স্টিভ স্মিথ

১৪ বছর পর কলকাতার ঐতিহাসিক ইডেন গার্ডেন খেলতে নেমেও ভাগ্য বদল হয় নি অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ম্যাচের পর দ্বিতীয় ম্যাচেও হেরে যায় অস্ট্রেলিয়া। এর ফলে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ২-০ তে পিছিয়ে গেল সফরকারীরা। কিন্তু ম্যাচের যখন অর্ধেক শেষ হয় অর্থ্যাৎ ভারতের ইনিংস শেষে বেশ তৃপ্ত ই ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার দলপতি। ভারতের ইনিংস ২৫২ তে থামলে অস্ট্রেলিয়া ভেবেছিল তাড়া খুব সহজে ই এই রান করে ফেলবে। স্মিথ বলেন, “আমরা ২৫০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে বেশ খুশি ছিলাম, ভেবেছিলাম আমরা বোলিংয়ে দারুণ করেছি।”

তিনি স্বীকার করেন যে ভারতের মত দলের বিপক্ষে ভাল ফলাফল পেতে হলে ব্যাটসম্যানদের সবাই মিলে ভাল করতে হবে। বিশেষ করে প্রথম সারির ব্যাটসম্যানদের। কিন্তু রান তাড়া করতে নেমে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম সারির ব্যাটসম্যানরা সেই কাজ করতে ব্যর্থ হোন। প্রথম সারির ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা ই ম্যাচ হারার প্রধান কারন। স্মিথ প্রশংসা করেন স্টোনিশের চমৎকার ব্যাটিং এরও। কিন্তু কেউ তাকে সঙ্গ দিতে না পারার কারনে ই ম্যাচ হারতে হয়। অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক বলেন, “সে অসাধারণ একটি ইনিংস খেলেছে। অন্যান্য ব্যাটসম্যানরা যদিও অনেক বাজে সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং ভারতের মত এত শক্তিশালী দলের বিপক্ষে যেটা করা কখনই উচিত নয়। স্টোনিশ এক প্রান্ত থেকে দারুণ খেলেছে শেষ পর্যন্ত, শুধু প্রয়োজন ছিল কোনো একজন তার সাথে শেষ পর্যন্ত ক্রিজে থেকে ব্যাট করার। আমাদের প্রথম চার জন ব্যাটসম্যানদের কোনো একজনের প্রয়োজন ছিল ক্রিজে থাকা এবং শত রানের একটি ইনিংস খেলে আসা। কিন্তু তারা প্রেসার সিচুয়েশনে বাজে সিদ্ধান্ত নিয়ে আউট হয়ে এসেছে। ভারতকে ২৫০ রানের মধ্যে বেধে ফেলা বেশ ভালো ছিল।”

স্মিথ বলেন ম্যাচ জিতার জন্য তাদের ভাল পার্টনারশিপ দরকার ছিল, যেমন এই ম্যাচ এবং প্রথম ম্যাচে ভারতের ইনিংসে ছিল। কিন্তু প্রথম ম্যাচের মত এই ম্যাচেও অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসে কোন কার্যকরী পার্টনারশিপ গড়ে উঠে নি। স্মিথ বলেন, “শুধু প্রয়োজন কিছু বড় পার্টনারশিপ তৈরি করতে পারা। যদি আমরা সেটা করতে পারি তাহলে এধরনের টোটাল আমরা খুব সহজেই চেজ করে ফেলতে পারবো। তারা সব কিছু হাতের কাছে তৈরি হিসেবেই পেয়েছিল, তাই নয় কি?” ম্যাচ শেষে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক। এর আগে ইন্ডিয়ান চেম্বার অফ কমার্সের সাথে এক মত বিনিময় সভায় ভারতের মাটিতে একটি সিরিজ জয়ের ইচ্ছার কথা জানান অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক। বলেন, এটা অনেক বড় উত্তেজনা এবং তা অনেক দিন ধরে ই চলছে। একজন অধিনায়ক হিসেবে আপনি অবশ্য ই ভারতে একটি সিরিজ জিততে পছন্দ করবেন। এখানে আসা এবং খেলা অনেক বড় একটি বিষয়। উইকেট গুলো অনেক ভিন্ন এবং খেলাটা অনেক উপভোগের বিষয়। হোক ওয়ানডে কিংবা টি-টুয়েন্টি কোন পার্থক্য নেই।”

  • SHARE
    A Cricket enthusiast who is pursuing his passion.

    আরও পড়ুন

    ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের স্টিভ হার্মিসন করলেন সাবধান, বললেন এই ভারতীয় বোলার থেকে সাবধান

    ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের স্টিভ হার্মিসন করলেন সাবধান, বললেন এই ভারতীয় বোলার থেকে সাবধান
    ইংল্যান্ডের প্রাক্তন জোরে বোলার স্টিভ হার্মিসন ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের সতর্ক করলেন। আসলে তিনি ক্রিক ইনফোকে দেওয়া নিজের একটি...

    ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের প্রদর্শন দেখে কুমার সাঙ্গাকারা হলেন গদগদ, বলে দিলেন এত বড় কথা

    তৃতীয় টেস্টে ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা অনেকটাই নিজেদের শক্তি প্রদর্শন করলেন একথা অস্বীকার করা যায় না। এটাই মনে করেন...

    ইংল্যান্ড বনাম ভারতঃ ঋষভ পন্থের টেস্টে ভালো অভিষেক দেখে প্রশংসা করলেন সৌরভ গাঙ্গুলী

    ভারতের অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী তরুণ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ঋষভ পন্থের প্রশংসা করেছেন এবং তাঁর থেকে একটি ভালো ইনিংস...

    ইংল্যান্ড বনাম ভারত: বিরাট আর রাহানের ইনিংসে উপর ভারি পড়ল ঋষভ পন্থের প্রথম বলে ছয়, তারকারা করলেন প্রশংসা

    ইংল্যান্ড বনাম ভারত: বিরাট আর রাহানের ইনিংসে উপর ভারি পড়ল ঋষভ পন্থের প্রথম বলে ছয়, তারকারা করলেন প্রশংসা
    ভারত আর ইংল্যান্ডের মধ্যে টেস্ট সিরিজের তৃতীয় টেস্ট ম্যাচ খেলা চলছে। এই টেস্ট ম্যাচে ইংল্যান্ড অধিনায়ক জো...

    ইংল্যান্ড বনাম ভারত: স্ট্যাটস: প্রথম দিন হল মোট সাতটি রেকর্ড, সেঞ্চুরি হাতছাড়া হওয়ার পরও বিরাট পেছনে ফেলে দিলেন গাঙ্গুলী

    ইংল্যান্ড বনাম ভারত: স্ট্যাটস: প্রথম দিন হল মোট সাতটি রেকর্ড, সেঞ্চুরি হাতছাড়া হওয়ার পরও বিরাট পেছনে ফেলে দিলেন গাঙ্গুলী
    ইংল্যান্ড টিম ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্ট ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয়। তৃতীয় টেস্টে ভারতের...