ভারতীয় টিম ম্যানজেমেন্টের একটি পুরোনো রোগ রয়েছে। রোগ এটাই যে কোনো খেলোয়াড়কে দলে নির্বাচিত তো করা হয়, কিন্তু তাকে ডেবিউ করার সুযোগও না দিয়ে তার ক্রিকেটিয় ক্ষমতাকে খারাপ করতে টিম ম্যানেজমেন্টের ভূমিকা যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। এই ধরণের সাম্প্রতিক উদাহরণ তরুণ খেলোয়াড় শুভমান গিলের যিনি গত দীর্ঘ সময় ধরে টেস্ট দলে তো শামিল রয়েছেন, কিন্তু ম্যানেজমেন্ট তাকে এখনও পর্যন্ত ডেবিউ করারও সুযোগ দেয়নি।

ডেভিউর অপেক্ষায় শুভমান গিল

গত ১ বছর ধরে ভারতীয় দলের অংশ এই তরুণ খেলোয়াড়, কিন্তু পাচ্ছেন না ডেবিউর সুযোগ 1

পাঞ্জাবের ফাজিলকার বাসিন্দা ২১ বছর বয়সী তরুণ শুভমান গিল সীমিত ওভারের ক্রিকেটে নিজের ডেবিউ ৩১ জানুয়ারি ২০১৯ এ হ্যামিলটনে নিউজিল্যান্ডে করেছিলেন। টি-২০ আর আইপিএলে তিনি নিজের কেরিয়ার শুরু ২০১৮য় কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে করে ফেলছিলেন। যদি ক্রিকেটের দীর্ঘ ফর্ম্যাটের কথা বলা হয় তো তিনি গত প্রায় ১ বছরেরও বেশি সময় ধরে টেস্ট দলের সঙ্গে রয়েছেন, কিন্তু এখনও পর্যন্ত তাকে ৫ দিনের ক্রিকেটে সুযোগ দেওয়া হয়নি। আর কেনও এমন হচ্ছে তার জবাবও টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে নেই।

ফার্স্টক্লাস ক্রিকেটে দুর্দান্ত প্রদর্শন

গত ১ বছর ধরে ভারতীয় দলের অংশ এই তরুণ খেলোয়াড়, কিন্তু পাচ্ছেন না ডেবিউর সুযোগ 2

যদি তার প্রদর্শনের এবং টেস্টে তাঁর ডেবিউ না হওয়ার কারণের কথা বলা হলে দীর্ঘ ফর্ম্যাটে এই পাঞ্জাবের তরুণ এখনও পর্যন্ত ২২টি ফার্স্টক্লাস ম্যাচে ৬৯.৭৪ গড়ে মোট ২১৬২ রান করেছেন।

এই ফার্স্টক্লাস ম্যাচে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে গিল ৭টি সেঞ্চুরি আর ১০টি হাফসেঞ্চুরিও করেছেন। তার এক ইনিংসে সর্বাধিক ব্যক্তিগত স্কোর ২৬৮ রান। এই প্রদর্শনের পরও যদি তাকে গত এক বছর ধরে টেস্টে ডেবিউর সুযোগ না দেওয়া হয়ে থাকে তো টিম ম্যানেজমেন্টের উপর প্রশ্ন তো উঠবেই যে কেনও তারা নতুন আর প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের নষ্ট করছেন।

১৭ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে টেস্ট সিরিজ

গত ১ বছর ধরে ভারতীয় দলের অংশ এই তরুণ খেলোয়াড়, কিন্তু পাচ্ছেন না ডেবিউর সুযোগ 3

ভারত আর অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে বর্ডার-গাভাস্কার টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্ট অ্যাডিলেড ওভালে ১৭ ডিসেম্বর খেলা হবে। এই ম্যাচ ডে-নাইট টেস্ট ম্যাচ হবে যা গোলাপি বলে খেলা হবে। টেস্ট সিরিজের আগে দুই দল টি-২০ আর ওয়ানডে সিরিজে খেলেছে।

ওয়ানডে সিরিজে অস্ট্রেলিয়া ২-১ ফলাফলে জেতে তো অন্যদিকে টি-২০ সিরিজে পালটা দিয়ে ভারতীয় দল ২-১ ফলাফলে সিরিজ জিতে নেয়। কিন্তু সীমিত ওভারের এই দুই সিরিজের চেয়ে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ হবে ৪টি টেস্ট ম্যাচের বর্ডার-গাভাস্কার টফি। ভারত গতবার জেতা নিজেদের এই টেস্ট সিরিজ বাঁচাতে মাঠে নামবে তো অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়াও ভারতের থেকে এই ট্রফি ফেরত নিতে চাইবে।

suvendu debnath

কবি, সাংবাদিক এবং গদ্যকার। শচীন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারার অন্ধ ভক্ত। ক্রিকেটের...

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *