে বাড়তে পারে নির্বাচকদের মাথাব্যাথা 2
এস শ্রীসন্থ ব্যান সরানোর পর টাইমস নাওকে বলেন,

“আমি আবারো মাঠে নামার জন্য তৈরি। ৯০ দিনের ভেতর বিসিসিআইকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আমার মনে হয় যে এটা খুব বেশিদিন নয়। যখন আমি এতটা অপেক্ষা করেছি, তো আমি আরো খানিকটা অপেক্ষা করতে পারি। আমি লিয়েন্ডার পেজকে নিজের আদর্শ মানি। যখন উনি ৪৫ বছর বয়েসে গ্র্যাণ্ডস্ল্যাম খেলতে পারেন, আশিস নেহেরা ৩৮ বছর বয়েসে বিশ্বকাপ খেলতে পারে তো আমি কি ৩৬ বছর বয়েসে খেলতে পারিনা? আমার প্র্যাকটিস জারি রয়েছে”।

এমনটা ভাবব চোটের পর করছি মাঠে প্রত্যাবর্তন
সুপ্রিম কোর্ট হঠালো আজীবন ব্যান, তো শ্রীসন্থ বললেন এই কথা, বিশ্বকাপের আগে বাড়তে পারে নির্বাচকদের মাথাব্যাথা 3
যখন তাকে প্রশ্ন করা হয় যে এত দীর্ঘ সময় পর ফিরে আসা আপনার জন্য কি সহজ হবে, তখন তিনি বলেন,

“খেলোয়াড়দের মাঠে চোট লাগে আর তারা সেই চোটের কারণে ২-৩ বছর পর্যন্ত খেলা থেকে দূরে থাকেন। আমিও এমনটাই মনে করব, যে আমারও বড়ো আঘাত লেগেছিল। যা থেকে সুস্থ হয়ে আমি ফিরে আসছি”।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *