এই বিষয়ে অনিল কুম্বলে আর বিরাট কোহলি হলেন সহমত, একা পড়লেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ

ভারতীয় দলে প্রাক্তন প্রধান কোচ থেকে অনিল কুম্বলে আর অধিনায়ক বিরাট কোহলির মধ্যে বিতর্ক যথেষ্ট চাঞ্চল্য ছড়িয়েছিল, যারপর অনিল কুম্বলে কোচের পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন। কিন্তু একটি নতুন বিষয় রয়েছে, যা নিয়ে বিরাট কোহলি আর অনিল কুম্বলে দুজনেই একই ভাবনা রাখেন।

এখানে বিরাট কোহলি আর কুম্বলে সহমত, সৌরভের ভাবনার সঙ্গে সহমত নন

এই বিষয়ে অনিল কুম্বলে আর বিরাট কোহলি হলেন সহমত, একা পড়লেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ 1

এই বিষয়টি হল ভারতে টেস্ট কেন্দ্রের যেখানে বিরাট কোহলি আগেও বেশ কয়েকবার নিজের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন আর বলেছেন যে ভারতের প্রধান টেস্ট কেন্দ্রেগুলিই টেস্ট ম্যাচের আয়োজনের দায়িত্ব পেলে অনেক বেশি সংখ্যক দর্শক মাঠে যাবেন। যেমনটা কি এই দুজনের মত যে উৎসবের অনুসারে ভারতে টেস্ট কেন্দ্রগুলিকে টেস্ট ম্যাচ ভাগ করে এওয়া হোক, যার মধ্যে নতুন বছরে কলকাতায় টেস্ট হোক তো পোঙ্গলের উৎসবের সময় চেন্নাইকে টেস্ট ম্যাচের আয়োজনের দায়িত্ব দেওয়া হোক। এই একই ভাবনা অনিল কুম্বলেরও।

অনিল কুম্বলে আর বিরাট কোহলি দুজনের পাঁচটি টেস্ট কেন্দ্রের সমর্থনে

এই বিষয়ে অনিল কুম্বলে আর বিরাট কোহলি হলেন সহমত, একা পড়লেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ 2

অনিল কুম্বলে ক্রিকেট নেক্সটকে দেওয়া ইন্টারভিউতে বলেছিলেন যে, “আমার মনে হয় যে টেস্ট ক্রিকেটকে উৎসাহ দেওয়ার নিশ্চিতভাবে এটা একটা উপায়। এগুলিকে টেস্ট কেন্দ্র পর্যন্ত সীমিত করা উচিত আর সেই সঙ্গেই টেস্ট ম্যাচের সময়কে বাছাও গুরুত্বপূর্ণ হয়। আমরা সকলেই জানি যে উৎসবের সময় পোঙ্গল চলাকালীন টেস্ট ম্যাচ চেন্নাইতে হত আর মরশুমের শুরুর সময় দিল্লি আর ব্যাঙ্গালুরুতে টেস্ট ম্যাচ হত, মুম্বাই আর কলকাতায় বছরের শুরুতে টেস্ট ম্যাচ হত। আমার মনে হয় যে টেস্ট ক্রিকেটের জন্য এই কেন্দ্রগুলিকে উৎসাহ দেওয়াও গুরুত্বপূর্ণ যাতে মানুষ জানবে যে এগুলো টেস্ট কেন্দ্র। এতে সেশনের শুরুতে জানা যাবে যে এখানে টেস্ট ম্যাচ হবে যাতে আপনি টেস্টের জন্য টিকিট বেচতে পারেন আর সুনিশ্চিত করতে পারেন যে দর্শক ম্যাচ দেখতে যাবেন”।

ভারতে গত কিছু বছরে বেড়েছে টেস্ট কেন্দ্র

এই বিষয়ে অনিল কুম্বলে আর বিরাট কোহলি হলেন সহমত, একা পড়লেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ 3

এটা তো আমরা পরিস্কার দেখতে পাচ্ছি যে গত কিছু বছর ধরে বিসিসিআই টেস্ট কেন্দ্র নিয়ে রোটেশন পলিসি গ্রহণ করছে যেখানে নতুন নতুন মাঠকে টেস্টে ম্যাচের আয়োজনের দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে। যেখানে সম্প্রতিই দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজে বিশাখাপট্টনম, পুণে আর রাঁচিতে টেস্ট ম্যাচ খেলা হয়েছিল, যা এক সময় টেস্ট কেন্দ্র ছিল না। এটা নিয়ে দর্শক সংখ্যা কম হওয়ায় বিরাট কোহলি নিজের পরামর্শ দিয়েছিলেন আর ভারতেও পাঁচটি প্রধান টেস্ট কেন্দ্রকে বেছেছিলেন। আর বলেছিলেন যে ইংল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়ার মত পাঁচয়টি কেন্দ্রেই টেস্ট ম্যাচ হওয়া উচিৎ।

সৌরভ গাঙ্গুলী পাঁচের বেশি টেস্ট মাঠের সমর্থনে
এই বিষয়ে অনিল কুম্বলে আর বিরাট কোহলি হলেন সহমত, একা পড়লেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ 4

যদি অন্য বড়ো টেস্ট খেলিয়ে দেশের কথা ধরা হয় ত ইংল্যান্ড হোক বা অস্ট্রেলিয়া, সেখানে টেস্ট ম্যাচ তাদের বড়ো কেন্দ্রগুলিতেই হয় যেখানে ওখানে পাঁচটি প্রধান মাঠ হয়। সেরকমটাই দক্ষিণ আফ্রিকা আর নিউজিল্যান্ডেও হয়ে থাকে। তো অন্যদিকে যদি ভারতের কথা বলা হয় তো বিসিসিআইয়ের নতুন সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী পাঁচটি কেন্দ্রে টেস্ট ম্যাচ সীমিত করার সমর্থন করেন না, অন্যদিকে ভারতে এখনো পর্যন্ত ২৭টি মাঠে টেস্ট ম্যাচ খেলা হয়েছে, যা বিশ্বের সবচেয়ে বেশি। গত কিছু বছরে তো ভারতে বেশ কিছু নতুন টেস্ট কেন্দ্র তৈরি হয়েছে। ছোটো শহরে টেস্ট ম্যাচের আয়োজনের দায়িত্ব দেওয়ায় দর্শক সংখ্যাতেও কমতি দেখা দিচ্ছে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *