সিরিজ শুরুর আগে ভারতীয় বোলারদের উদ্দেশ্যে পরোক্ষে হুঁশিয়ারি দিলেন স্টিভ স্মিথ 1

আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সিরিজে ভারতীয় বোলারদের পক্ষে চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারেন অস্ট্রেলিয়ার তারকা ব্যাটসম্যান স্টিভ স্মিথ, এমনটাই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সদ্য সমাপ্ত আইপিএল এ একেবারেই পারফর্ম করতে না পারলেও অস্ট্রেলিয়ার হয়ে বেশ ভালো ফর্মে রয়েছেন স্মিথ। আর ভারতের বিরুদ্ধে বরাবরই জ্বলে ওঠেন এই ডান হাতি তারকা। এবার আসন্ন সিরিজের আগে ভারতীয় বোলারদের উদ্দেশ্যে রণহুঙ্কার ছাড়লেন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক।

Australia v India: Steve Smith century leads Australian charge on day one

গত নিউজিল্যান্ড সিরিজে অস্ট্রেলিয়া ৩-০ ব্যবধানে জিতলেও কিউই বাঁ হাতি পেসার নিল ওয়াগনার সমস্যায় ফেলে দিয়েছিলেন স্মিথকে। বারংবার শর্ট পিচ বোলিংয়ে স্মিথকে আউট করছিলেন ওয়াগনার। পাঁচ বারের সাক্ষাতে ওয়াগনার চারবার আউট করেছেন স্মিথকে। আর বিশ্ব টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে তিন নম্বরে থাকা এই পেসারকে নিয়ে জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে স্টিভ স্মিথ বলেছেন, “গত টেস্ট সিরিজ দেখলে বোঝা যাবে, ওয়াগনার আমার থেকে উপরে ছিলেন, উনি যেটি করেন সেটিতেই ভালো। উনি এমন কিছু স্কিলে পারদর্শী যা অনেক মানুষ করতে পারেন না এবং দীর্ঘ সময় ধরে উনি এই কাজটি করে যাচ্ছেন। যদিও আমার কিছু অবদান ছিল সিরিজটায়, তবে আমার স্ট্রাইক রেট কম ছিল। কিন্তু এটাই টেস্ট ক্রিকেটের সৌন্দর্য। আপনি যতক্ষণ ইচ্ছা ব্যাট করতে পারবেন এবং পার্টনারশিপ গড়তে পারবেন আর আমি তাই করেছিলাম।”

Australia vs New Zealand: Steve Smith Gets Off The Mark After 39 Balls, Neil  Wagner's Hilarious Reaction. Watch | Cricket News

আশা করা যাচ্ছিল, নিল ওয়াগনারের মতই জসপ্রীত বুমরাহ এবং মহম্মদ শামি নিজেদের দুরন্ত গতি নিয়ে একইভাবে সমস্যায় ফেলবেন স্মিথকে।কিন্তু সেই আশায় জল ঢেলে কার্যত ভারতীয় বোলারদের সাবধান করে দিলেন স্মিথ। সেই সাক্ষাৎকারে স্মিথ আরও বলেছেন, “যদি বাকিরা এই একই মনোভাব নিয়ে আসেন তাহলে তা ভালো, কিন্তু সেটি নিল ওয়াগনারের মত হবে না, কারণ উনি অন্যভাবে বোলিং করেন। আমার মনে হয় আপনি যে শর্ট পিচ বোলিংয়ের বিষয়ে কথা বলছেন অর্থাৎ যে পরিকল্পনা বাকিরা নিতে পারেন, সেটি যথেষ্টই অদ্ভুত কারণ মানুষ বিশ্বাস করে যে ঐভাবেই আমাকে আউট করা যাবে যেখানে বাকি সকল অপশনই হাতছাড়া হয়ে গিয়েছে। আর এটি জেনে আমার মধ্যে আত্মবিশ্বাস অনেকটাই বেড়েছে।”

Leave a comment

Your email address will not be published.