সুনীল গাভাস্কারকে নিয়ে বাজে টুইট করায় নেটিজেনকে সরাসরি আক্রমণ শেল্ডন জ্যাকসনের 1
Sheldon Jackson. (File Photo: IANS)

রঞ্জি ট্রফি তথা ভারতীয় ঘরোয়া ক্রিকেটের অতি পরিচিত নাম শেল্ডন জ্যাকসন। গত বছর সৌরাষ্ট্রকে রঞ্জি ট্রফি চ্যাম্পিয়ন করতে বড় ভূমিকা নিয়েছিলেন এই অভিজ্ঞ ডান হাতি ব্যাটসম্যান। পাশাপাশি আইপিএল এ কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়েও খেলেছিলেন শেল্ডন। কিংবদন্তী ওপেনার সুনীল গাভাস্কারের অত্যন্ত বড় অনুরাগী জ্যাকসন। এর আগে একাধিকবার সংবাদমাধ্যমে কিংবা সোশ্যাল মিডিয়ায় গাভাস্কারের খেলা ও ধারাভাষ্য নিয়ে কথা বলেছেন। এবার আবারও তিনি সুনীল গাভাস্কারের ধারাভাষ্য নিয়ে প্রশংসার বানী দিলেন।

Sheldon Jackson quits Saurashtra for Puducherry | Cricket News - Times of India

দুদিন আগে কলকাতা নাইট রাইডার্স বনাম রাজস্থান রয়্যালস ম্যাচের পর সুনীল গাভাস্কারের ধারাভাষ্যের প্রশংসা করে শেল্ডন টুইটারে লিখেছিলেন, “সুনীল গাভাস্কার স্যারের কমেন্ট্রি একেবারে খাঁটি সোনা, অনেক কিছু শেখা যায় এখান থেকে।”

কিন্তু আজকের দিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনও কিছু পোস্ট হলে নেটিজেনদের অনেকেই সেটির অন্য মানে বের করে এই নিয়ে ফুটেজ খেতে ব্যস্ত থাকে। আর এবার শেল্ডনের পোস্ট নিয়েও জল্পনা তৈরি করেছিলেন এক নেটিজেন। রঞ্জি ট্রফিতে দুর্দান্ত পারফর্ম করা সত্ত্বেও ভারতীয় দলে তিনি কখনই জায়গা পাননি। আর তাই ভারতীয় দলে জায়গা পাওয়ার জন্যই কি সুনীল গাভাস্কারের এমন প্রশংসা করেছেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের এই প্রাক্তনী? এই প্রশ্ন তুলে শেল্ডনের টুইটের জবাবে এক নেটিজেন লেখেন, “ভারতীয় দলে জায়গা পেতে গেলে ওনার আশীর্বাদ তো জরুরি।”

সাধারণত এই ধরণের জল্পনামূলক টুইটের জবাব দেওয়া থেকে বিরতই থাকেন অধিকাংশ ক্রিকেটার। কিন্তু নিজের প্রিয় ক্রিকেটারের সম্বন্ধে এই ধরণের আলোচনা পছন্দ হয়নি শেল্ডনের। আর তাই এই নেটিজেনের এমন টুইটের জবাব দিলেন একেবারে সহজ ভাষায়। কথিত ভাষায় যা প্রচলিত, “মিষ্টি মুখে জুতো মারা”। নেটিজেনের সেই টুইটের জবাবে শেল্ডন লিখেছেন, “বলা বাহুল্য, আমার শুধু আমার মায়ের আশীর্বাদই প্রয়োজন আর জন্ম থেকেই আমি তা পেয়ে আসছি। যদি সেটি কাজ না করে তাহলে কোনও কিছুই কাজ করবে না।”

বলা বাহুল্য, সুনীল গাভাস্কারকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ধরণের মন্তব্য নতুন নয়। সপ্তাহখানেক আগেই রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর বনাম কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ম্যাচে বিরাট কোহলির ব্যর্থতা নিয়ে সুনীল গাভাস্কারের মন্তব্যকে বিকৃত করে তাকে একনাগাড়ে আক্রমণ করা হয়েছে। এমনকি, কিংবদন্তী এই ভারতীয় ওপেনারকে আক্রমণ করতে বাদ যাননি বিরাট পত্নী তথা বলিউডের অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মাও। কিন্তু শেষ অবধি যখন সত্যিটা সামনে এল, তখন অনুষ্কা শর্মা সহ সেই সকল নেটিজেনদের পাল্টা জবাব দিয়েছিলেন ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটারদের একাংশ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *